ই-পেপার বিজ্ঞাপনের তালিকা সোমবার ১৮ জানুয়ারি ২০২১ ৪ মাঘ ১৪২৭
ই-পেপার সোমবার ১৮ জানুয়ারি ২০২১

ইতিহাসের সাক্ষী মিঞাবাড়ি জামে মসজিদ
মো. আতিকুর রহমান
প্রকাশ: শুক্রবার, ১৫ জানুয়ারি, ২০২১, ১০:৪৭ পিএম | প্রিন্ট সংস্করণ  Count : 21

বাংলার সুবাদার মুঘল সম্রাট শাহজাহানের দ্বিতীয় ছেলে শাহজাদা সুজার সঙ্গী হিসেবে এসে বর্তমান ঝালকাঠি সদর উপজেলার গাভারামচন্দ্রপুর ইউনিয়নের ভারুকাঠিতে আস্তানা গাড়েন শেখ আব্দুল মজিদ। নির্মাণ করেন পাকা মসজিদ। মসজিদটি তিন গম্বুজবিশিষ্ট। এর দেওয়াল ৪২ ইঞ্চি পুরু। মসজিদের সামনে দীঘি ঘাটলা বাঁধানো। এ দীঘির বাঁধানো ঘাটলা ও মসজিদে অভিবক্ত বাংলার মুখ্যমন্ত্রী শের-ই বাংলা আবুল কাশেম ফজলুল হকের (একে ফজলুল হক) স্মৃতিবিজড়িত। মিয়াবাড়িতে তার নিকটাত্মীয় হওয়ায় এখানে বেড়াতে এসে দীঘিতে গোসল, মসজিদে নামাজ, খেলার সাথী গাবগাছটিও রয়েছে। স্থানীয়রা এসব স্মৃতিকে রক্ষণাবেক্ষণ করছেন।
জানা গেছে, ঝালকাঠি সদরের গাভারামচন্দ্রপুর ইউনিয়নের ভারুকাঠি গ্রামের সুপ্রাচীন স্থাপত্যশৈলীর অনিন্দ্য সুন্দর আকর্ষণ মিয়াবাড়ি মসজিদ। এটি ১৬০০ খ্রিস্টাব্দে নির্মিত হয়েছে বলে ধারণা করা হয়। ঝালকাঠি সদর উপজেলা পরিষদ থেকে ৩০ কিলোমিটার দূরে অবস্থিত মসজিদটি। মসজিদটি মুঘল আমলে নির্মিত বাংলাদেশের একটি প্রাচীন মসজিদ। এ মসজিদটি দ্বিতলবিশিষ্ট। মসজিদটি দেখতে অনেক সুন্দর ও কারুকার্যমÐিত।
মসজিদজুড়ে চমৎকার নকশার কাজ রয়েছে। মূল মসজিদের রয়েছে তিনটি দরজা। মসজিদের চারপাশে পিলারের ওপর নির্মিত হয়েছে ছোট-বড় পাঁচটি মিনার। মিনারগুলোতেও সুন্দর কারুকার্যময় নকশা দ্বারা অলঙ্কৃত করা হয়েছে। মসজিদের মাঝখানে রয়েছে বড় তিনটি গম্বুজ। মধ্যের গম্বুজটি সবচেয়ে বড়। যার  ভেতরের অংশেও রয়েছে কারুকার্যময় সুন্দর নকশার সমাহার।
মসজিদটি নির্মাণের ইতিহাস সম্পর্কে জনশ্রæতি রয়েছে, ‘মিয়া বাড়ি মসজিদটি বৃহত্তর বরিশাল অঞ্চলের ব্রিটিশ আমলের সূচনালগ্নে নির্মিত একটি মসজিদ। ইংরেজ শাসনের বিরুদ্ধে বিদ্রোহ ঘোষণা করা শাহজাদা সুজা এ মসজিদটি নির্মাণ করেন। মিয়াবাড়ি মসজিদের পূর্ব পাশে কয়েক একর নিয়ে বিশাল একটি দীঘিও রয়েছে, যা মসজিদের সৌন্দর্যকে আরও নয়নাভিরাম করে তুলেছে। মসজিদটি প্রাচীনকালে ইসলামপ্রিয় মানুষের রুচি ও স্থাপত্য শিল্পের সৌন্দর্য বর্ধনে সুউচ্চ মানসিকতার পরিচয় বহন করে। প্রবীণ ব্যক্তিত্ব নেছার উদ্দিন আহমেদ জাহাঙ্গীর মিয়া (৮৩) জানান, মসজিদ নির্মাণের সঠিক সময় বলতে না পারলেও ৫শ বছর পূর্বে এ মসজিদটি নির্মাণ করা হয়েছে বলে ধারণা করেন তিনি। মসজিদ এবং দীঘি একই সময় নির্মাণ করা হয়েছে। ঝালকাঠি কলেজ মোড় গিয়ে বাসযোগে নবগ্রাম যেতে হবে, এর পরে টেম্পু যোগে গুদিগাটা নামতে হবে, এর পরে একটু ভেতরে বামে গিয়ে এই ভারুকাঠি মিয়া বাড়ি তিন গম্বুজবিশিষ্ট জামে মসজিদ।








সর্বশেষ সংবাদ

সর্বাধিক পঠিত


ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: কমলেশ রায়, নির্বাহী সম্পাদক : শাহনেওয়াজ দুলাল, আমিন মোহাম্মদ মিডিয়া কমিউনিকেশন লিমিটেড-এর পক্ষে
প্রকাশক গাজী আহমেদ উল্লাহ। নাসির ট্রেড সেন্টার, ৮৯, বীর উত্তম সি আর দত্ত সড়ক (সোনারগাঁও রোড), বাংলামোটর, ঢাকা।

ফোন : +৮৮-০২-৯৬৩২৩৬৮-৭৪, ফ্যাক্স : +৮৮-০২-৯৬৩২৩৭৫। ই-মেইল : [email protected]