ই-পেপার বিজ্ঞাপনের তালিকা মঙ্গলবার ৯ মার্চ ২০২১ ২৩ ফাল্গুন ১৪২৭
ই-পেপার মঙ্গলবার ৯ মার্চ ২০২১

বিশ্ববিদ্যালয়ের পরীক্ষা স্থগিত
নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশ: বুধবার, ২৪ ফেব্রুয়ারি, ২০২১, ১০:০৭ পিএম আপডেট: ২৩.০২.২০২১ ১০:৪৭ পিএম | প্রিন্ট সংস্করণ  Count : 42

শিক্ষার্থীরা আল্টিমেটাম দিলেও ১৭ মের আগে খুলছে না কোনো বিশ^বিদ্যালয়ের হল। বেশিরভাগ পাবলিক বিশ^বিদ্যালয়ের সব ধরনের পরীক্ষা স্থগিত করেছে কর্তৃপক্ষ। এ ছাড়া জাতীয় বিশ^বিদ্যালয়ের চলমান পরীক্ষাও স্থগিত করা হয়েছে। ঢাকা বিশ^বিদ্যালয়ের (ঢাবি) অধিভুক্ত সাত কলেজের পরীক্ষা স্থগিত করা হয়েছে। বিশ^বিদ্যালয়গুলোতে ভর্তি পরীক্ষার সম্ভাব্য তারিখ ঘোষণা করলেও তা পিছিয়ে যাচ্ছে। যদিও পাবলিক বিশ^বিদ্যালয়ের উপাচার্যদের সংগঠন বিশ^বিদ্যালয় পরিষদ এ বিষয়ে এখনও আনুষ্ঠানিক সিদ্ধান্তের কথা জানায়নি। মহামারি করোনাভাইরাসের প্রকোপে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ রয়েছে। বেশ কয়েকটি পাবলিক বিশ^বিদ্যালয়ে ছাত্রাবাস খুলে দেওয়ার দাবিতে আন্দোলনে নেমেছে শিক্ষার্থীরা। এই পরিস্থিতিতে শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি জানিয়েছেন, এক বছর ধরে বন্ধ থাকা দেশের বিশ^বিদ্যালয়গুলোতে ২৪ মে থেকে শ্রেণিকক্ষে স্বাভাবিক শিক্ষা কার্যক্রম শুরু হবে। আর ১৭ মে থেকে ছাত্রাবাসগুলো খুলে দেওয়া হবে। করোনাভাইরাসের প্রকোপ শুরুর পর সব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের মতো বিশ^বিদ্যালয়গুলোও গত বছরের ১৭ মার্চ বন্ধ ঘোষণা করা হয়।
এদিকে শিক্ষার্থীরা হল খোলার দাবিতে আন্দোলন করলেও আবাসিক হল আগামী ১৭ মে খুলে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে ঢাকা বিশ^বিদ্যালয়ের অ্যাকাডেমিক কাউন্সিল। মঙ্গলবার বিশ^বিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. আখতারুজ্জামানের সভাপতিত্বে এক জরুরি সভায় এ ব্যাপারে সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। জরুরি এই সভায় অনার্স শেষ বর্ষ এবং মাস্টার্স ফাইনাল পরীক্ষা গ্রহণের জন্য আগামী ১৩ মার্চ থেকে আবাসিক পরীক্ষার্থীদের হলে রাখার পূর্বের সিদ্ধান্ত স্থগিত করা হয়। এ উপলক্ষে প্রণীত পরীক্ষার সব পরীক্ষাসূচি স্থগিত করা হয়। সভা শেষে অধ্যাপক ড. মো. আখতারুজ্জামান বলেন, হল খোলার আগে নতুন কোনো পরীক্ষার সূচি ঘোষণা করা হবে না। হল খোলার দুই সপ্তাহ পর শ্রেণি কার্যক্রম ও পরীক্ষা শুরু হবে। এর আগে বিশ^বিদ্যালয়ের শিক্ষক-শিক্ষার্থী ও কর্মকর্তা-কর্মচারীদেরকে আগামী ১৭ এপ্রিলের মধ্যে কোভিড-১৯ টিকার প্রথম ডোজ প্রদানের ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য সরকারের সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়ের প্রতি অনুরোধ জানান তিনি।
অন্যদিকে প্রশাসনের আশ^াসে জাহাঙ্গীরনগর বিশ^বিদ্যালয়ের (জাবি) শিক্ষার্থীরা আন্দোলন স্থগিত করলেও হল না ছাড়ার সিদ্ধান্তে অনঢ় রয়েছে তারা। বিশ^বিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, সরকারের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী সব বিভাগ ও ইনস্টিটিউটের সব ধরনের পরীক্ষা পরবর্তী নির্দেশনা না দেওয়া পর্যন্ত স্থগিত করা হয়েছে। পাশাপাশি উইকেন্ড এবং ইভিনিং প্রোগ্রামেরও সব পরীক্ষা বন্ধ রাখার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। সরকারের সিদ্ধান্তের পর ছাত্রলীগ হল ছাড়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে। শাখা ছাত্রলীগের উপদফতর সম্পাদক এম. মাইনুল হুসাইন রাজন বলেন, জাহাঙ্গীরনগর বিশ^বিদ্যালয় ছাত্রলীগ সরকারের সিদ্ধান্তকে সাধুবাদ জানাচ্ছে। তবে হলে থাকার ঘোষণা দিয়ে আন্দোলন স্থগিত করেছে জাহাঙ্গীরনগর বিশ^বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা। দুপুর পৌনে ১টায় বিশ^বিদ্যালয়ের পরিবহন চত্বরে সাংবাদিকদের কাছে এ তথ্য জানান আন্দোলনকারী শিক্ষার্থীরা। এ সময় নাটক ও নাট্যতত্ত্ব বিভাগের ৪৫তম ব্যাচের শিক্ষার্থী নুশিন আদিবা জানায়, বিশ^বিদ্যালয় প্রশাসন আমাদের অধিকাংশ দাবি মেনে নিয়েছে। এ কারণে আন্দোলনের সব কর্মসূচি স্থগিত করছি। তবে শিক্ষার্থীদের নিরাপত্তা ও ভোগান্তির বিষয়টি বিবেচনা করে আমরা হলে থাকব।
সরকারের সিদ্ধান্ত প্রত্যাখ্যান করে আবাসিক হল খুলে দেওয়ার এক দফা দাবিতে তৃতীয় দিনের মতো আন্দোলন অব্যাহত রেখেছে কুষ্টিয়ার ইসলামী বিশ^বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা। বেলা সাড়ে ১১টায় বিশ^বিদ্যালয়ের ডায়না চত্বরে সংবাদ সম্মেলনে আন্দোলনরত শিক্ষার্থীরা আগামী ১ মার্চের মধ্যে হলসমূহ খোলার আল্টিমেটাম দেয়। অন্যথায় নিজ দায়িত্বে হলে প্রবেশ করার হুঁশিয়ারি দেন। এ ছাড়াও বিশ^বিদ্যালয়ে চলমান পরীক্ষা বন্ধের সিদ্ধান্ত প্রত্যাখ্যান করে পুনরায় পরীক্ষা চালু করার জোর দাবি জানান শিক্ষার্থীরা। সংবাদ সম্মেলন শেষে ক্যাম্পাসে বিক্ষোভ মিছিল বের করে শিক্ষার্থীরা। মিছিল শেষে বিশ^বিদ্যালয়ের প্রশাসন ভবনের সামনে অবস্থান কর্মসূচি পালন করে তারা। পরে বিশ^বিদ্যালয়ের উপাচার্যের সঙ্গে সাক্ষাৎ করে তাদের দাবি উপস্থাপন করেন। এ সময় শিক্ষার্থীদের উদ্দেশে ইসলামী বিশ^বিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. শেখ আব্দুস সালাম বলেন, শিক্ষার্থীদের হল খোলার দাবির সঙ্গে আমরা একমত থাকলেও শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের সিদ্ধান্তের বাইরে গিয়ে কিছু করতে পারব না। এ ছাড়া অন্যান্য বিশ^বিদ্যালয় যদি এ সময় পরীক্ষা নেয় তা হলে আমরাও পরীক্ষা চালু করব। তবে এ মুহূর্তে মন্ত্রণালয়ের নির্দেশনার বাইরে যেতে পারছি না।
কুমিল্লা বিশ^বিদ্যালয়ের চলমান সব চূড়ান্ত পরীক্ষা পরবর্তী নির্দেশ না দেওয়া পর্যন্ত স্থগিত করেছে কর্তৃপক্ষ। বিশ^বিদ্যালয়ের উপাচার্যের সঙ্গে ডিন এবং প্রভোস্টদের এক সভা শেষে রেজিস্ট্রার (অতিরিক্ত দায়িত্ব) অধ্যাপক ড. আবু তাহের বলেন, সরকারি নির্দেশনা এবং স্বাস্থ্য সুরক্ষার বিষয়টি বিবেচনা নিয়ে বিশ^বিদ্যালয়ের চলমান সব পরীক্ষা পরবর্তী নির্দেশ না দেওয়া পর্যন্ত স্থগিত করা হয়েছে।
সিলেটের শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ^বিদ্যালয়ে চলমান স্নাতক চতুর্থ বর্ষ ও স্নাতকোত্তরের পরীক্ষা স্থগিত করেছে কর্তৃপক্ষ। এতে চরম বিপাকে পড়েছেন বিশ^বিদ্যালয়টির শিক্ষার্থীরা। ১৭ জানুয়ারি থেকে এসব শ্রেণির পরীক্ষা শুরু হয়। ১৮ ফেব্রুয়ারির মধ্যে এসব পরীক্ষা শেষ হওয়ার কথা থাকলেও অধিকাংশ বিভাগ নির্ধারিত সময়ে তা শেষ করতে পারেনি। কিছু বিভাগের দুয়েকটি পরীক্ষা বাকি থাকায় ভোগান্তিতে পড়েছেন শিক্ষার্থীরা। এ প্রসঙ্গে বিশ^বিদ্যালয়ের কোষাধ্যক্ষ অধ্যাপক ড. মো. আনোয়ারুল ইসলাম বলেন, চলমান পরীক্ষা নেওয়ার বিষয়ে সরকারি সিদ্ধান্ত খুবই স্পষ্ট। আমরা পরিস্থিতি পর্যবেক্ষণ করছি। পরবর্তীতে সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে।
বরিশাল বিশ^বিদ্যালয়ের চলমান সব পরীক্ষা স্থগিত করা হয়েছে। বিশ^বিদ্যালয়ের উপপরীক্ষা নিয়ন্ত্রক সাজ্জাদ উল্লাহ ফয়সাল স্বাক্ষরিত এক নোটিসে পরবর্তী সিদ্ধান্ত না নেওয়া পর্যন্ত বিশ^বিদ্যালয়ের সব পরীক্ষা স্থগিত করা হয়েছে।
ময়মনসিংহের জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলাম বিশ^বিদ্যালয়ের বিভিন্ন বর্ষের চলমান পরীক্ষা পরবর্তী নির্দেশনা না পাওয়া পর্যন্ত স্থগিত করা হয়েছে। বিশ^বিদ্যালয়রের এক জরুরি অ্যাকাডেমিক সভায় এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। বিশ^বিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. এএইচএম মোস্তাফিজুর রহমানের সভাপতিত্বে ভার্চুয়ালি এই সভায় চলমান পরীক্ষার কারণে যেসব পরীক্ষার্থী ক্যাম্পাসের আশপাশে অবস্থান করছিল তাদের প্রতি সহমর্মিতা জানানো হয়। এ ছাড়া পূর্বের সিদ্ধান্ত অনুসারে চলমান অনলাইনে পাঠদান প্রক্রিয়া চলমান থাকবে। উল্লেখ্য, এর আগের স্বাস্থ্যবিধি মেনে বিশ^বিদ্যালয়ের অনার্স শেষ বর্ষ ও মাস্টার্সের পরীক্ষা নেওয়া হচ্ছিল।







সর্বশেষ সংবাদ

সর্বাধিক পঠিত


ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: কমলেশ রায়, নির্বাহী সম্পাদক : শাহনেওয়াজ দুলাল, আমিন মোহাম্মদ মিডিয়া কমিউনিকেশন লিমিটেড-এর পক্ষে
প্রকাশক গাজী আহমেদ উল্লাহ। নাসির ট্রেড সেন্টার, ৮৯, বীর উত্তম সি আর দত্ত সড়ক (সোনারগাঁও রোড), বাংলামোটর, ঢাকা।

ফোন : +৮৮-০২-৯৬৩২৩৬৮-৭৪, ফ্যাক্স : +৮৮-০২-৯৬৩২৩৭৫। ই-মেইল : [email protected]