ই-পেপার বিজ্ঞাপনের তালিকা শুক্রবার ১৭ সেপ্টেম্বর ২০২১ ২ আশ্বিন ১৪২৮
ই-পেপার শুক্রবার ১৭ সেপ্টেম্বর ২০২১
http://www.shomoyeralo.com/ad/amg-728x90.jpg

অনলাইনে উচ্চ সুদে ঋণ বিতরণ বন্ধের দাবি
প্রকাশ: রোববার, ২৭ জুন, ২০২১, ১১:১৮ পিএম | প্রিন্ট সংস্করণ  Count : 57

ষ নিজস্ব প্রতিবেদক
অনলাইনে কিছু প্রতিষ্ঠান অ্যাপসের মাধ্যমে সাধারণ মানুষকে স্বল্পমেয়াদি ও উচ্চ সুদে ঋণ বিতরণ করছে।  অনলাইনে ঋণ বিতরণের এ কার্যক্রমে বাংলাদেশ ব্যাংকের কোনো অনুমোদন নেই উল্লেখ করে বিতরণকারী একাধিক প্রতিষ্ঠানকে ‘প্রতারক’ আখ্যা দিয়ে সেগুলোর কার্যক্রম অবিলম্বে বন্ধের দাবি জানিয়েছে টেলি কনজুমারস অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ (টিক্যাব)।
গতকাল শনিবার টিক্যাবের আহ্বায়ক মুর্শিদুল হকের সই করা এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে এমন দাবি জানায় সংগঠনটি। বিজ্ঞপ্তিতে উল্লেখ করা হয়, অনলাইনে ঋণ বিতরণের এ কার্যক্রমে বাংলাদেশ ব্যাংকের কোনো অনুমোদন নেই, অনুমতি নেই সরকারের অন্য কোনো দফতরের। তারপরও দিনের পর দিন বিনা বাধায় প্রতারক চক্রগুলো গ্রাহকদের ঠকিয়ে কোটি কোটি টাকা হাতিয়ে নিচ্ছে। প্লাটফর্মভেদে ১ থেকে ১০ হাজার টাকা পর্যন্ত ঋণ দিচ্ছে তারা।
বিজ্ঞপ্তিতে নিরাপত্তার বিষয়ে শঙ্কা প্রকাশ করে বলা হয়, ঋণ দেওয়ার শর্ত হিসেবে গ্রাহকের নাম, ঠিকানা, জন্মতারিখ, এনআইডি কার্ড, ছবি, পেশাসহ বিভিন্ন ধরনের ব্যক্তিগত তথ্য নেওয়া হলেও দেওয়া হচ্ছে না ঋণদাতার কোনো তথ্য।
সুদের হার সম্পর্কে বলা হয়, ‘২ হাজার টাকা ঋণ নিলে গ্রাহক পাচ্ছে ১৬৮৫ টাকা। নানা অজুহাতে কেটে নেওয়া
হচ্ছে ৩১৫ টাকা। বলা হচ্ছে অ্যাপ্লিকেশন ফি বাবদ ১২০, ডাটা অ্যানালাইসিস ফি ১৮০, মূল্য সংযোজন কর বা ভ্যাট ১৫ এবং সুদ বাবদ ৫ টাকা কেটে রাখা হয়।
উদ্বেগ প্রকাশ করে আরও বলা হয়, ‘বেশিরভাগ প্লাটফর্মেরই কোনো অফিসের ঠিকানা নেই, অনেকের
থাকলেও সেসব ভুয়া। গ্রাহদের হাজারো অভিযোগ থাকলেও অবৈধভাবে ঋণদানের এসব কার্যক্রমের বিরুদ্ধে কোনো ব্যবস্থা গ্রহণ করা হচ্ছে না। অভিযুক্ত প্রতিষ্ঠানগুলো হলোÑ ‘র‌্যাপিড ক্যাশ’, ‘টাকাওয়ালা’, ‘স্বাধীন’, ‘ক্যাশ ক্যাশ’, ‘ক্যাশম্যান’সহ বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান।







সর্বশেষ সংবাদ

সর্বাধিক পঠিত


ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: কমলেশ রায়, আমিন মোহাম্মদ মিডিয়া কমিউনিকেশন লিমিটেড
এর পক্ষে প্রকাশক গাজী আহমেদ উল্লাহ
নাসির ট্রেড সেন্টার, ৮৯, বীর উত্তম সি আর দত্ত সড়ক (সোনারগাঁও রোড), বাংলামোটর, ঢাকা।

ফোন : +৮৮-০২-৯৬৩২৩৬৮-৭৪, ফ্যাক্স : +৮৮-০২-৯৬৩২৩৭৫। ই-মেইল : [email protected]