ই-পেপার বিজ্ঞাপনের তালিকা শনিবার ২৭ ফেব্রুয়ারি ২০২১ ১৪ ফাল্গুন ১৪২৭
ই-পেপার শনিবার ২৭ ফেব্রুয়ারি ২০২১

রুটের ডাবলের পর শ্রীলঙ্কার জবাব
প্রকাশ: রোববার, ১৭ জানুয়ারি, ২০২১, ১১:০৯ পিএম | প্রিন্ট সংস্করণ  Count : 20

ক্রীড়া ডেস্ক
‘মহাকাব্যিক’Ñ গল আন্তর্জাতিক স্টেডিয়ামে জো রুটের ব্যাটিং শৈলী যারা দেখেছেন, ইংল্যান্ড অধিনায়কের ২২৮ রানের ইনিংসটাকে তারা এক কথায় ওই শব্দেই বুঝাতে চাইবেন। গত বছরটায় যিনি সেঞ্চুরিহীন ছিলেন, রানের জন্য হাপিত্যোষ করেছেন, সেই তিনিই শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে ইংল্যান্ডকে সামনে থেকে পথ দেখালেন। এই ডানহাতি প্রথম ইনিংসে দলকে এনে দিয়েছেন ২৮৬ রানের বড় লিড। তবে প্রতিপক্ষের অত বড় লিডেও ভড়কে যায়নি লঙ্কানরা। প্রথম ইনিংসে মাত্র ১৩৫ রানে অলআউট হওয়া স্বাগতিক দল দ্বিতীয় ইনিংসে ঘুরে দাঁড়িয়েছে। তৃতীয় দিন শেষ করেছে ২ উইকেটে ১৫৬ রান তুলে। তবে ইনিংস পরাজয় এড়াতে এখনও ১৩০ রান করতে হবে তাদের।
ইংল্যান্ড দিনের খেলা শুরু করে ৪ উইকেটে ৩২০ রান নিয়ে। বাকি ৬ উইকেট হারিয়ে এদিন ১০১ রান যোগ করে ৪২১ রানে অলআউট হয় তারা। এদিনও দলের পুঁজিতে সিংহভাগ রানের জোগান দিয়েছেন রুট। দিলরুয়ান পেরেরার (৪/১০৯) অফস্পিনের সামনে বাকিরা সুবিধা করে উঠতে পারেননি। ৭ রান নিয়ে দিন শুরু করা কিপার-ব্যাটসম্যান জস বাটলার চেষ্টা করেছেন কিছুটা সময় রুটকে সঙ্গ দিতে। কিন্তু দলীয় ৩৭২ রানের মাথায় ব্যক্তিগত ৩০ রান করে সাজঘরের পথ ধরেন তিনি। স্যাম কুরান, ডম বেস, জ্যাক লিথরাও ফিরে যান দ্রুত। একপর্যায়ে ২৬ রানের ব্যবধানে ৪ উইকেট হারায় ইংল্যান্ড। তবে রুট ছিলেন অবিচল। একপ্রান্ত আগলে খেলে গেছেন।
দলের শেষ ব্যাটসম্যান হিসেবে আউট হওয়ার আগে তুলে নিয়েছেন ক্যারিয়ারের চতুর্থ ডাবলসেঞ্চুরি, যেটি শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে তার দ্বিতীয়। ৩২১ বল মোকাবিলা করে ১৮টি চার আর একটি ছক্কায় ২২৮ রান করে মাঠ ছাড়েন ইংলিশ দলপতি। উপহার দিয়েছেন মনোমুগ্ধকর ব্যাটিং। শ্রীলঙ্কার স্পিন আক্রমণ যেভাবে সামলেছেন, তা ছিল অসাধারণ। সুইপ শটগুলো খেলেছেন মাঝব্যাটে। মহাকাব্যিক এই ইনিংস খেলার পথে টেস্টে ৩১তম ক্রিকেটার হিসেবে আট হাজার রানের মাইলফলকও স্পর্শ করেছেন তিনি। এই মাইলফলকে ইংল্যান্ডের ছয়জনের মধ্যে দ্বিতীয় দ্রুততম রুট। প্রথম জন কেভিন পিটারসেন, তার লেগেছিল ১৭৬ ইনিংস। রুটের লেগেছে ১৭৮ ইনিংস।
রুটের অমন ব্যাটিং দেখেই কি না কে জানে, রানের ফোয়ারা ছুটল শ্রীলঙ্কার দুই ওপেনারের ব্যাটে। ইনিংস ব্যবধানে হারের যে শঙ্কা লঙ্কান শিবিরে বিরাজ করছে, সেটা অনেকটাই দূর করে দিয়েছেন কুশাল পেরেরা আর লাহিরু থিরিমান্নে। ১০১ রানের জুটি গড়েন তারা। বেশ আক্রমণাত্মক ধাঁচেই ব্যাট চালিয়েছেন কুশাল পেরেরা। কুরানের বলে লিচের হাতে ক্যাচ তুলে দেওয়ার আগে ৬২ রান করেছেন ১০৯ বল খেলে, ৫টি চার আর একটি ছক্কার মারে। এরপর কুশাল মেন্ডিসকে নিয়ে দিনটা ভালোভাবেই শেষ করার পথে এগোচ্ছিলেন আরেক ওপেনার থিরিমান্নে। কিন্তু আলোক স্বল্পতায় খেলা শেষ হওয়ার ৭ বল আগে বাধ সাধলেন লিচ। ১৫ রান করা মেন্ডিসকে ফেরালেন। তবে ৭৬ রানে অপরাজিত থেকেই দিন শেষ করেছেন থিরিমান্নে। হার এড়াতে আজ তার ব্যাটের দিকেই তাকিয়ে থাকবে লঙ্কানরা।




সর্বশেষ সংবাদ

সর্বাধিক পঠিত


ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: কমলেশ রায়, নির্বাহী সম্পাদক : শাহনেওয়াজ দুলাল, আমিন মোহাম্মদ মিডিয়া কমিউনিকেশন লিমিটেড-এর পক্ষে
প্রকাশক গাজী আহমেদ উল্লাহ। নাসির ট্রেড সেন্টার, ৮৯, বীর উত্তম সি আর দত্ত সড়ক (সোনারগাঁও রোড), বাংলামোটর, ঢাকা।

ফোন : +৮৮-০২-৯৬৩২৩৬৮-৭৪, ফ্যাক্স : +৮৮-০২-৯৬৩২৩৭৫। ই-মেইল : [email protected]