ই-পেপার বিজ্ঞাপনের তালিকা মঙ্গলবার ২০ এপ্রিল ২০২১ ৬ বৈশাখ ১৪২৮
ই-পেপার মঙ্গলবার ২০ এপ্রিল ২০২১

পরীক্ষা গ্রহণের অনুমতি চেয়ে মন্ত্রণালয়ে চবির চিঠি, আন্দোলন স্থগিত
চবি প্রতিনিধি
প্রকাশ: বৃহস্পতিবার, ২৫ ফেব্রুয়ারি, ২০২১, ৫:৫৪ পিএম আপডেট: ২৫.০২.২০২১ ৫:৫৬ পিএম | অনলাইন সংস্করণ  Count : 124

শিক্ষার্থীদের আর্থিক ও মানসিক দিক বিবেচনায় চলমান পরীক্ষা গ্রহণের অনুমতি চেয়ে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ে চিঠি দিয়েছে চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় (চবি) ছাত্র-ছাত্রী পরামর্শ কেন্দ্র। বৃহস্পতিবার (২৫ ফেব্রুয়ারি) ছাত্র উপদেষ্টা অধ্যাপক সিরাজ উদ দ্দৌল্লাহ স্বাক্ষরিত চিঠিটি প্রেরণ করা হয়।

এতে বলা হয়, করোনা স্বাস্থ্যবিধি মেনে শিক্ষাজট কমাতে স্থগিত পরীক্ষা গ্রহণ করে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ। আবাসিক হলে থাকার অনুমতি না পাওয়ায় শিক্ষার্থীরা দেশের বিভিন্ন অঞ্চল থেকে এসে ধারদেনা করে মেসভাড়া করে। কিন্তু শিক্ষামন্ত্রীর আদেশের পর চলমান পরীক্ষা আবার স্থগিত ঘোষণা করা হয়। ফলে শিক্ষার্থীরা আর্থিক ও মানসিকভাবে বিপর্যস্ত হয়ে পড়েছে। এমতাবস্থায় অসমাপ্ত পরীক্ষা গ্রহণে শিক্ষামন্ত্রীর সহযোগিতা কামনা করেন।

অপরদিকে, একইদিন সকালে চবি ডিনস কমিটির সভা শেষে অনির্দিষ্টকালের জন্য নির্ধারিত পরীক্ষা স্থগিতের বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করে কর্তৃপক্ষ। যার প্রতিবাদে পরীক্ষা গ্রহণের দাবিতে আন্দোলনে নামে বিভিন্ন বিভাগের শিক্ষার্থীরা। এদিন দুপুরে শহীদ মিনারের সামনে থেকে বিক্ষোভ শুরু করে প্রশাসনিক ভবনের সামনে অবস্থান নেয় তারা। পরবর্তীতে আগামী সোমবারের মধ্যে প্রশাসনের নতুন সিদ্ধান্ত প্রদানের আশ্বাসে আন্দোলন স্থগিত করা হয়।

এসময় শিক্ষার্থীরা বলেন, হল না খুলে পরীক্ষা গ্রহণের সিদ্ধান্ত ভুল ছিল৷ কিন্তু আমরা পরীক্ষা দেয়াকে অগ্রাধিকার দিয়ে বাড়তি টাকা দিয়ে কয়েক মাসের জন্য মেসভাড়া করি। এখন হঠাৎ করে পরীক্ষা স্থগিতের আদেশে আমরা মানসিকভাবে ভেঙে পড়েছি। বিশ্ববিদ্যালয় একটি স্বায়ত্তশাসিত প্রতিষ্ঠান। বিশ্ববিদ্যালয় বিভিন্ন ইস্যুতে স্বাধীন মত পোষণ করার এখতিয়ার রাখে। সুতরাং শিক্ষার্থীদের বিষয়টি মাথায় রেখে পরীক্ষা নেওয়ার ব্যাপারে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ ইতিবাচক মত পোষণ করলে শিক্ষার্থীদের শিক্ষাজীবন ক্ষতিগ্রস্ত হবে না।

এব্যাপারে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর ড. রবিউল হাসান ভূঁইয়া বলেন, যেহেতু বর্তমানে সরকারি একটি সিদ্ধান্ত এসেছে, তাই বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ সিদ্ধান্তটি বাস্তবায়ন করছে। শিক্ষার্থীদের অবস্থা বিবেচনা করে আমরা পুনরায় একাডেমিক কাউন্সিলে বসব। আশাকরি আগামী সোমবারের মধ্যে একটা সিদ্ধান্তে পৌঁছাব।

আন্দোলনরত শিক্ষার্থীকে ছাত্রলীগ কর্মীর মারধর
পরীক্ষা গ্রহণের দাবিতে আন্দোলনরত এক শিক্ষার্থীকে শাখা ছাত্রলীগ কর্মীর মারধরের অভিযোগ উঠেছে। মারধরের শিকার ইংরেজি বিভাগের শিক্ষার্থী শাহ মোহাম্মদ শিহাব জানান, প্রক্টর অফিসে স্মারকলিপি দিতে গেলে আমাদের সাথে কয়েকজনের বাকবিতণ্ডা তৈরি হয়। এসময় একজন আমাকে পেছন থেকে আঘাত করে। বিষয়টা প্রক্টর দেখবেন বলেছেন।

এ ঘটনায় অভিযুক্ত মুজাহিদ চৌধুরী সংস্কৃত বিভাগের ২০১৫-১৬ শিক্ষাবর্ষের শিক্ষার্থী। সে শাখা ছাত্রলীগের কর্মী হিসেবে ক্যাম্পাসে পরিচিত। তিনি বলেন, সেখানে মারধরের কোনও ঘটনা ঘটেনি। বাকবিতণ্ডা তৈরি হলে আমি নিয়ন্ত্রণ করার চেষ্টা করি।

এব্যাপারে প্রক্টর বলেন, আমরা ছাত্রদের সাথে কথা বলার সময় পাশেই এঘটনা ঘটে। আমরা অভিযুক্তকে শনাক্ত করেছি, তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।




সর্বশেষ সংবাদ

সর্বাধিক পঠিত


ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: কমলেশ রায়, নির্বাহী সম্পাদক: হারুন উর রশীদ, আমিন মোহাম্মদ মিডিয়া কমিউনিকেশন লিমিটেড
এর পক্ষে প্রকাশক গাজী আহমেদ উল্লাহ
নাসির ট্রেড সেন্টার, ৮৯, বীর উত্তম সি আর দত্ত সড়ক (সোনারগাঁও রোড), বাংলামোটর, ঢাকা।

ফোন : +৮৮-০২-৯৬৩২৩৬৮-৭৪, ফ্যাক্স : +৮৮-০২-৯৬৩২৩৭৫। ই-মেইল : [email protected]