ই-পেপার বিজ্ঞাপনের তালিকা বৃহস্পতিবার ২১ জানুয়ারি ২০২১ ৭ মাঘ ১৪২৭
ই-পেপার বৃহস্পতিবার ২১ জানুয়ারি ২০২১

ঢাবির পরীক্ষার ফরম পূরণ থেকে ফল, সবই হবে অনলাইনে
শিক্ষার আলো প্রতিবেদন
প্রকাশ: শনিবার, ২৮ নভেম্বর, ২০২০, ১১:০১ পিএম | প্রিন্ট সংস্করণ  Count : 20

হিসাব প্রক্রিয়ার পর এবার পরীক্ষা প্রক্রিয়াকে অটোমেশনের আওতায় আনল ঢাকা বিশ^বিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ। এখন থেকে বিশ^বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা পরীক্ষার ফরম পূরণ ও প্রবেশপত্র সংগ্রহ করতে পারবেন অনলাইনে, এমনকি পরীক্ষার ফলাফলও অনলাইনে প্রকাশ করা হবে। বিশ^বিদ্যালয়ের পরীক্ষা নিয়ন্ত্রকের কার্যালয়ে বুধবার দুপুরে এক অনুষ্ঠানে ‘অটোমেশন সফটওয়্যারের’ আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করেন ঢাকা বিশ^বিদ্যালয়ের উপাচার্য মো. আখতারুজ্জামান। এ সময় অন্যদের মধ্যে বিশ^বিদ্যালয় শিক্ষক সমিতির সাধারণ সম্পাদক মো. নিজামুল হক ভ‚ঁইয়া ও পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক মো. বাহালুল হক চৌধুরী উপস্থিত ছিলেন।
অটোমেশন সফটওয়্যার ব্যবহারের মাধ্যমে ঢাকা বিশ^বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা পরীক্ষার ফরম পূরণ ও প্রবেশপত্র সংগ্রহ করতে পারবেন অনলাইনেই। পরীক্ষার ফলাফলও অনলাইনেই প্রকাশ করা হবে। ফল প্রকাশের পাঁচ কার্যদিবসের মধ্যে শিক্ষার্থীরা তাদের প্রভিশনাল সনদ ও ট্রান্সক্রিপ্ট অনলাইনেই সংগ্রহ করতে পারবেন।
উপাচার্য মো. আখতারুজ্জামান বলেন, ঢাকা বিশ^বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের পরীক্ষা বিষয়ক বিভিন্ন কার্যক্রম ডিজিটালাইজেশনের উদ্দেশ্যে এই সফটওয়্যার প্রস্তুত করা হয়েছে। এই সফটওয়্যার তৈরির জন্য সফটওয়্যার ইঞ্জিনিয়ারসহ পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক কার্যালয়ের সংশ্লিষ্ট সবাইকে আন্তরিক ধন্যবাদ জানাচ্ছি। বিশ^বিদ্যালয়ের জনসংযোগ দফতর থেকে গণমাধ্যমে পাঠানো এক বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, অটোমেশন সফটওয়্যার ব্যবহারের মাধ্যমে ঢাকা বিশ^বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা পরীক্ষার ফরম পূরণ ও প্রবেশপত্র সংগ্রহ করতে পারবেন অনলাইনেই। পরীক্ষার ফলও অনলাইনেই প্রকাশ করা হবে। ফল প্রকাশের পাঁচ কার্যদিবসের মধ্যে শিক্ষার্থীরা তাদের প্রভিশনাল সনদ ও ট্রান্সক্রিপ্ট অনলাইনেই সংগ্রহ করতে পারবেন। এতে প্রত্যেক শিক্ষার্থীর জন্য পৃথক প্রোফাইল থাকবে, যেখানে তাদের ব্যক্তিগত তথ্য, ফল ও অন্যান্য তথ্য সন্নিবেশিত থাকবে। প্রয়োজনবোধে বিভিন্ন তথ্য হালনাগাদও করা যাবে। এ ছাড়া সব হল ও বিভাগ অনলাইনে নিজেদের শিক্ষার্থীদের সব তথ্য দেখতে ও ভেরিফিকেশন করতে পারবে। অটো রোলশিট জেনারেটের মাধ্যমে পরীক্ষার ফল ও পরীক্ষা বিষয়ক সব পরিসংখ্যান প্রস্তুত করাসহ বিভিন্ন কার্যক্রম সহজেই করা যাবে। শিক্ষার্থীরা সাপোর্ট অপশন ব্যবহারের মাধ্যমে তাদের বিভিন্ন সমস্যা অনলাইনেই সমাধানের সুবিধা পাবেন। বিশ^বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা হিসাব অটোমেশনের মাধ্যমে ডিজিটালাইজড রসিদ সংগ্রহ করে বেতন-ফি সব লেনদেন জনতা ও অগ্রণী ব্যাংকের যেকোনো শাখায় করতে পারছেন। এ ছাড়া যেকোনো বাণিজ্যিক ব্যাংকের কার্ড বা মোবাইল ব্যাংকিং সেবা (বিকাশ, রকেট, নগদ, শিওরক্যাশ ইত্যাদি) ব্যবহার করেও কাজগুলো করা যাচ্ছে।




সর্বশেষ সংবাদ

সর্বাধিক পঠিত


ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: কমলেশ রায়, নির্বাহী সম্পাদক : শাহনেওয়াজ দুলাল, আমিন মোহাম্মদ মিডিয়া কমিউনিকেশন লিমিটেড-এর পক্ষে
প্রকাশক গাজী আহমেদ উল্লাহ। নাসির ট্রেড সেন্টার, ৮৯, বীর উত্তম সি আর দত্ত সড়ক (সোনারগাঁও রোড), বাংলামোটর, ঢাকা।

ফোন : +৮৮-০২-৯৬৩২৩৬৮-৭৪, ফ্যাক্স : +৮৮-০২-৯৬৩২৩৭৫। ই-মেইল : [email protected]