ই-পেপার বিজ্ঞাপনের তালিকা শুক্রবার ১৭ সেপ্টেম্বর ২০২১ ২ আশ্বিন ১৪২৮
ই-পেপার শুক্রবার ১৭ সেপ্টেম্বর ২০২১
http://www.shomoyeralo.com/ad/amg-728x90.jpg

স্পিনে হেরাথ, ব্যাটিংয়ে প্রিন্স
প্রকাশ: রোববার, ২৭ জুন, ২০২১, ১১:৩১ পিএম | প্রিন্ট সংস্করণ  Count : 58

ষ ক্রীড়া প্রতিবেদক
গুঞ্জনটাই সত্যি হলো, টাইগারদের স্পিন বোলিং কোচ হিসেবে রঙ্গনা হেরাথকেই বেছে নিল বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি)। তবে ব্যাটিং কোচের পদে যাকে নিয়ে আলোচনা ছিল, সেই জেমি সিডন্স নয়, বিসিবি বেছে নিয়েছে অ্যাশওয়েল প্রিন্সকে। দক্ষিণ আফ্রিকার সাবেক এই ব্যাটসম্যানের সঙ্গে আপাতত জিম্বাবুয়ে সফরের জন্যই চুক্তিবদ্ধ হয়েছে দেশের ক্রিকেটের নিয়ন্ত্রক সংস্থাটি। সাবেক লঙ্কান স্পিনার হেরাথকে নিয়োগ দেওয়া হয়েছে চলতি বছরের শেষদিকে হতে যাওয়া টি-টোয়েন্টি বিশ^কাপ পর্যন্ত। জানা গেছে, জিম্বাবুয়েতে দলের সঙ্গে যোগ দেবেন তিনি।
টেস্ট ক্রিকেটের ১৪৪ বছরের ইতিহাসে সফলতম বাহাতি স্পিনার হেরাথ। ৯৩ টেস্ট খেলে ৪৩৩ উইকেট নিয়েছেন তিনি। ৭১টি ওয়ানডে তার শিকার ৭৪ উইকেট, ১৭ টি-টোয়েন্টিতে ১৮টি। ২০১৮ সালে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটকে বিদায় জানানো ৪৩ বছর বয়সি এই লঙ্কান কোচিংয়ে একেবারেই আনকোড়া। বাংলাদেশকে দিয়েই কোচিং জগতে পা রাখতে চলেছেন তিনি। অভিজ্ঞতা না থাকলেও আইসিসি আর শ্রীলঙ্কা ক্রিকেট বোর্ডের লেভেল-৩ কোচিং কোর্স সম্পন্ন করা হেরাথকেই নিউজিল্যান্ড কিংবদন্তি ড্যানিয়েল ভেট্টোরির যোগ্য উত্তরসূরি মনে করছে বিসিবি।
বছরে ১০০ দিন কাজের চুক্তিতে ভেট্টোরিকে নিয়োগ দেওয়া হয়েছিল। চলতি বছরের ফেব্রুয়ারি-মার্চে টাইগারদের নিউজিল্যান্ড সফর দিয়েই শেষ হয় তার চুক্তি। এরপর শ্রীলঙ্কা সফরে স্থানীয় কোচ সোহেল ইসলামকে দিয়েই কাজ চালিয়ে নেওয়া হয়। ঘরের মাঠে সবশেষ সিরিজে সোহেলও থাকতে পারেননি পারিবারিক কারণে। অবশ্য এর আগে থেকেই স্পিন বোলিং কোচের খোঁজ চলছিল, কিন্তু সাকিব-তাইজুল-মিরাজদের সঠিক পথ দেখানোর জন্য যুতসই কাউকে পাওয়া যাচ্ছিল না। শেষতক হেরাথ এসেছেন সমাধান হয়ে।
তবে পারিশ্রমিক ইস্যুতে এই লঙ্কানের সঙ্গেও আলোচনা প্রায় ভেস্তে যেতে বসেছিল। ভেট্টোরির মতো হেরাথও দিনের হিসেবে কাজ করতে চেয়েছিলেন। বছরে ১২০ দিন কাজ করার শর্তে প্রতিদিনের জন্য পারিশ্রমিক দাবি করেছিলেন দেড় হাজার ডলার। শেষতক তার সঙ্গে মাসের হিসেবে চুক্তিবদ্ধ হয়েছে বিসিবি, তবে তার পারিশ্রমিক কত, এ প্রসঙ্গে বিস্তারিত জানানো হয়নি। শুধু হেরাথ নয়, ব্যাটিং কোচ প্রিন্সের পারিশ্রমিকের বিষয়টিও খোলাসা করা হয়নি।
তবে এটা পরিষ্কার, দুজনকেই দীর্ঘ মেয়াদে রেখে দেওয়ার ভাবনা আছে বিসিবির। সেই ভাবনা বাস্তবরূপ পাবে যদি তারা আসন্ন জিম্বাবুয়ে সফরে নিজেদের কার্যকর প্রমাণ করতে সমর্থ হন। শনিবার সংবাদ মাধ্যমের মুখোমুখি হয়ে এমনটাই বলেছেন বিসিবির ক্রিকেট পরিচালনা বিভাগের চেয়ারম্যান আকরাম খান, ‘ওকে (প্রিন্স) আমরা এই সিরিজটার জন্য নিয়েছি। সবকিছু দেখে এরপর আমরা ভবিষ্যতের কথা চিন্তা করব। স্পিন কোচ হিসেবে হেরাথকে আমরা বিশ^কাপ পর্যন্ত নিয়েছি। ওদের পারফরম্যান্স দেখে যদি পছন্দ হয়, আমরা লম্বা সময়ের জন্য (চুক্তিতে) যাব।’
৪৪ বছর বয়সি প্রিন্স লম্বা সময় খেলেছেন শীর্ষ পর্যায়ের ক্রিকেটে। দক্ষিণ আফ্রিকার হয়ে খেলেছেন ১১৯টি আন্তর্জাতিক ম্যাচ, ১১টি সেঞ্চুরিতে রান করেছেন সাড়ে চার হাজারেরও বেশি। শুধু তাই নয়, প্রোটিয়াদের নেতৃত্ব দেওয়া প্রথম অশে^তাঙ্গ ক্রিকেটারও তিনি। ২০১১ সালে সবশেষ আন্তর্জাতিক ম্যাচ খেলা প্রিন্স খেলোয়াড়ি জীবনের ইতি টানেন ২০১৫ সালে। এরপর কিছুদিন দক্ষিণ আফ্রিকার নির্বাচক প্যানেলে কাজ করেন। তবে কোচিংয়ে ক্যারিয়ার গড়তে ২০১৬ সালের সেপ্টেম্বরে নির্বাচকের দায়িত্ব ছেড়ে দিয়ে কেপ কোবরাসের সহকারী কোচ হিসেবে যোগ দেন তিনি।
পরে দলটির প্রধান কোচও হন প্রিন্স। সাবেক এই ব্যাটসম্যান কাজ করেছেন দক্ষিণ আফ্রিকা ‘এ’ দলের প্রধান কোচ হিসেবেও। প্রোটিয়াদের ব্যাটিং কোচ হিসেবে কাজ করার সামান্য অভিজ্ঞতাও আছে তার। তবে এই অভিজ্ঞতা টাইগারদের সাবেক প্রধান কোচ সিডন্সকে ছাপিয়ে যাওয়ার জন্য যথেষ্ট ছিল না। মূলত বর্তমান প্রধান কোচ রাসেল ডমিঙ্গোর সুপারিশেই প্রিন্সকে বেছে নেওয়া। আকরাম খানের কথায় সেই ইঙ্গিত স্পষ্ট, ‘খেলোয়াড় হিসেবে তার (প্রিন্স) রেপুটেশন অনেক ভালো। কোচের (ডমিঙ্গো) সঙ্গে আলাপ-আলোচনা করে আমরা ওকে নিয়েছি। কোচ ওকে খুব হাইলি র‌্যাংক করেছে।’
গত বছরের আগস্টে নিল ম্যাকেঞ্জি অগত্যা চলে যাওয়ার পর ব্যাটিং কোচ হিসেবে ক্রেইগ ম্যাকমিলানকে নিয়োগ দিয়েছিল বিসিবি। কিন্তু কাজ শুরুর আগেই সরে দাঁড়ান নিউজিল্যান্ডের সাবেক এই ব্যাটসম্যান। এরপর চলতি বছরের শুরু থেকে সিরিজ ধরে ধরে জন লুইসকে দায়িত্বে রেখেছিল বিসিবি। তবে ঘরের মাঠে শ্রীলঙ্কা সিরিজ শেষ হয়ে যাওয়ার পর এই ইংলিশম্যানের সঙ্গে আর চুক্তি বাড়ায়নি সংস্থাটি। এবার দেখার জিম্বাবুয়ে সফরে ভালো কিছু দিয়ে প্রিন্স তার চুক্তির মেয়াদ বাড়িয়ে নিতে পারেন কি না।







সর্বশেষ সংবাদ

সর্বাধিক পঠিত


ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: কমলেশ রায়, আমিন মোহাম্মদ মিডিয়া কমিউনিকেশন লিমিটেড
এর পক্ষে প্রকাশক গাজী আহমেদ উল্লাহ
নাসির ট্রেড সেন্টার, ৮৯, বীর উত্তম সি আর দত্ত সড়ক (সোনারগাঁও রোড), বাংলামোটর, ঢাকা।

ফোন : +৮৮-০২-৯৬৩২৩৬৮-৭৪, ফ্যাক্স : +৮৮-০২-৯৬৩২৩৭৫। ই-মেইল : [email protected]