ই-পেপার বিজ্ঞাপনের তালিকা বৃহস্পতিবার ১৭ জুন ২০২১ ৩ আষাঢ় ১৪২৮
ই-পেপার বৃহস্পতিবার ১৭ জুন ২০২১

অবশেষে মিরপুরে গায়েবি কান্নার রহস্য উন্মোচন, আটক ১
নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশ: শনিবার, ৮ মে, ২০২১, ১০:৪৮ পিএম আপডেট: ০৮.০৫.২০২১ ১:১৯ এএম | প্রিন্ট সংস্করণ  Count : 353

দীর্ঘদিন ধরে গায়েবি কান্নার শব্দ শুনতে পাচ্ছিল এলাকাবাসী। তবে কান্নার উৎস খুঁজে পাচ্ছিল না কেউ। এমন ঘটনা প্রায়ই ঘটছিল রাজধানীর মিরপুর দুই নম্বর সেকশনে। সম্প্রতি বাংলাদেশ পুলিশের ফেসবুক পেজে এ বিষয়ে একটি অভিযাগ জানান স্থানীয় একজন। এরপর সেই অভিযোগের তদন্ত করতে গিয়ে বেরিয়ে আসে আসল ঘটনা। উন্মোচিত হয় রহস্য। এ ঘটনায় বৃহস্পতিবার রাতে নিজের স্ত্রী ও বাচ্চাদের নির্যাতনকারী এক ব্যক্তিকে আটক করেছে মিরপুর থানা পুলিশ। ওই ব্যক্তির নাম মো. জাহাঙ্গীর। তিনি দুই শিশু ও স্ত্রী নিয়ে বসবাস করছিলেন। তার গ্রামের বাড়ি ভোলা জেলার চরফ্যাশনে। ঢাকায় থাকার জায়গা না পেয়ে গোপনেই পরিত্যক্ত এই নির্মাণাধীন ভবনে থাকতেন।
পুলিশ সদর দফতরের এআইজি (মি‌ডিয়া অ্যান্ড পাব‌লিক রি‌লেশন্স) মো. সো‌হেল রানা জানান, মিরপুর থেকে ম্যাসেজে জানানো হলো একটি নির্মাণাধীন আবাসিক প্রকল্প এলাকা থেকে রাতের বেলা প্রায়ই গায়েবি কান্নার শব্দ আসে। কয়েকদিন চেষ্টা করেও কেউ কান্নার উৎস জানতে পারেননি। পরে এক ব্যক্তি পু‌লি‌শ প‌রিচা‌লিত ‘বাংলা‌দেশ পু‌লি‌শ’ ফেসবুক পে‌জে ইনবক্স করেন।
এই পরিপ্রেক্ষিতে মিরপুর থানার ওসির নেতৃত্বে সাদা পোশাকের একটি দল ওই নির্মাণাধীন প্রকল্পে যায়। প্রথমদিন কিছু না পেয়ে পরেরদিন আবার যায়। সেদিনও কান্নার উৎস বিষয়ে নিশ্চিত হতে পারেনি। তৃতীয় দিন তারা দেখতে পায়, একটি নির্মাণাধীন হাউজিং কমপ্লেক্সের ভেতরে পরিত্যক্ত একটি বিল্ডিংয়ে এক ব্যক্তি তার স্ত্রী ও শিশু সন্তানদের নিয়ে থাকেন। প্রতিদিন রাতে তিনি তার সন্তানদের হাত-পা বেঁধে মারপিট করতেন। সেই চিৎকার শোনা যেত দূর থেকে। এ ছাড়া স্ত্রীকেও নানা সময় নির্যাতন করতেন। স্ত্রী ও শিশুদের অভিযোগের ভি‌ত্তিতে ওই নির্যাতনকারী ‌ব্যক্তিকে আটক ক‌রে‌ পু‌লিশ। পুলিশ জানায়, আটক জাহাঙ্গীরের বিরুদ্ধে একটি মামলা হচ্ছে।





সর্বশেষ সংবাদ

সর্বাধিক পঠিত


ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: কমলেশ রায়, আমিন মোহাম্মদ মিডিয়া কমিউনিকেশন লিমিটেড
এর পক্ষে প্রকাশক গাজী আহমেদ উল্লাহ
নাসির ট্রেড সেন্টার, ৮৯, বীর উত্তম সি আর দত্ত সড়ক (সোনারগাঁও রোড), বাংলামোটর, ঢাকা।

ফোন : +৮৮-০২-৯৬৩২৩৬৮-৭৪, ফ্যাক্স : +৮৮-০২-৯৬৩২৩৭৫। ই-মেইল : [email protected]