ই-পেপার বিজ্ঞাপনের তালিকা শনিবার ২৭ ফেব্রুয়ারি ২০২১ ১৪ ফাল্গুন ১৪২৭
ই-পেপার শনিবার ২৭ ফেব্রুয়ারি ২০২১

হুমকির কোনো ইঙ্গিত নেই : পেন্টাগন
নজিরবিহীন নিরাপত্তায় বাইডেনের শপথ আজ
সময়ের আলো ডেস্ক
প্রকাশ: বুধবার, ২০ জানুয়ারি, ২০২১, ১০:৪৩ পিএম আপডেট: ১৯.০১.২০২১ ১১:৩১ পিএম | প্রিন্ট সংস্করণ  Count : 51

যুক্তরাষ্ট্রের নতুন প্রেসিডেন্ট হিসেবে জো বাইডেন শপথ নেবেন আজ। শপথগ্রহণ অনুষ্ঠান ঘিরে আগে থেকেই নিñিদ্র নিরাপত্তার চাদরে মুড়ে ফেলা হয়েছে ওয়াশিংটন ডিসিকে। গত রোববার শপথ অনুষ্ঠানের মহড়া হওয়ার কথা থাকলেও নিরাপত্তা নিয়ে উদ্বেগের কারণে যা স্থগিত করা হয়েছে। পূর্বপরিকল্পনা অনুযায়ী মহড়ার পর বাইডেনের দলের ট্রেনে করে উইলমিংটন থেকে ওয়াশিংটন যাওয়ার কথা ছিল। কিন্তু উচ্চ নিরাপত্তা ঝুঁকির কারণে সে পরিকল্পনাও বাতিল করা হয়েছে বলে জানা গেছে। বিবিসি। সিএনএন।
বিশ^বাসীর দৃষ্টি এখন ৫৯তম এই অভিষেকের দিকে। যুক্তরাষ্ট্রের ৪৬তম প্রেসিডেন্ট হিসেবে জো বাইডেন এবং ভাইস প্রেসিডেন্ট কমলা হ্যারিস অভিষিক্ত হবেন আজ। রাজধানী ওয়াশিংটন ডিসির ক্যাপিটল হিলের পশ্চিম চত্বরে অনুষ্ঠেয় অভিষেকে পরবর্তী চার বছর দায়িত্ব পালনের জন্য জো বাইডেনকে ৩৫ শব্দের শপথবাক্য পাঠ করাবেন প্রধান বিচারপতি জন রবার্টস।
সংবিধানের দ্বিতীয় অধ্যায়ের প্রথম ধারার ৮ উপধারায় শপথবাক্যের বিষয়বস্তু সন্নিবেশিত আছে। বাইবেলের ওপর বাঁহাত রেখে ডানহাত উঁচিয়ে শপথবাক্য পাঠ করার রীতি চলছে ২৩২ বছর ধরে। মাত্র ১ মিনিটের এই শপথ অনুষ্ঠানের জন্য এত বিশাল আয়োজনের রেকর্ড পৃথিবীর কোথাও নেই। গত ৩ নভেম্বর অনুষ্ঠিত বিশে^র সর্বাধিক আলোচিত এ নির্বাচনে প্রেসিডেন্ট হিসেবে বিপুল বিজয়ের ৭৯ দিন পর অনুষ্ঠেয় ঐতিহ্যবাহী এই অভিষেকে থাকবে প্রেসিডেন্টের ভাষণ, প্যারেডসহ উৎসব আয়োজন। মঞ্চে একসঙ্গে ১ হাজার ৬০০ অতিথির আসন গ্রহণের ব্যবস্থা রয়েছে। এর মধ্যে সিনেটর, কংগ্রেসম্যান, সব রাজ্যের গভর্নর ও অতিথিদের জন্য থাকবে বিশেষ আসন। মহামারি করোনায় সৃষ্ট অর্থনৈতিক মন্দাবস্থা ও প্রেসিডেন্ট নির্বাচন ঘিরে সৃষ্ট সঙ্কটের মধ্যে এবারের অভিষেক হবে অনেকটাই অনাড়ম্বর। প্রথা অনুযায়ী অভিষেক অনুষ্ঠানে দেশি-বিদেশি ২০ হাজার অতিথিকে আমন্ত্রণ জানানো হয়।
সিনেট ও হাউস প্রতিনিধিদের নির্বাচনি এলাকার জন্য বিতরণ করা হয় ২ লাখ আমন্ত্রণপত্র। এ ছাড়া উন্মুক্ত ময়দানে দাঁড়িয়ে লাখ লাখ মানুষ উপভোগ করে অভিষেকের বর্ণাঢ্য অনুষ্ঠান। এবার থাকছে না তেমন আয়োজন। শুধু ১১৭তম কংগ্রেসের সদস্য ও তাদের প্রত্যেকের পছন্দনীয় একজন অতিথি অংশ নিতে পারবেন অনুষ্ঠানে। অতিথিদের জন্য মাস্ক পরিধান, কোভিড টেস্ট থাকছে বাধ্যতামূলক।
এবারের অভিষেককে কেন্দ্র করে ক্যাপিটল হিল এলাকাসহ গোটা ওয়াশিংটন ডিসি ঢেকে ফেলা হয়েছে নিরাপত্তার চাদরে। স্থানীয় ও কেন্দ্রীয় সরকারের বিভিন্ন বাহিনী নিশ্চিত করছে নজিরবিহীন নিরাপত্তা ব্যবস্থা। অভিষেক সফল করতে গঠিত কমিটি কাজ করছে রাত-দিন। মঞ্চ তৈরির কাজ শুরু হয়েছে গত ২৯ সেপ্টেম্বর থেকে।
কোনোরকম অনভিপ্রেত ঘটনার জন্য ওয়াশিংটন ডিসিসহ ১২ রাজ্যে জারি হয়েছে চূড়ান্ত সতর্কতা। রাজধানী ওয়াশিংটনের ক্যাপিটল হিলকে মুড়ে ফেলা হয়েছে কড়া নিরাপত্তাবলয়ে। মোতায়েন করা হয়েছে ২০ হাজার ন্যাশনাল গার্ড। ২৪ জানুয়ারি পর্যন্ত ওয়াশিংটনে জারি করা হয়েছে পর্যটন নিষেধাজ্ঞা। জো বাইডেনের শপথ সামনে রেখে ট্রাম্পের উগ্র সমর্থকরা ব্যাপক পরিকল্পনা করছে ৫০ অঙ্গরাজ্যের রাজধানী ও ওয়াশিংটন ডিসির ক্যাপিটল হিলে জড়ো হওয়ার।
ক্রমবর্ধমান হামলার আশঙ্কা ও অনভিপ্রেত ঘটনাগুলো সত্ত্বেও বাইডেনের উদ্বোধনী কমিটি রাজনৈতিক ও জনস্বাস্থ্য সঙ্কটের সময় বিভক্ত জাতিকে একত্রিত হওয়ার আহ্বান জানিয়েছে। বাইডেন নিজে খোলা জায়গায় উপস্থিত হয়ে অনুষ্ঠানটি করতে প্রতিশ্রুতিবদ্ধ। আমেরিকান প্রেসিডেন্টের এবারের শপথের থিম হলো ‘আমেরিকা ইউনাইটেড’।
বাইডেন আমেরিকার তিন সাবেক প্রেসিডেন্ট বিল ক্লিনটন, জর্জ ডব্লিউ বুশ ও বারাক ওবামার সঙ্গে আর্লিংটন জাতীয় সমাধি পরিদর্শন করারও সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। যেকোনো ধরনের সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ড ঠেকাতে দেশের বিভিন্ন স্থান থেকে ৫৭টি বিভাগের গোয়েন্দা কর্মকর্তাদের ওয়াশিংটনে নিয়োজিত করা হচ্ছে নিরাপত্তা রক্ষায়। সিনিয়র এক গোয়েন্দা কর্মকর্তা নিরাপত্তা পরিস্থিতিকে অভিহিত করেছেন ‘নজিরবিহীন’ বলে।
নির্বাচনে কারচুপির অভিযোগ এনে অভিষেকে অংশ নিচ্ছেন না ডোনাল্ড ট্রাম্প। ট্রাম্প বুধবার সকালে একটি বিদায়ি লাল গালিচা সংবর্ধনা অনুষ্ঠানের মধ্য দিয়ে ওয়াশিংটন ছাড়ার পরিকল্পনা করছেন। এরপর প্রেসিডেন্টের বিমান এয়ারফোর্স ওয়ানে চড়ে তিনি ফ্লোরিডার উদ্দেশে যাত্রা করবেন।
শপথগ্রহণের পর জো বাইডেন হবেন যুক্তরাষ্ট্রের ইতিহাসে সবচেয়ে বয়স্ক প্রেসিডেন্ট। এদিন তার বয়স হবে ৭৮ বছর ৬১ দিন। অন্যদিকে জন এফ কেনেডির পর দ্বিতীয় ক্যাথলিক প্রেসিডেন্ট হবেন জো বাইডেন। অভিষেকের আনুষ্ঠানিকতা শেষে প্রেসিডেন্ট ও ভাইস প্রেসিডেন্ট অভিবাদন গ্রহণ করবেন বর্ণাঢ্য প্যারেডের। সশস্ত্র বাহিনীর সব বিভাগের সম্মিলিত প্যারেড তাদের নিয়ে যাবে হোয়াইট হাউসে।
প্রেসিডেন্সিয়াল প্যারেড হবে অপরাহ্ণ আড়াইটায় পেনসিলভেনিয়া অ্যাভিনিউয়ে তৃতীয় এবং ১৭ স্ট্রিটের মধ্যে। অভিষেকে ব্যয় হবে প্রায় ৪৫ মিলিয়ন ডলার। এরপর জো বাইডেন স্ত্রী জিল বাইডেনকে নিয়ে উঠবেন হোয়াইট হাউসে। অভিষেকের আগেই জো বাইডেন চূড়ান্ত করেছেন তার ক্যাবিনেটের সদস্যদের নিয়োগ। যুক্তরাষ্ট্রসহ বিশ^বাসী অধীর আগ্রহে অপেক্ষা করছে জো বাইডেনের স্বাগত ভাষণ শুনতে। ২১ জানুয়ারি ঊষালগ্নে শুরু হবে বিশে^র সবচেয়ে শক্তিধর প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনের শাসনকাল।
যুক্তরাষ্ট্রে নির্বাচিত প্রেসিডেন্টের দায়িত্বভার গ্রহণের আগে শপথগ্রহণ সাংবিধানিকভাবে বাধ্যতামূলক। নিউইয়র্ক সিটিতে ১৭৮৯-এর ৩০ এপ্রিল যুক্তরাষ্ট্রের প্রথম প্রেসিডেন্ট হিসেবে শপথগ্রহণ করেন জর্জ ওয়াশিংটন। এরপর থেকে প্রথা অনুযায়ী চলে আসছে অভিষেকের আনুষ্ঠানিকতা। প্রেসিডেন্ট মার্টিন ভ্যানবুরা থেকে জিমি কার্টার পর্যন্ত অভিষেক অনুষ্ঠিত হয় ক্যাপিটল হিলের পূর্বাঙ্গনে। ১৯৮১ সালে রোনাল্ড রিগ্যান প্রেসিডেন্ট হিসেবে প্রথম শপথগ্রহণ করেন ক্যাপিটল হিলের পশ্চিম চত্বরে।
এদিকে নবনির্বাচিত মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনের অভিষেকের আগে ‘অভ্যন্তরীণ হুমকির কোনো ইঙ্গিত পাওয়া যায়নি’ বলে জানিয়েছেন দেশটির অস্থায়ী প্রতিরক্ষামন্ত্রী ক্রিস্টোফার মিলার। প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের এই অস্থায়ী প্রধান সোমবার এক বিবৃতিতে জানান, বাইডেনের অভিষেক ঘিরে সম্ভাব্য নিরাপত্তা উদ্বেগের কারণে যুক্তরাষ্ট্রের ক্যাপিটলের সুরক্ষায় সহায়তা করতে ২৫ হাজারেরও বেশি ন্যাশনাল গার্ড সেনা মোতায়েন করা হয়েছে।






সর্বশেষ সংবাদ

সর্বাধিক পঠিত


ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: কমলেশ রায়, নির্বাহী সম্পাদক : শাহনেওয়াজ দুলাল, আমিন মোহাম্মদ মিডিয়া কমিউনিকেশন লিমিটেড-এর পক্ষে
প্রকাশক গাজী আহমেদ উল্লাহ। নাসির ট্রেড সেন্টার, ৮৯, বীর উত্তম সি আর দত্ত সড়ক (সোনারগাঁও রোড), বাংলামোটর, ঢাকা।

ফোন : +৮৮-০২-৯৬৩২৩৬৮-৭৪, ফ্যাক্স : +৮৮-০২-৯৬৩২৩৭৫। ই-মেইল : [email protected]