ই-পেপার বিজ্ঞাপনের তালিকা মঙ্গলবার ৯ মার্চ ২০২১ ২৩ ফাল্গুন ১৪২৭
ই-পেপার মঙ্গলবার ৯ মার্চ ২০২১

যেসব আমলে গুনাহ মাফ হয়
প্রকাশ: বুধবার, ২৪ ফেব্রুয়ারি, ২০২১, ১০:৩১ পিএম | প্রিন্ট সংস্করণ  Count : 48

মুফতি আবুল কাসেম
পার্থিব এ ক্ষণস্থায়ী জীবনে শয়তানের প্ররোচনায় ইচ্ছা-অনিচ্ছায় মানুষের থেকে কত গুনাহই না হয়ে যায়! এর মধ্যে কিছু কবিরা গুনাহ, যা তওবা ছাড়া মাফ হয় না। আর কিছু সগিরা গুনাহ, যা আল্লাহ তায়ালা তওবা-ইস্তিগফার ছাড়া বান্দার কিছু নেক আমলের মাধ্যমে মাফ করে দেন। এমন কিছু আমল এখানে প্রদত্ত হলো।
উত্তমরূপে অজু করা : রাসুলুল্লাহ (সা.) বলেছেন, কোনো মুসলমান কিংবা মুমিন অজুর সময় যখন মুখমণ্ডল ধুয়ে ফেলে তখন তার চোখ দিয়ে অর্জিত গুনাহ পানির সঙ্গে অথবা (তিনি বলেছেন) পানির শেষ বিন্দুর সঙ্গে বের হয়ে যায় এবং যখন সে দুটি হাত ধৌত করে তখন তার দুহাতের স্পর্শের মাধ্যমে অর্জিত সব গুনাহ পানির অথবা পানির শেষ বিন্দুর সঙ্গে ঝড়ে যায়। অতঃপর যখন সে পা দুটি ধৌত করে, তখন তার দুপা দিয়ে হাঁটার মাধ্যমে অর্জিত সব গুনাহ পানির সঙ্গে অথবা পানির শেষ বিন্দুর সঙ্গে ঝড়ে যায়, এমনকি সে যাবতীয় গুনাহ থেকে মুক্ত ও পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন হয়ে যায়। (মুসলিম : ৪৬৫)
পাঁচ ওয়াক্ত নামাজ আদায় : যে ব্যক্তি যথাসময়ে পাঁচ ওয়াক্ত নামাজ আদায় করবে তার গুনাহ মাফের ব্যাপারে রাসুলুল্লাহ (সা.) হাদিস শরিফে চমৎকার একটি উদাহরণ তুলে ধরেছেন। আবু হুরায়রা (রা.) থেকে বর্ণিত, রাসুলুল্লাহ (সা.) একবার সাহাবাদের সম্বোধন করে বলেন, ‘তোমাদের কী মনে হয়? কারও বাড়ির পাশে যদি নদী থাকে আর সে তাতে প্রতিদিন পাঁচবার গোসল করে, তার শরীরে কি কোনো ময়লা থাকবে?’ সাহাবারা জবাবে বলেন, না, তার শরীরে কোনো ময়লা অবশিষ্ট থাকবে না। নবী (সা.) তখন বলেন, ‘পাঁচ ওয়াক্ত নামাজের দৃষ্টান্তও এরূপ। এর মাধ্যমে আল্লাহ (বান্দার) পাপসমূহ মিটিয়ে দেন।’ (মুসলিম : ১৪০৮)
ফজর ও মাগরিবের পর দোয়া : এক হাদিসে আল্লাহর রাসুল (সা.) বলেন, ‘যে ব্যক্তি ফজর ও মাগরিবের নামাজের পর ‘লা ইলাহা ইল্লাল্লাহু, ওয়াহদাহু লা শারিকালাহু, লাহুল মুলকু ওয়ালাহুল হামদু ওয়াহুয়া আলা কুল্লি শায়ইন কাদির’ ১০ বার পড়বে, এর বিনিময়ে তার আমলনামায় চারজন গোলাম আজাদ করার সওয়াব লেখা হবে, ১০টি নেকি লেখা হবে, ১০টি গুনাহ মাফ হবে, ১০টি মর্যাদা বৃদ্ধি পাবে এবং এ বাক্যগুলো সন্ধ্যা পর্যন্ত তার জন্য শয়তান থেকে হেফাজতের কারণ হবে। (মুসনাদে আহমাদ : ২৩৫১৮)
নামাজের জামাতে অংশ নেওয়া : জামাতের সঙ্গে নামাজ পড়লে প্রতি কদমের বিনিময়ে গুনাহ মাফ ও মর্যাদা বৃদ্ধির ঘোষণা এসেছে। আবু হুরায়রা (রা.) বলেন, রাসুলুল্লাহ (সা.) বলেছেন, ‘জামাতের নামাজ ঘরের বা বাজারের নামাজ অপেক্ষা ২৫ গুণ বেশি সওয়াব রাখে। কারণ বান্দা যখন উত্তমরূপে অজু করে এবং একমাত্র নামাজের উদ্দেশ্যেই ঘর থেকে বের হয় তো প্রতিটি কদমের বিনিময়ে আল্লাহ তার একটি করে মর্যাদা বৃদ্ধি করেন এবং একটি করে গুনাহ মিটিয়ে দেন।’ (বুখারি : ৪৭৭)
প্রতিদিন ১০০ বার সুবহানাল্লাহ পাঠ : একবার রাসুলুল্লাহ (সা.) সাহাবাদের বললেন, তোমাদের কেউ কি এক হাজার নেকি অর্জন করতে অক্ষম? উপস্থিতদের একজন প্রশ্ন করলেন, আমাদের একজন কীভাবে এক হাজার নেকি অর্জন করবে? তিনি বললেন, তোমাদের কেউ একশবার তাসবিহ (সুবহানাল্লাহ) পাঠ করলে তার আমলনামায় এক হাজার নেকি লিপিবদ্ধ করা হবে এবং তার এক হাজার অপরাধ ক্ষমা করা হবে। (তিরমিজি : ৩৪৬৩)

ষ মুহাদ্দিস, জামিয়া ইসলামিয়া হামিদিয়া বটগ্রাম
সদর দক্ষিণ, কুমিল্লা










সর্বশেষ সংবাদ

সর্বাধিক পঠিত


ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: কমলেশ রায়, নির্বাহী সম্পাদক : শাহনেওয়াজ দুলাল, আমিন মোহাম্মদ মিডিয়া কমিউনিকেশন লিমিটেড-এর পক্ষে
প্রকাশক গাজী আহমেদ উল্লাহ। নাসির ট্রেড সেন্টার, ৮৯, বীর উত্তম সি আর দত্ত সড়ক (সোনারগাঁও রোড), বাংলামোটর, ঢাকা।

ফোন : +৮৮-০২-৯৬৩২৩৬৮-৭৪, ফ্যাক্স : +৮৮-০২-৯৬৩২৩৭৫। ই-মেইল : [email protected]