ই-পেপার বিজ্ঞাপনের তালিকা রোববার ৫ ডিসেম্বর ২০২১ ২০ অগ্রহায়ণ ১৪২৮
ই-পেপার রোববার ৫ ডিসেম্বর ২০২১

৪৩ বিলিয়ন ডলার ছাড়াল রিজার্ভ
নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশ: বৃহস্পতিবার, ৩১ ডিসেম্বর, ২০২০, ৯:৫৮ পিএম আপডেট: ৩০.১২.২০২০ ১১:৩২ পিএম | প্রিন্ট সংস্করণ  Count : 48

কেন্দ্রীয় ব্যাংকের বৈদেশিক মুদ্রার রিজার্ভ ফের রেকর্ড ভেঙে ৪৩ বিলিয়ন মার্কিন ডলার অতিক্রম করেছে। দেশের ইতিহাসে এটি সর্বোচ্চ রিজার্ভ। এই রিজার্ভ দিয়ে প্রায় সাড়ে দশ মাসের বেশি সময়ের আমদানি ব্যয় মেটানো সম্ভব। বর্তমানে বৈদেশিক মুদ্রার রিজার্ভের পরিমাণ ৪৩ দশমিক ১৭ বিলিয়ন মার্কিন ডলার। দেশের এই রিজার্ভের পরিমাণ পাকিস্তানের চাইতে তিনগুণ বেশি।
করোনার ধাক্কায় থমকে গেছে গোটা বিশ^। থমকে গেছে দেশের অর্থনৈতিক কর্মকাণ্ড। অর্থনীতিতে প্রতি মুহূর্তে যুক্ত হচ্ছে নতুন নতুন খারাপ খবর। গত চার মাসে রফতানি নেমে গেছে তলানিতে। দেশের আমদানিও কমেছে তরতর করে। খারাপ খবরের ছড়াছড়ির মধ্যেও সুসংবাদ দিচ্ছেন প্রবাসীরা। করোনা সঙ্কটের মধ্যেও বৈধ পথে প্রচুর রেমিট্যান্স দেশে আসছে। রিজার্ভ রেকর্ডের বিষয়ে জানতে চাইলে বাংলাদেশ ব্যাংকের নির্বাহী পরিচালক ও মুখপাত্র মো. সিরাজুল ইসলাম সময়ের আলোকে বলেন, প্রবাসীরা দেশে প্রচুর পরিমাণে রেমিট্যান্স পাঠাচ্ছেন। একই সঙ্গে বিদেশি ঋণ ও অনুদান আসছে। আমদানি ব্যয় হ্রাস পাওয়ায় দেশের রিজার্ভের পরিমাণ।
বাংলাদেশ ব্যাংকের একজন ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা বুধবার বলেন, ‘এই প্রথম বৈদেশিক মুদ্রার মজুদ ৪৩ বিলিয়ন ডলারের ঘর অতিক্রম করল। সর্বশেষ ১৫ ডিসেম্বর এই মজুদ ৪২ বিলিয়ন ডলারের রেকর্ডে উন্নীত হয়েছিল।’ বৈদেশিক মুদ্রা আয়ের ক্ষেত্রে বড় অবদান প্রবাসীদের পাঠানো অর্থ। ডিসেম্বরের ১ থেকে ২৯ তারিখের মধ্যে প্রবাসীদের পাঠানো অর্থের পরিমাণ ছিল ১ হাজার ৯১২ মিলিয়ন ডলার। গত বছর একই সময়ে এই আয় ছিল ১ হাজার ৫৯৭ মিলিয়ন ডলার। বাংলাদেশ ব্যাংকের তথ্য বিশ্লেষণ করে দেখা গেছে, মূলত করোনাভাইরাসের ধাক্কায় অর্থনীতিতে সৃষ্ট নেতিবাচক অবস্থার কারণে আমদানি কমে যাওয়ায় মজুদ বা রিজার্ভ বাড়ছে।
গত অর্থবছরের তুলনায় আমদানি ব্যয় ৮ দশমিক ৫৬ শতাংশ কমে ৫৪ দশমিক ৫৬ বিলিয়ন ডলার আমদানি হয়। করোনা মহামারির ধাক্কা না থাকলে যা ৬০ বিলিয়ন ডলারের কাছাকাছি যেত। আমদানি ব্যয় হ্রাসের সঙ্গে শিক্ষা ও চিকিৎসাসহ নানা কাজে যে বৈদেশিক মুদ্রা ব্যয় হতো, তা এই সময় হয়নি। এটিও মজুদ বাড়াতে ভূমিকা রাখছে।





সর্বশেষ সংবাদ

সর্বাধিক পঠিত


ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: কমলেশ রায়, আমিন মোহাম্মদ মিডিয়া কমিউনিকেশন লিমিটেড
এর পক্ষে প্রকাশক গাজী আহমেদ উল্লাহ
নাসির ট্রেড সেন্টার, ৮৯, বীর উত্তম সি আর দত্ত সড়ক (সোনারগাঁও রোড), বাংলামোটর, ঢাকা।

ফোন : +৮৮-০২-৯৬৩২৩৬৮-৭৪, ফ্যাক্স : +৮৮-০২-৯৬৩২৩৭৫। ই-মেইল : [email protected]