ই-পেপার বিজ্ঞাপনের তালিকা মঙ্গলবার ৯ মার্চ ২০২১ ২৩ ফাল্গুন ১৪২৭
ই-পেপার মঙ্গলবার ৯ মার্চ ২০২১

ম্যাচ পাতানো সহ্য করবে না বাফুফে
প্রকাশ: বুধবার, ২৪ ফেব্রুয়ারি, ২০২১, ১০:৩৩ পিএম | প্রিন্ট সংস্করণ  Count : 22

ষ ক্রীড়া প্রতিবেদক
অনলাইন জুয়ার মাধ্যমে দেশের ফুটবলে পাতানো ম্যাচের অভিযোগ উঠেছে। বিষয়টা নিয়ে রীতিমতো তোলপাড় চলছে ফুটবল অঙ্গনে। অনেকেই অনেক কথা বলছেন। তবে চুপ করে ছিলেন বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশনের (বাফুফে) সভাপতি কাজী সালাউদ্দিন। এবার মুখ খুলেছেন তিনিও। স্পষ্ট ভাষায় জানিয়ে দিয়েছেন, ম্যাচ পাতানোর বিষয়টি সহ্য করবে না বাফুফে। এ বিষয়ে ‘জিরো টলারেন্স’ নীতিতেই এগুতে চান সংস্থার প্রধান কর্তাব্যক্তি।
ম্যাচ পাতানোর বিষয়ে অভিযোগের তীর দুটি ক্লাবের দিকে। বলা হচ্ছেÑ প্রিমিয়ার লিগে পাঁচটি ম্যাচ পাতানোর সঙ্গে জড়িত ব্রাদার্স ইউনিয়ন আর আরামবাগ ক্রীড়া সংঘ। খোদ এশিয়ান ফুটবল কনফেডারেশন (এএফসি) এমন সন্দেহ পোষণ করে বিষয়টা লিখিতভাবে বাফুফেকে জানিয়েছে। চিঠি দিয়ে তারা সবকিছু তদন্ত করার নির্দেশ দিয়েছে। সেই নির্দেশনা মেনে তদন্তে নেমেও পড়েছে বাফুফে। এরই মধ্যে দুটি ক্লাবের কাছে এ প্রসঙ্গে জানতে চাওয়া হয়েছে। তাদের থেকে জবাব পাওয়ার পরই পরবর্তী পদক্ষেপ নেবে বাফুফে। এমনটাই জানিয়েছেন সংস্থাটির সাধারণ সম্পাদক আবু নাইম সোহাগ।
যে পাঁচটি ম্যাচ নিয়ে অভিযোগ, এর মধ্যে আরামবাগের তিনটি ম্যাচ, ব্রাদার্সের দুটি। আরামবাগের ম্যাচগুলো মোহামেডান স্পোর্টিং, শেখ রাসেল ক্রীড়া চক্র আর আবাহনী লিমিটেডের বিপক্ষে। ব্রাদার্সের সন্দেহজনক ম্যাচ দুটি আবাহনী লিমিটেড আর বসুন্ধরা কিংসের বিপক্ষে। এই অভিযোগের বিষয়ে ক্লাব দুটোকে জবাব দিতে বলা হয়েছে। সোমবারই ব্রাদার্স তাদের জবাব দিয়ে দিয়েছে, মঙ্গলবার আরামবাগেরও দিয়ে দেওয়ার কথা, সেটা তারা দিয়েছে কি না, এই রিপোর্ট তৈরি করা পর্যন্ত তা জানা যায়নি। তবে এটা পরিষ্কার, আলোচিত এই বিষয়টি নিয়ে বাফুফে কঠোর অবস্থানেই আছে।
অনলাইন বেটিং কিংবা পাতানো ম্যাচের বিষয়ে কিছু প্রমাণিত হলে ক্লাবগুলোকে নিষিদ্ধ করার ঘোষণাও দেওয়া হয়েছে দেশের ফুটবলের সর্বোচ্চ নিয়ন্ত্রক সংস্থার তরফ থেকে। মঙ্গলবার কমলাপুরে বীরশ্রেষ্ঠ শহীদ সিপাহী মোস্তফা কামাল স্টেডিয়ামে প্রতিভা অন্বেষণ কর্মসূচি পর্যবেক্ষণ করতে গিয়ে সেখানে উপস্থিত সংবাদকর্মীদের কাজী সালাউদ্দিন বলেছেন, ‘বাফুফে তিনটা বিষয় সহ্য করবে নাÑ ম্যাচ ফিক্সিং, বর্ণবাদ ও ড্রাগস। এসব বিষয়ে জিরো টলারেন্স। আমরা যদি প্রমাণ করতে পারি এটা (ম্যাচ ফিক্সিং) হয়েছে, তাহলে নিষিদ্ধ হতে হবে।’
পাতানো ম্যাচের অভিযোগ বাংলাদেশের ফুটবলে নতুন কিছু নয়। প্রায় প্রতি মৌসুমেই কোনো না কোনো ম্যাচ সন্দেহ জাগায়। বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই বাফুফেকে নির্বিকার থাকতে দেখা যায়। এবার অভিযোগটা যখন এএফসির তরফ থেকে এসেছে, তখন আর নির্বিকার থাকার উপায় নেই। তবে অনলাইন বেটিং, বাফুফের কাছে এটা নতুনই। সংস্থাটির সাধারণ সম্পাদক আবু নাইম সোহাগ বলেছেন, ‘বিষয়টি আমাদের জন্য নতুন। আমাদের একটা ধারণা হয়েছে কীভাবে বেটিং হয়েছে বা হয়ে থাকে। ক্লাবগুলোর কাছ থেকে পাওয়া ব্যাখ্যাগুলো তাদের সময়মতো জানানো হবে। এএফসির সঙ্গে সমন্বয় করেই আমরা এগোব।’





সর্বশেষ সংবাদ

সর্বাধিক পঠিত


ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: কমলেশ রায়, নির্বাহী সম্পাদক : শাহনেওয়াজ দুলাল, আমিন মোহাম্মদ মিডিয়া কমিউনিকেশন লিমিটেড-এর পক্ষে
প্রকাশক গাজী আহমেদ উল্লাহ। নাসির ট্রেড সেন্টার, ৮৯, বীর উত্তম সি আর দত্ত সড়ক (সোনারগাঁও রোড), বাংলামোটর, ঢাকা।

ফোন : +৮৮-০২-৯৬৩২৩৬৮-৭৪, ফ্যাক্স : +৮৮-০২-৯৬৩২৩৭৫। ই-মেইল : [email protected]