ই-পেপার বিজ্ঞাপনের তালিকা সোমবার ১৯ এপ্রিল ২০২১ ৫ বৈশাখ ১৪২৮
ই-পেপার সোমবার ১৯ এপ্রিল ২০২১

নারী নেতৃত্ব ও জেন্ডার সমতা নিশ্চিতের আহ্বান টিআইবির
নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশ: মঙ্গলবার, ৯ মার্চ, ২০২১, ১০:৩৩ পিএম আপডেট: ০৮.০৩.২০২১ ১০:৫৭ পিএম | প্রিন্ট সংস্করণ  Count : 32

টেকসই উন্নয়ন ও সুশাসন নিশ্চিতে নারীর ক্ষমতায়ন, জেন্ডার সমতা এবং সব ক্ষেত্রে নারীর নেতৃত্ব দেওয়ার মতো অনুকূল পরিবেশ নিশ্চিতের আহ্বান জানিয়েছে ট্রান্সপারেন্সি ইন্টারন্যাশনাল বাংলাদেশ (টিআইবি)। সোমবার আন্তর্জাতিক নারী দিবস উপলক্ষে এ আহ্বান জানায় সংস্থাটি। ‘টেকসই উন্নয়ন ও সুশাসন : নেতৃত্বে নারী ও সমতা’ প্রতিপাদ্যে স্থানীয় ও জাতীয় পর্যায়ে নানা কর্মসূচির মধ্য দিয়ে দিবসটি উদযাপন করেছে টিআইবি।
ইতোমধ্যে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের সহযোগিতায় জাতীয় পর্যায়ে দেশের ২৪টি উপজেলার নারী নির্বাহী কর্মকর্তাদের অংশগ্রহণে একই প্রতিপাদ্যে দুই দিনব্যাপী একটি প্রশিক্ষণ কর্মশালার আয়োজন করা হয়েছে বলে এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানায় টিআইবি। এতে বলা হয়, স্থানীয় পর্যায়ে টিআইবির অনুপ্রেরণায় ৪৫টি অঞ্চলে গঠিত সচেতন নাগরিক কমিটি (সনাক) এবং ঢাকা ও সনাকভিত্তিক ইয়ুথ এনগেজমেন্ট অ্যান্ড সাপোর্ট (ইয়েস) গ্রুপের সদস্যদের অংশগ্রহণে অনলাইনে আলোচনা সভা, কুইজ প্রতিযোগিতা, কনটেন্ট রাইটিং প্রতিযোগিতাসহ নানা ধরনের কর্মসূচি গ্রহণ করা হয়েছে।
দিবসটি উপলক্ষে দেওয়া সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে টিআইবির নির্বাহী পরিচালক ড. ইফতেখারুজ্জামান বলেন, বাংলাদেশের মোট জনসংখ্যার প্রায় অর্ধেক নারী। তাই নারীদের সক্রিয় অংশগ্রহণ ছাড়া টেকসই উন্নয়ন যেমন অসম্ভব, তেমনি নেতৃত্বে নারীর কার্যকর অংশগ্রহণ ছাড়া জেন্ডার সমতা ও সুশাসন নিশ্চিত করাও সম্ভব নয়। জেন্ডার অসমতা ও দুর্নীতি পরস্পর সম্পর্কিত। জেন্ডার অসমতা সুশাসন, টেকসই উন্নয়ন এবং দারিদ্র্য বিমোচনকে বাধাগ্রস্ত করে। বিভিন্ন গবেষণায়ও দেখা গেছে, দুর্নীতির কারণে নারীর ক্ষমতায়ন ব্যাহত হয়। যেসব দেশে জেন্ডার সমতা ও নারীর ক্ষময়তায়ন সাফল্যজনক, সেসব দেশ দুর্নীতি প্রতিরোধ করে সুশাসন প্রতিষ্ঠায় সাফল্য পেয়েছে। বাংলাদেশের প্রেক্ষাপটেও সুশাসনের অভাব ও দুর্নীতির কারণে নারীর ক্ষমতায়ন কাক্সিক্ষত মাত্রায় অর্জন ব্যাহত হচ্ছে। আবার দুর্নীতির কারণে পুরুষের তুলনায় নারীর ঝুঁকি বেশি। টিআইবি পরিচালিত জাতীয় খানা জরিপ-২০১৭-এর তথ্য মতে, সেবাগ্রহণকারী হিসেবে ৩১ দশমিক ৮ শতাংশ নারী দুর্নীতির শিকার হয়েছে। এ ছাড়া আরেকটি গবেষণায় দেখা যায়, নারীর ওপর সুশাসনের ঘাটতি ও দুর্নীতির বহুমুখী প্রভাব রয়েছে। নারী যেমন দুর্নীতির শিকার হয়, তেমনি নারী দুর্নীতির মাধ্যম ও সংঘটক হিসেবেও ব্যবহৃত হচ্ছে। এমন বাস্তবতায় দুর্নীতির কার্যকর প্রতিরোধে নারীর ক্ষমতায়ন ও সুশাসন নিশ্চিত করতে হবে।
প্রসঙ্গত, সুশাসন ও নারীর ক্ষমতায়ন নিশ্চিত করে টেকসই উন্নয়ন অর্জনে করণীয় হিসেবে আন্তর্জাতিক নারী দিবস-২০২১ উপলক্ষে টিআইবি ৮ দফা দাবি উত্থাপন করেছে। এর মধ্যে উল্লেখযোগ্য হচ্ছে : কোভিড-১৯ সঙ্কটকালে উপার্জনমূলক কর্মকাণ্ড, শিক্ষা, স্বাস্থ্যসেবা, ন্যায়বিচার লাভ ও সিদ্ধান্ত গ্রহণ প্রক্রিয়ায় নারীর অংশগ্রহণ ও নেতৃত্ব নিশ্চিতে যথাযথ ও সুনির্দিষ্ট পদক্ষেপ গ্রহণ করতে হবে। নারীদের জন্য অগ্রাধিকারভিত্তিতে সুযোগ তৈরি করতে হবে। বিশেষ করে জেন্ডার সমতা প্রতিষ্ঠায় অন্যতম প্রতিবন্ধক দুর্নীতি নিয়ন্ত্রণে রাষ্ট্র পরিচালনার সব ক্ষেত্রে শুদ্ধাচার ও দুর্নীতি প্রতিরোধকে মূলধারাভুক্ত করতে হবে।






সর্বশেষ সংবাদ

সর্বাধিক পঠিত


ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: কমলেশ রায়, নির্বাহী সম্পাদক: হারুন উর রশীদ, আমিন মোহাম্মদ মিডিয়া কমিউনিকেশন লিমিটেড
এর পক্ষে প্রকাশক গাজী আহমেদ উল্লাহ
নাসির ট্রেড সেন্টার, ৮৯, বীর উত্তম সি আর দত্ত সড়ক (সোনারগাঁও রোড), বাংলামোটর, ঢাকা।

ফোন : +৮৮-০২-৯৬৩২৩৬৮-৭৪, ফ্যাক্স : +৮৮-০২-৯৬৩২৩৭৫। ই-মেইল : [email protected]