ই-পেপার বিজ্ঞাপনের তালিকা শনিবার ২৭ ফেব্রুয়ারি ২০২১ ১৪ ফাল্গুন ১৪২৭
ই-পেপার শনিবার ২৭ ফেব্রুয়ারি ২০২১

পঙ্গু জাহিদের জীবন যেন আর চলে না
মো. রেজাউল করিম সিরাজগঞ্জ
প্রকাশ: সোমবার, ১৮ জানুয়ারি, ২০২১, ১১:১১ পিএম | প্রিন্ট সংস্করণ  Count : 22


পঙ্গু জাহিদের জীবন যেন আর চলছে না। এ করোনাকালে দুটি কন্যাসন্তান আর স্ত্রীকে নিয়ে তার পক্ষে সংসারের চাকা টেনে নেওয়া কঠিন হয়ে দাঁড়িয়েছে।
কোনো সহৃদয় ব্যক্তি বা কোনো প্রতিষ্ঠানের পক্ষ থেকে তাকে যদি একটি মুদি দোকান করে দেওয়া হয় তাহলে হয়তো দিন গুজরানের একটা ব্যবস্থা হতো।
জাহিদের বয়স ৪৫ বছর। ৪২ বছর আগে পোলিও হয়ে তার দুটি পা পঙ্গু হয়ে যায়। দুটি হাতের ওপর ভর করে হামাগুড়ি দিয়ে ৪২ বছর পর্যন্ত চলল তার কষ্টের জীবন। তবুও ভিক্ষা বৃত্তিতে নামেননি জাহিদ। জাহিদের পরিবারে দুই সন্তানসহ স্ত্রী রয়েছেন। ১৯৭৬ সালে বগুড়া সারিয়াকান্দিতে সোলাইমান হোসেনের ঘরে জাহিদ জন্মগ্রহণ করেন। জন্মগ্রহণটা ছিল স্বাভাবিক। শারীরিকভাবে তার সবকিছুই ভালো ছিল। কিন্তু জন্মের ২ বছর পর হঠাৎ ১৯৭৮ সালে পোলিও নামে রোগে আক্রান্ত হয়ে তার দুটি পা চিরতরের মতো পঙ্গু হয়ে যায়। দুটি হাতের ওপর ভর করে চলতে হয় তাকে। তবুও তিনি ভিক্ষা বৃত্তির পেশা বেছে নেননি। পঙ্গুত্বের অসহায়ত্ব দেখে যদি কেউ সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দিতেন তা সাদরে গ্রহণ করতেন।
এমনিভাবে ১৯৯৫ সাল থেকে থেকে সলঙ্গায় বেড়ে উঠেছেন জাহিদ। তরুণ বয়সে তিনি সলঙ্গায় খালেদা নামে এক মেয়ের সঙ্গে বিবাহবন্ধনে আবদ্ধ হোন। সংসার জীবনে সাদিয়া (৭) ও জাকিয়া (৭) নামে দুই মেয়ে সন্তানের জনক জাহিদ। বর্তমানে সিরাজগঞ্জ জেলার সলঙ্গা বাজারের পান পট্টির পাশে একটি ভাড়া বাসায় বসবাস করেন। প্রতি মাসে বিদ্যুৎ বিলসহ বাড়িভাড়া দিতে হয় ১ হাজার টাকার মতো।
জাহিদের স্ত্রী খালেদা আক্তার বলেন, আমার স্বামী ঠিকমতো চলাফেরা করতে পারেন না। দুই হাতের ওপর ভর দিয়ে চলাফেরা করেন। দুই মেয়েকে ভালো কিছু কিনে দিতে পারি না। আমি সেলাই মেশিনের কাজ জানি কিন্তু সেলাই মেশিন না থাকায় সেটাও করতে পারি না। সবাই মিলে যদি একটি সেলাই মেশিন ও আমার স্বামীর জন্য ছোট মুদি দোকানের ব্যবস্থা করে দেন তাহলে অনেক উপকার হবে।
জাহিদ বলেন, আমার হামাগুড়ি দিয়ে চলাফেরায় খুব কষ্ট হয়। মানুষ যে যায় দেয় সেটা দিয়েই কোনো মতো খেয়ে না খেয়ে পরিবার নিয়ে চলি। ভাড়া বাসায় থাকি প্রতি মাসে ঘর ভাড়া বিদ্যুৎ বিল মিলিয়ে ১ হাজার টাকা দেওয়া লাগে। আমি একটু ভালোভাবে বাঁচতে চাই মেয়ে দুটাকে লেখাপড়া করাতে চাই। আপনাদের মধ্য থেকে যদি কোনো ধনাঢ্য ব্যক্তি আমার পাশে দাঁড়ান, আমার জন্য একটি মুদি দোকান ও আমার স্ত্রীর জন্য সেলাই মেশিনের ব্যবস্থা করে দেন তাহলে অনেক উপকার হবে। আমার দুটি মেয়ের ভবিষ্যৎ চিন্তা করে সমাজের বিত্তবানদের আকুল আবেদন জানাই, আমার পঙ্গুত্ব সমাজের বোঝা নয়, আমাকে কেউ একটি ছোট্ট মুদি দোকানের ব্যবস্থা করে দিন। আমি আমার সন্তান ও স্ত্রীকে নিয়ে সুখে শান্তিতে জীবনযাপন করতে পারব। সুখে শান্তিতে জীবনযাপন করলে আমার পঙ্গুত্বের জীবনের কথা মনে আসবে না।




সর্বশেষ সংবাদ

সর্বাধিক পঠিত


ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: কমলেশ রায়, নির্বাহী সম্পাদক : শাহনেওয়াজ দুলাল, আমিন মোহাম্মদ মিডিয়া কমিউনিকেশন লিমিটেড-এর পক্ষে
প্রকাশক গাজী আহমেদ উল্লাহ। নাসির ট্রেড সেন্টার, ৮৯, বীর উত্তম সি আর দত্ত সড়ক (সোনারগাঁও রোড), বাংলামোটর, ঢাকা।

ফোন : +৮৮-০২-৯৬৩২৩৬৮-৭৪, ফ্যাক্স : +৮৮-০২-৯৬৩২৩৭৫। ই-মেইল : [email protected]