ই-পেপার বিজ্ঞাপনের তালিকা শুক্রবার ৩০ জুলাই ২০২১ ১৫ শ্রাবণ ১৪২৮
ই-পেপার শুক্রবার ৩০ জুলাই ২০২১
http://www.shomoyeralo.com/ad/amg-728x90.jpg

রূপগঞ্জে যুবককে মাথা থেঁতলে ও কুপিয়ে হত্যা
প্রকাশ: বৃহস্পতিবার, ১৭ জুন, ২০২১, ১১:৫৮ পিএম আপডেট: ১৭.০৬.২০২১ ১২:১৭ এএম | প্রিন্ট সংস্করণ  Count : 17

ষ রূপগঞ্জ (নারায়ণগঞ্জ) প্রতিনিধি
নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জে সোলাইমান নামে এক যুবককে প্রকাশ্যে ইট দিয়ে মাথা থেঁতলে ও কুপিয়ে হত্যা করা হয়েছে। এ সময় মসজিদের মাইকে ডাকাত আতঙ্ক ছড়িয়ে লোক জড়ো করা হয়। স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যানের সঙ্গে দ্বন্দ্বের জেরে এই হত্যাকাণ্ড বলে দাবি পরিবারের। প্রকাশ্যে এমন হত্যাকাণ্ডের ঘটনাকে কেন্দ্র করে এলাকায় চরম আতঙ্ক বিরাজ করছে। মঙ্গলবার উপজেলার তারাব পৌরসভার গন্ধর্বপুর নামাপাড়া এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। নিহত সোলাইমান (৩০) উপজেলা পরিষদ চত্বর এলাকার মজিদ শিকদারের ছেলে।
তার ঘনিষ্ঠ সহযোগী মাছিমপুর এলাকার মোহাম্মদ আলী জানান, মুড়াপাড়াসহ আশপাশের এলাকার আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে মুড়াপাড়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান তোফায়েল আহাম্মেদ আলমাছসহ তার সমর্থকদের সঙ্গে যুবলীগের সমর্থক নিহত সোলাইমানসহ তার লোকজনের দীর্ঘদিন ধরে বিরোধ চলে আসছিল। প্রায় সময়ই উভয় গ্রুপের মাছিমপুর, মীরকুটিরছের, নার্সিংগেলসহ বিভিন্ন স্থানে ধাওয়া পাল্টা-ধাওয়া, হামলা, ভাঙচুর ও সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে আসছে। সর্বশেষ গত ২৮ মে মাছিমপুর এলাকায় চেয়ারম্যান সমর্থকদের সঙ্গে সোলায়মানসহ তার লোকজনের ধাওয়া পাল্টা-ধাওয়া, ইটপাটকেল নিক্ষেপ ও বাড়ি ঘরে হামলার ঘটনা ঘটে। এ সময় বেশ কয়েক রাউন্ড ফাঁকা গুলি বর্ষণের ঘটনা ঘটে। সে ঘটনায় চেয়ারম্যান আলমাছ বাদী হয়ে নিহত সোলাইমানসহ ২৫ জনকে আসামি করে মামলা দায়ের করেন।
এদিকে মঙ্গলবার দুপুরে মুড়াপাড়া নার্সিংগেল এলাকায় সোলায়মান তার মাছের খামারে খাবার দিচ্ছিলেন। তখন তাকে কে বা কারা তাকে ডেকে পাশর্^বর্তী গন্ধর্বপুর নামাপাড়া এলাকায় নিয়ে আসেন। সেখানে অজ্ঞাত লোকজন তাকে নামাপাড়া বালুর মাঠে এলোপাথাড়ি কোপানো শুরু করলে লোকজন দেখতে পেয়ে মসজিদের মাইকে ডাকাত ডাকাত বলে ঘোষণা দিতে থাকেন। গ্রামবাসী লোঠিসোটা নিয়ে এগিয়ে এসে দেখতে পায় সোলাইমানের লাশ সেখানে পড়ে রয়েছে। তাকে ইট দিয়ে মাথা থেঁতলে ও ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে হত্যা করা হয়েছে। পরে দুপুর আড়াইটার দিকে তার আত্মীয়-স্বজনরা সেখান থেকে তাকে উদ্ধার পরে প্রথমে রূপগঞ্জের একটি হাসপাতালে পরে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে গেছে কর্তব্যরত চিকিৎসকেরা তার মৃত্যুর খবর নিশ্চিত করেন। এদিকে, এ হত্যাকাণ্ডের ঘটনাকে কেন্দ্র করে চরম আতঙ্কে ঘটনাস্থলসহ আশপাশের এলাকার মানুষ ঘরে তালা ঝুলিয়ে অন্যত্র চলে যায়। হত্যাকাণ্ডের ঘটনাকে কেন্দ্র করে যেকোনো সময় বড় ধরনের সংঘর্ষের আশঙ্কা করছে এলাকাবাসী।  এ বিষয়ে জানতে মুড়াপাড়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান তোফায়েল আহাম্মেদ আলমাছের  মোবাইল ফোনে বার বার তার যোগাযোগের চেষ্টা করা হলেও তিনি কলটি গ্রহণ করেননি।  এ ব্যাপারে রূপগঞ্জ থানার ওসি এএফএম সায়েদ বলেন, নিহত ব্যক্তির নামে একাধিক মামলা আছে। কারা কি কারণে তাকে হত্যা করল সে বিষয়ে আমরা এখন পর্যন্ত কোনো তথ্য প্রমাণ পাইনি।






সর্বশেষ সংবাদ

সর্বাধিক পঠিত


ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: কমলেশ রায়, আমিন মোহাম্মদ মিডিয়া কমিউনিকেশন লিমিটেড
এর পক্ষে প্রকাশক গাজী আহমেদ উল্লাহ
নাসির ট্রেড সেন্টার, ৮৯, বীর উত্তম সি আর দত্ত সড়ক (সোনারগাঁও রোড), বাংলামোটর, ঢাকা।

ফোন : +৮৮-০২-৯৬৩২৩৬৮-৭৪, ফ্যাক্স : +৮৮-০২-৯৬৩২৩৭৫। ই-মেইল : [email protected]