ই-পেপার বিজ্ঞাপনের তালিকা বৃহস্পতিবার ১৭ জুন ২০২১ ৩ আষাঢ় ১৪২৮
ই-পেপার বৃহস্পতিবার ১৭ জুন ২০২১

সরবরাহ সীমিত, শিশুদের এখনই টিকা নয়: ডব্লিউএইচও
সময়ের আলো অনলাইন
প্রকাশ: শুক্রবার, ৪ জুন, ২০২১, ৬:৪৬ পিএম | অনলাইন সংস্করণ  Count : 56

বিশ্বজুড়ে টিকা সরবরাহ সীমিত হওয়ার কারণে এখনই শিশুদেরকে করোনার টিকা প্রয়োগের ক্ষেত্রে প্রাধান্য না দেওয়ার আহ্বান জানিয়েছেন বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (ডব্লিউএইচও)। 

বৃহস্পতিবার (৩ জুন) সংস্থাটির একজন শীর্ষ টিকা বিশেষজ্ঞ ডব্লিউএইচও-এর পক্ষে এ আহ্বান জানান। তিনি বলেন, ঘাটতি থাকায় শিশুদের টিকা দেওয়াটাকে অগ্রাধিকার বলে বিবেচনা করা হচ্ছে না।

উন্নত দেশগুলোর একাংশ এরইমধ্যে কমবয়সী ও শিশুদের জন্য কোভিড টিকার জরুরি ব্যবহারের অনুমোদন দিতে শুরু করেছে। বৃহস্পতিবার এক অনুষ্ঠানে টিকা বিশেষজ্ঞ ডা. কাতে ও’ব্রেইন বলেন, কোভিড টিকাদান কর্মসূচিতে এখনই শিশুদের প্রতি বেশি মনোযোগী হওয়া উচিত হবে না।

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার টিকা বিভাগের পরিচালক ও শিশু বিশেষজ্ঞ ডা. ও’ব্রেইন ওই বৈঠকে বলেন, প্রকৃতপক্ষে করোনায় আক্রান্ত হওয়ার খুবই কম ঝুঁকিতে শিশুরা। তাদেরকে টিকা দেওয়ার মানে, তাদের বাবা-মাকে মৃত্যুর হাত থেকে বাঁচানোর পরিবর্তে সংক্রমণ ঠেকানো। 

‘এই মুহূর্তে আমরা যখন কঠিন এক পরিস্থিতির মধ্যে রয়েছি, যেখানে বিশ্বের সব মানুষের জন্য টিকার সরবরাহ কম। সেখানে এমন এক পরিস্থিতিতে শিশুদেরকে করোনা টিকা দেওয়ার বিষয়টিতে আমাদের সর্বোচ্চ অগ্রাধিকার দেওয়াটা উচিত হবে না।’

জাতিসংঘের স্বাস্থ্য বিষয়ক অঙ্গসংস্থাটির টিকা প্রধান ও’ব্রেইন আরও বলেন, প্রবীণ, স্বাস্থ্যকর্মী ও ঝুঁকিতে থাকা মানুষকেই টিকা দেওয়ার বিষয়টি যখন এক সংকটের মধ্যে রয়েছে তখন তাদের জন্য সবার আগে টিকা নিশ্চিত করার পরই শিশুদের টিকা দিতে হবে।

প্রাপ্তবয়স্কদের টিকা দেওয়ার যে লক্ষ্যমাত্রা তার কাছাকাছি পৌঁছে যাওয়ার কারণে কানাডা, যুক্তরাষ্ট্র ও ইউরোপীয় ইউনিয়ন বেশি কিছু করোনার টিকা ১২ থেকে ১৫ বছর বয়সীদের জন্য ব্যবহারের অনুমোদন দিয়েছে। ফ্রান্স ও ইতালিও শিশুদের টিকা দেওয়া শুরু করেছে। 
/বিএ/




সর্বশেষ সংবাদ

সর্বাধিক পঠিত


ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: কমলেশ রায়, আমিন মোহাম্মদ মিডিয়া কমিউনিকেশন লিমিটেড
এর পক্ষে প্রকাশক গাজী আহমেদ উল্লাহ
নাসির ট্রেড সেন্টার, ৮৯, বীর উত্তম সি আর দত্ত সড়ক (সোনারগাঁও রোড), বাংলামোটর, ঢাকা।

ফোন : +৮৮-০২-৯৬৩২৩৬৮-৭৪, ফ্যাক্স : +৮৮-০২-৯৬৩২৩৭৫। ই-মেইল : [email protected]