ই-পেপার বিজ্ঞাপনের তালিকা মঙ্গলবার ৯ মার্চ ২০২১ ২৩ ফাল্গুন ১৪২৭
ই-পেপার মঙ্গলবার ৯ মার্চ ২০২১

লাবুশানের ব্যাটে ভারতের দুর্ভোগ
ক্রীড়া ডেস্ক
প্রকাশ: শনিবার, ১৬ জানুয়ারি, ২০২১, ১০:৫৬ পিএম | প্রিন্ট সংস্করণ  Count : 19

অস্ট্রেলিয়ার পছন্দের হোম ভেন্যু ব্রিসবেন ক্রিকেট গ্রাউন্ডে দিনটা হতে পারত ভারতের ‘অনভিজ্ঞ’ বোলারদের। কিন্তু দলের অভিজ্ঞ ক্রিকেটারদের ক্যাচ মিসের মহড়া সেটা হতে দিল না। উল্টো মার্নাস লাবুশানের ব্যাটে দুর্ভোগ পোহালো সফরকারীরা। সিরিজের চতুর্থ ও শেষ টেস্টের প্রথম দিনে দুবার জীবন পেয়ে এই অজি তুলে নিয়েছেন ক্যারিয়ারের পঞ্চম সেঞ্চুরি। তার গড়ে দেওয়া শক্ত ভিতে অস্ট্রেলিয়া প্রথম দিন শেষ করেছে ৫ উইকেটে ২৭৪ রানের সংগ্রহ নিয়ে।
বোর্ডার-গাভাস্কার ট্রফি ১-১ সমতায় থাকায় ব্রিসবেন টেস্ট রূপ নিয়েছে অঘোষিত ফাইনালে। এমন গুরুত্বপূর্ণ ম্যাচটিতে সফরকারী ভারত প্রথমবার খেলার সুযোগ দিয়েছে থাঙ্গারাসু নটরাজন এবং ওয়াশিংটন সুন্দরকে; দুজনেই অভিষেকে পেয়েছেন উইকেট। শিকারির ভ‚মিকায় ছিলেন মোহাম্মদ সিরাজ আর শার্দুল ঠাকুরও। নিয়মিত বোলারদের মধ্যে এদিন উইকেটশূন্য ছিলেন নবদীপ সাইনি, যিনি ৭.৫ ওভার বল করে মাঠ ছাড়েন কুঁচকির চোট নিয়ে।
মোহাম্মদ শামি, উমেশ যাদব, জাসপ্রিত বুমরাহ এবং রবীন্দ্র জাদেজার অনুপস্থিতিতে (চোটে পড়েছেন এরা) খারাপ সার্ভিস দেয়নি ভারতের অনভিজ্ঞ বোলিং বিভাগ। তাদের পারফরম্যান্স বেশ ভালোই ছিল। কিন্তু স্কোর বোর্ডে সেই ভালোর প্রতিফলন থাকছে না দুর্বল ফিল্ডিংয়ে। অথচ দিনের শুরুটা ছিল ঠিক উল্টো। প্রথম ওভারেই সিøপে থাকা রোহিত শর্মার দুর্দান্ত ক্যাচে সিরাজের শিকার হন ডেভিড ওয়ার্নার (১)। শার্দুল আউট করেন আরেক ওপেনার মার্কাস হ্যারিসকে (৫)। দলীয় ১৭ এবং ব্যক্তিগত ৫ রানে তিনি ফেরেন সাজঘরে।
তৃতীয় উইকেট জুটিতে দলের খাতায় ৬০ রান যোগ করেন স্টিভ স্মিথ এবং লাবুশানে। ৩৬ রান করা স্মিথকে ফিরিয়ে প্রথম টেস্ট উইকেটের স্বাদ পান ওয়াশিংটন। পরে ম্যাথু ওয়েডকে সঙ্গে নিয়ে দিনের সেরা প্রতিরোধ গড়ে তুলেন লাবুশানে। অথচ স্মিথ ফেরার পরের ওভারেই ফিরতে পারতেন তিনি। সেটা হয়নি ভারতীয় অধিনায়ক আজিঙ্কা রাহানে ক্যাচ ফেললে। খানিক বাদে লাবুশানের আরেকটি ক্যাচ মিস করেন সিøপে থাকা চেতেশ^র পূজারা। রাহানে-পূজারার সেই ভুলের মাশুলই দিয়েছে ভারত।
হাফ সেঞ্চুরির আগে (৩৭ ও ৪৮ রানে) জীবন পাওয়া লাবুশানে পঞ্চম টেস্ট সেঞ্চুরি তুলে নেন ১৯৫ বলে। তিনি অভিষিক্ত নটরাজনের দ্বিতীয় শিকার হন ব্যক্তিগত ১০৮ রানে। এর আগের ওভারে ভারতীয় এই বোলার প্রথম টেস্ট উইকেট পান ৪৫ রান করা ওয়েডকে প্যাভিলিয়নে পাঠিয়ে। পরপর দুই ওভারে নটরাজনের জোড়া আঘাতের পর অস্ট্রেলিয়া দিনের বাকি সময় কাটিয়ে দেয় অধিনায়ক টিম পেইন (৩৮) ও তরুণ ব্যাটসম্যান ক্যামরন গ্রিনের (২৮) ব্যাটে।
এদিকে সেঞ্চুরি করেও দিন শেষে আক্ষেপ করলেন লাবুশানে, ‘আমি হতাশ বড় রান করতে না পারায়। টেস্টে শতরান যেকোনো পরিস্থিতিতেই বড়, সে যাদের বিরুদ্ধেই হোক। কিন্তু আরও বড় রান করা উচিত ছিল আমার। দলকে আরও কিছুটা ভালো জায়গা নিয়ে যাওয়া যেত।’ পাশাপাশি অজি ব্যাটসম্যানের কণ্ঠ থেকে ঝরল ভারতের অনভিজ্ঞ বোলারদের প্রশংসা, ‘প্রচÐ শৃঙ্খলাপরায়ণ আক্রমণ ছিল ভারতের। বিশেষ করে প্রথম সেশনে।’
তিনি যোগ করেন, ‘রান করার জায়গাই দিচ্ছিল না ওরা। একটি দুর্দান্ত দলের বিরুদ্ধে খেলছি আমরা। কে নেই সেটা ভেবে লাভ নেই। দলে যারা রয়েছে প্রত্যেকেই লাইন, লেংথ বজায় রেখে বল করে। নিজেদের কাজটা তারা জানে। দারুণ বোলার প্রত্যেকেই।’






সর্বশেষ সংবাদ

সর্বাধিক পঠিত


ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: কমলেশ রায়, নির্বাহী সম্পাদক : শাহনেওয়াজ দুলাল, আমিন মোহাম্মদ মিডিয়া কমিউনিকেশন লিমিটেড-এর পক্ষে
প্রকাশক গাজী আহমেদ উল্লাহ। নাসির ট্রেড সেন্টার, ৮৯, বীর উত্তম সি আর দত্ত সড়ক (সোনারগাঁও রোড), বাংলামোটর, ঢাকা।

ফোন : +৮৮-০২-৯৬৩২৩৬৮-৭৪, ফ্যাক্স : +৮৮-০২-৯৬৩২৩৭৫। ই-মেইল : [email protected]