ই-পেপার বিজ্ঞাপনের তালিকা মঙ্গলবার ১৯ জানুয়ারি ২০২১ ৫ মাঘ ১৪২৭
ই-পেপার মঙ্গলবার ১৯ জানুয়ারি ২০২১

দিল্লিমুখী কৃষকদের ঠেকাতে  মরিয়া বিজেপি সরকার
সময়ের আলো ডেস্ক
প্রকাশ: শনিবার, ২৮ নভেম্বর, ২০২০, ১১:০৮ পিএম | প্রিন্ট সংস্করণ  Count : 25

ভারতের বিতর্কিত কৃষি আইনের বিরুদ্ধে গতকালই রাস্তায় নেমেছে ভারতের বিভিন্ন রাজ্যের কৃষক ও রাজনৈতিক সংগঠনগুলো। শুক্রবার দিল্লি পুলিশ কৃষকদের দিল্লি প্রবেশ ঠেকাতে জলকামান ও টিয়ার গ্যাস নিক্ষেপ করে। শুক্রবার সকাল থেকে আবারও
কৃষকদের প্রতিহত করতে শক্তি প্রয়োগ করছে কেন্দ্রীয় সরকার নিয়ন্ত্রিত রাজধানী দিল্লির পুলিশ বাহিনী। এনডিটিভি।
জানা গেছে, বৃহস্পতিবার দিনভর বিভিন্ন স্থানে কৃষকদের ওপর আক্রমণ হয়েছে। দিন শেষে রাতে আক্রমণ আরও বেড়ে গিয়েছে বলে সংবাদমাধ্যম সূত্রে জানা গেছে। ভারতের কৃষক অধ্যুষিত হরিয়ানা, পাঞ্জাব, উত্তর প্রদেশ, রাজস্থানসহ কয়েকটি রাজ্য থেকে বৃহস্পতিবার রাজধানী অভিমুখে যাত্রা করে কৃষকরা। যাত্রাপথে পুলিশের ব্যারিকেড, জলকামান প্রতিহত করে সামনে এগোতে থাকে তারা। ভারতের সংবাদমাধ্যমগুলো জানিয়েছে, রাজধানী দিল্লির বাইরে কৃষকরা জমায়েত হচ্ছেন। জানা গেছে, পুলিশি বাধা সরিয়ে শনিবার দিল্লি ঢুকতে মরিয়া তারা। এদিকে কৃষকদের ঠেকাতে সকাল থেকে শক্তি প্রয়োগের মাত্রা বাড়িয়ে দিয়েছে পুলিশ। দিল্লির সীমান্তে বিভিন্ন জায়গায় পুলিশ বাধা হয়ে দাঁড়িয়ে রয়েছে।  উল্লেখ্য, সর্বশেষ লোকসভা অধিবেশনে ভারতীয় জনতা পার্টির (বিজেপি) সরকার নতুন কৃষি আইন প্রণয়ন করে। ভারতের বিরোধীদলগুলো ও কৃষকরা অভিযোগ করছে, এই আইন পাসের ফলে কৃষিতে করপোরেট গোষ্ঠীর আধিপত্য প্রতিষ্ঠা হবে।
শুক্রবার সকাল থেকে দিল্লির সীমান্তবর্তী এলাকায়ও দেখা যাচ্ছে পুলিশের সঙ্গে কৃষকদের সংঘর্ষের ঘটনা। কৃষকরা ব্যারিকেড ভেঙে এগিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করছেন, আর তাদের সামনে বাধা হয়ে দাঁড়িয়ে পুলিশ বাহিনী। যদিও বৃহস্পতিবার সর্বোচ্চ চেষ্টা করেও কৃষকদের পুরোপুরি আটকাতে পারেনি হরিয়ানার বিজেপি সরকার। ভারতীয় কৃষক সংগঠনগুলো জানিয়েছে, ইতোমধ্যে প্রায় ৫০ হাজার কৃষক দিল্লি-হরিয়ানা সীমান্তের বিভিন্ন এলাকায় জড়ো হয়েছেন। শুক্রবার তারা দিল্লি ঢুকতে পুরোপুরি প্রস্তুত।
হরিয়ানার পাশাপাশি বিক্ষোভরত কৃষকদের দিল্লি প্রবেশে আটকানোর চেষ্টা করছে স্থানীয় প্রশাসনও। আইন বাতিলের দাবি নিয়ে কৃষক সংগঠনগুলোর দিল্লি যাওয়ার আবেদন করোনাভাইরাসের অজুহাতে বাতিল করে দিয়েছে স্থানীয় পুলিশ। সীমান্তে বাহিনীর বাড়তি সদস্য মোতায়েন রাখা হয়েছে। ২৪ নম্বর জাতীয় সড়ক, চিল্লা সীমান্ত, তিকরি সীমান্ত, বাহাদুরগড় সীমান্ত, ফরিদাবাদ সীমান্ত, কালিন্দী সীমান্ত, সিংঘু সীমান্তে ব্যারিকেড দিয়ে দিল্লি ঢোকার পথ বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে।






সর্বশেষ সংবাদ

সর্বাধিক পঠিত


ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: কমলেশ রায়, নির্বাহী সম্পাদক : শাহনেওয়াজ দুলাল, আমিন মোহাম্মদ মিডিয়া কমিউনিকেশন লিমিটেড-এর পক্ষে
প্রকাশক গাজী আহমেদ উল্লাহ। নাসির ট্রেড সেন্টার, ৮৯, বীর উত্তম সি আর দত্ত সড়ক (সোনারগাঁও রোড), বাংলামোটর, ঢাকা।

ফোন : +৮৮-০২-৯৬৩২৩৬৮-৭৪, ফ্যাক্স : +৮৮-০২-৯৬৩২৩৭৫। ই-মেইল : [email protected]