ই-পেপার বিজ্ঞাপনের তালিকা মঙ্গলবার ২০ এপ্রিল ২০২১ ৬ বৈশাখ ১৪২৮
ই-পেপার মঙ্গলবার ২০ এপ্রিল ২০২১

প্রথম লেগ ম্যানসিটি-রিয়ালের
ক্রীড়া ডেস্ক
প্রকাশ: শুক্রবার, ২৬ ফেব্রুয়ারি, ২০২১, ৯:৫৯ পিএম | প্রিন্ট সংস্করণ  Count : 23

চ্যাম্পিয়ন্স লিগে কোয়ার্টার ফাইনাল নিশ্চিতের লড়াইয়ে প্রথম ধাপটা জয়ে পার ম্যানচেস্টার সিটি আর রিয়াল মাদ্রিদ। বুদাপেস্টের পুস্কাস অ্যারেনায় বরুসিয়া ম’গøাডবাখের বিপক্ষে শেষ ষোলোর প্রথম লেগে হেসেখেলেই জিতেছে পেপ গার্দিওলার দল। প্রিমিয়ার লিগে শিরোপা পুনরুদ্ধারের মিশনে শীর্ষে থাকা সিটিজেনদের জয়ের ব্যবধান ছিল ২-০। বুধবার একই রাতে ঘাম ঝরানো জয় পেয়েছে রিয়াল। আটালান্টার মাঠে শেষ মুহূর্তের গোলে ১-০ ব্যবধানে জিতেছে জিনেদিন জিদানের দল।
রিয়ালের বিপক্ষে নিজেদের আঙিনায় শুরুতেই বড় ধাক্কা খায় আটালান্টা। সপ্তদশ মিনিটে রেমো ফ্রয়লার ফাউল করে সরাসরি লাল কার্ড দেখলে ১০ জনের দলে পরিণত হয় ইতালিয়ানরা। একজন কম নিয়েও চোটজর্জর অতিথিদের বিপক্ষে দারুণ লড়াই উপহার দেয় স্বাগতিকরা এবং আটকে রাখে রিয়ালকে। কিন্তু শেষ রক্ষা হয়নি। জিদানের দল এগিয়ে যাওয়ার সুযোগ পেয়েছিল ৩০ মিনিটের মাথায়। তবে ইসকোর শট অল্পের জন্য লক্ষ্যভ্রষ্ট হলে সেটা সম্ভব হয়নি।
দ্বিতীয়ার্ধের শুরু থেকে আটালান্টাকে চেপে ধরে রিয়াল। ৪৭ মিনিটে লুকা মদ্রিচের বুলেট গতির শট একজনের গায়ে লেগে পোস্ট ঘেঁষে বেরিয়ে যায়। ৫৩ মিনিটে ভিনিসিউস জুনিয়র ৭ গজ দূর থেকে বল জালে পাঠাতে পারেননি। কোনোমতেই সিরি’আর দলটির জমাট রক্ষণ ভাঙতে পারছিল না রিয়াল। শেষ পর্যন্ত ৮৬ মিনিটে ডি-বক্সের বাইরে থেকে বাঁকানো শটে অতিথিদের এগিয়ে নেন মেন্ডি। এই লিড আগলে রেখেই স্বস্তির জয় নিয়ে মাঠ ছাড়ে রিয়াল।
১০ জনের দলের বিপক্ষেও ঘাম ঝরানো জয়ে স্পষ্ট যে রিয়াল ছিল না সেরা ছন্দে। তবে এসব নিয়ে
মাথাব্যথা নেই জিদানের। দল জয় নিয়ে ফিরেছেÑ এটাই মুখ্য বিষয় ফরাসি কিংবদন্তির কাছে, ‘আমরা ভালো খেলতে পারিনি। তবে সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ বিষয় হলো জয়। মাঠে আমরা পর্যাপ্ত জায়গা খুঁজে পাইনি। ১০ জনের একটা দলের বিপক্ষে পর্যাপ্ত জায়গা না পেয়ে খেলা কঠিন। তবে আমাদের জন্য গোল পাওয়াটাই গুরুত্বপূর্ণ ছিল। বিশেষ করে অ্যাওয়ে গোল।’
অন্যদিকে ম্যানসিটির জয়ের নায়ক ছিলেন বের্নার্দো সিলভা এবং গ্যাব্রিয়েল জেসুস। দুই অর্ধে দুই তারকার দুই গোলে ম’গøাডবাখের মাঠ থেকে জয় নিয়ে ফিরেছে সিটিজেনরা। করোনা আতঙ্কে হোম ম্যাচ নিরপেক্ষ ভেন্যুতে খেলতে নেমে সুবিধা করতে পারেনি ম’গøাডবাখ। অতিথিরা প্রথম গোলের দেখা পায় ২৯ মিনিটের মাথায়। জোয়াও কানসেলোর দারুণ ক্রসে ছয় গজ বক্সের মুখে হেডে ঠিকানা খুঁজে নেন সিলভা। চ্যাম্পিয়ন্স লিগে ১৩ ম্যাচ পর জালের দেখা পেলেন এই পর্তুগিজ মিডফিল্ডার।
৪৩ বছর পর ইউরোপ সেরার প্রতিযোগিতার নকআউট পর্বে খেলা ম’গøাডবাখ ম্যাচ জুড়ে মাত্র একবার প্রতিপক্ষের লক্ষ্য বরাবর শট নিতে পারে। বিপরীতে আক্রমণের পসরা সাজায় ম্যানসিটি। ৬২ মিনিটে সতীর্থের ক্রসে ডি-বক্সে আলেসান প্লার ব্যাকহিল ফ্লিকে পোস্টের সামান্য বাইরে দিয়ে যায় বল। তিন মিনিট পরই ব্যবধান দ্বিগুণ করে ম্যানসিটি। এই গোলেও বড় অবদান কানসেলোর। তার ক্রস দূরের পোস্টে পেয়ে হেডে ছয় গজ বক্সে বাড়ান সিলভা। বাকিটা সারেন ব্রাজিলিয়ান ফরোয়ার্ড জেসুস।




সর্বশেষ সংবাদ

সর্বাধিক পঠিত


ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: কমলেশ রায়, নির্বাহী সম্পাদক: হারুন উর রশীদ, আমিন মোহাম্মদ মিডিয়া কমিউনিকেশন লিমিটেড
এর পক্ষে প্রকাশক গাজী আহমেদ উল্লাহ
নাসির ট্রেড সেন্টার, ৮৯, বীর উত্তম সি আর দত্ত সড়ক (সোনারগাঁও রোড), বাংলামোটর, ঢাকা।

ফোন : +৮৮-০২-৯৬৩২৩৬৮-৭৪, ফ্যাক্স : +৮৮-০২-৯৬৩২৩৭৫। ই-মেইল : [email protected]