ই-পেপার বিজ্ঞাপনের তালিকা  বুধবার ২৫ নভেম্বর ২০২০ ১০ অগ্রহায়ণ ১৪২৭
ই-পেপার  বুধবার ২৫ নভেম্বর ২০২০

প্রবাসী যখন স্বেচ্ছাসেবী
করোনাকালে হাসি ফুটিয়েছেন বহু মানুষের মুখে
প্রকাশ: রোববার, ২২ নভেম্বর, ২০২০, ১১:৪৩ পিএম | প্রিন্ট সংস্করণ  Count : 26

ষ চট্টগ্রাম ব্যুরো
রাশিয়া ও জার্মানিতে ১৯ বছর কাটানো তড়িৎ প্রকৌশলী জ্যোতির্ময় ধর এখন চট্টগ্রামের গরিব ও অসহায় মানুষের পরম বন্ধু। করোনাকালে অসুস্থ রোগীর বাসায় নিজেই পৌঁছে দিয়েছেন অক্সিজেন সিলিন্ডার, সরবরাহ করেছেন ওষুধও। খাদ্য সঙ্কটে পড়া দরিদ্র পরিবারে পৌঁছে দিয়েছেন খাদ্যসামগ্রী। করোনাকালে প্রতিদিনই ফুটপাথে বিলি করেছেন রান্না করা খাবারের প্যাকেটও। অর্ধশত মানুষের সৎকারের ব্যবস্থাও করেছেন তিনি। শুধু করোনাকালই নয়, ঈদে হতদরিদ্র মানুষের পোশাক দেওয়ার পাশাপাশি বিলি করেছেন সেমাই-চিনিও। অনেককে করেছেন অর্থ সহায়তা। অসহায় ও গরিব মানুষের মন ভরিয়ে দিয়েছেন প্রশান্তিতে, মুখে ফুটিয়েছেন এক চিলতে হাসি।
এবার পূজায়ও তিনি হাজির হয়েছেন দরিদ্র মানুষের কাতারে। শারদীয় দুর্গোৎসব উপলক্ষে নগরীর চন্দনপুরা, চকবাজার এলাকায় অসহায় ও কর্মহীন হয়ে পড়া প্রায় দুই শতাধিক সনাতন পরিবারকে পূজার উপহার ঘরে ঘরে পৌঁছে দিয়েছেন। মঙ্গল ও বুধবার তিনি এ মহৎ কাজ করতে ঘুরে বেড়িয়েছেন শহরের বেশকটি পিছিয়ে পড়া এলাকা।
মানবিক কর্মকাণ্ড সম্পর্কে প্রকৌশলী জ্যোতির্ময় ধর বলেন, ‘প্রবাসে থাকার সময়ও অসহায় মানুষের সেবা করেছি। এখন দেশে এসেও মানুষের সেবা করে যাচ্ছি। মানুষের সেবা করাটাই কর্ম ও ধর্ম হিসেবে একাকার হয়ে মিশে গেছে আমার হৃদয়ে। করোনাকালে নিজের তহবিল থেকে প্রায় ২১ লাখ টাকার সহায়তা করেছি মানুষকে। ঈদের পর এবার পূজায়ও মানুষের মুখে হাসি ফুটানোর চেষ্টা করে যাচ্ছি। মানুষের মধ্যেই বেঁচে থাকতে চাই।’
জ্যোতির্ময় ধর চট্টগ্রামের এক আলোকিত পরিবারের সন্তান। তিনি চট্টগ্রাম শিক্ষা বোর্ডের সাবেক চেয়ারম্যান অধ্যাপক রণজিৎ কুমার ধর ও চট্টগ্রাম চারুকলা কলেজের অধ্যক্ষ অধ্যাপক রীতা দত্তের একমাত্র ছেলে। জ্যোতির্ময় ধর জার্মান ইনস্টিটউট অব অলটারনেটিভ এনার্জিতে রিসার্চ অফিসার ও জার্মান ইনস্টিটউট অব অলটারনেটিভ এনার্জির বাংলাদেশ প্রতিনিধি। তড়িৎ প্রকৌশলী জ্যোতির্ময় ১৯ বছর জার্মানিতে বসবাস করলেও করোনার আগে দেশে আসেন। নিজের ও দুই বন্ধুর সহযোগিতায় ২১ লাখ টাকার উপহার তুলে দিয়েছেন মানুষের হাতে। ৪৭ জন গণমাধ্যমকর্মী, ৫০ জন সংবাদপত্র কর্মচারীর পরিবারকে ১০ দিনের খাদ্য দিয়েছেন। তার সহযোগিতা পেয়েছে বেশ কয়েকটি অনাথ আশ্রম ও এতিমখানায়ও। নিজস্ব মানবিক কর্মকাণ্ডের পাশাপাশি তিনি যুক্ত আছেন যুব রেডক্রিসেন্টের সঙ্গে। তার সহায়তায় যুব রেডক্রিসেন্ট পরিচালনা করছেন সপ্তাহব্যাপী মেডিকেল ক্যাম্পও। এই ক্যাম্পে দুই হাজারের বেশি মানুষ বিনামূল্যে চিকিৎসাসেবা ও ওষুধ পেয়েছেন। তিনি যুব রেডক্রিসেন্ট চট্টগ্রামের একজন স্বেচ্ছাসেবকের সঙ্গে অসুস্থ রোগীদের অক্সিজেন সিলিন্ডার সাপোর্ট টিমের প্রধান উদ্যোক্তা ও সমন্বয়কারী হিসেবে কাজ করে যাচ্ছেন।






সর্বশেষ সংবাদ

সর্বাধিক পঠিত


ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: কমলেশ রায়, নির্বাহী সম্পাদক : শাহনেওয়াজ দুলাল, আমিন মোহাম্মদ মিডিয়া কমিউনিকেশন লিমিটেড-এর পক্ষে
প্রকাশক গাজী আহমেদ উল্লাহ। নাসির ট্রেড সেন্টার, ৮৯, বীর উত্তম সি আর দত্ত সড়ক (সোনারগাঁও রোড), বাংলামোটর, ঢাকা।

ফোন : +৮৮-০২-৯৬৩২৩৬৮-৭৪, ফ্যাক্স : +৮৮-০২-৯৬৩২৩৭৫। ই-মেইল : [email protected]