ই-পেপার বিজ্ঞাপনের তালিকা সোমবার ১৯ এপ্রিল ২০২১ ৫ বৈশাখ ১৪২৮
ই-পেপার সোমবার ১৯ এপ্রিল ২০২১

সেচ লাইসেন্স প্রদানে অনিয়মের অভিযোগ
প্রকাশ: মঙ্গলবার, ৯ মার্চ, ২০২১, ৯:৫২ পিএম | প্রিন্ট সংস্করণ  Count : 33

ষ তাড়াশ (সিরাজগঞ্জ) প্রতিনিধি
সিরাজগঞ্জের তাড়াশে বিএডিসি সেচ কমিটি সমন্বিত ক্ষুদ্র সেচ নীতিমালা-২০১৭-এর নীতিমালা লঙ্ঘন করে অগভীর নলকূপের লাইসেন্স দেওয়ার অভিযোগ পাওয়া গেছে। উপজেলার সগুনা ইউনিয়নের পতিরামপুর গ্রামের ইব্রাহিম হোসেন নামে এক কৃষকের আবেদনের অনুকূলে ইব্রাহীম হোসেনের অগভীর নলকূপে বিদ্যুৎ সংযোগ না দেওয়ার জন্য সিরাজগঞ্জ পল্লীবিদ্যুৎ সমিতি-১ তাড়াশ জোনাল অফিসের ডেপুটি জেনারেল ম্যানেজার মুহাম্মদ আশরাফ উদ্দিন খান বরাবর লিখিত অভিযোগ  করেছেন দুইজন ভুক্তভোগী। তারা হলেন একই গ্রামের কৃষক মাহাতাব উদ্দিন ও পতিরামপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক রফিকুল ইসলাম।
অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, কৃষক ইব্রাহিম হোসেনকে যে জমিতে সেচ লাইসেন্স দেওয়া হয়েছে সেই জমিটি তার নিজের নয়। ওই জমির মালিক গুরুদাসপুর উপজেলার নিমাইচন্দ্র নামে এক ব্যক্তি। মূলত ইব্রাহিম হোসেন নিমাইচন্দ্রের জমি বর্গাচাষ করে খান। তা ছাড়া ইব্রাহিম হোসেনের লাইসেন্স সীমানার ৩০০ ফুটের মধ্যে অভিযোগকারী মাহাতাব উদ্দিনের পিতা মৃত আবু ছাইদ ও পতিরামপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক রফিকুল ইসলামের বিএডিসি সেচ কমিটির দেওয়া দুইটি অগভীর নলকূপ চলমান রয়েছে।
সিরাজগঞ্জ পল্লীবিদ্যুৎ সমিতি-১ তাড়াশ জোনাল অফিসের ডেপুটি জেনারেল ম্যানেজার মুহাম্মদ আশরাফ উদ্দিন খান বলেন, অভিযোগ পাওয়ার পর বিদ্যুৎ সংযোগ দেওয়া বন্ধ রাখা হয়েছে। তদন্ত করে নীতিমালা অনুযায়ী প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে।
উপজেলা বিএডিসির উপসহকারী প্রকৌশলী ও উপজেলা সেচ কমিটির সদস্য সচিব মো. ইমাম হোসেন বলেন, অভিযোগের তদন্ত করা হবে।
উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও উপজেলা সেচ কমিটির সভাপতি মো. মেজবাউল করিম বলেন, ইব্রাহিম হোসেনকে লাইসেন্সটি দেওয়া হয়েছে তিনি যোগদানের আগে। সমন্বিত ক্ষুদ্র সেচ নীতিমালা অনুযায়ী প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নেওয়া হবে।






সর্বশেষ সংবাদ

সর্বাধিক পঠিত


ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: কমলেশ রায়, নির্বাহী সম্পাদক: হারুন উর রশীদ, আমিন মোহাম্মদ মিডিয়া কমিউনিকেশন লিমিটেড
এর পক্ষে প্রকাশক গাজী আহমেদ উল্লাহ
নাসির ট্রেড সেন্টার, ৮৯, বীর উত্তম সি আর দত্ত সড়ক (সোনারগাঁও রোড), বাংলামোটর, ঢাকা।

ফোন : +৮৮-০২-৯৬৩২৩৬৮-৭৪, ফ্যাক্স : +৮৮-০২-৯৬৩২৩৭৫। ই-মেইল : [email protected]