ই-পেপার বিজ্ঞাপনের তালিকা রোববার ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২১ ১১ আশ্বিন ১৪২৮
ই-পেপার রোববার ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২১
http://www.shomoyeralo.com/ad/amg-728x90.jpg

তারকাদের নামে তাদের নাম
সাব্বির আহমেদ
প্রকাশ: রোববার, ১৮ জুলাই, ২০২১, ৩:২১ এএম আপডেট: ১৮.০৭.২০২১ ১:১৬ পিএম | অনলাইন সংস্করণ  Count : 168

‘বস’। কমবেশি সবাই দুই অক্ষরের এই শব্দের সঙ্গে পরিচিত। প্রাতিষ্ঠানিক ক্ষেত্রে এই শব্দের ব্যবহার হলেও এবার গৃহপালিত পশু গরুর নাম দেওয়া হয়েছে বস। দক্ষিণের উপজেলা বেনাপোলে সাড়া ফেলেছে ৩৮ মণ ওজনের গরু ‘বস’। দাম হাঁকা হচ্ছে ৩৫ লাখ টাকা। শুধু বসের নামে নয় দেশ-বিদেশের অনেক তারকা ব্যক্তি ও ছবির নামেও রাখা হচ্ছে বিশাল সুঠাম দেহের গরুর নাম। ‘আধিরা’, ‘এল ডোরাডো’, ‘মিস্টার বাংলাদেশ’সহ নানা নামে চলছে নজর কাড়ার চেষ্টা। কেউ বেছে নিচ্ছেন বিখ্যাত খেলোয়াড়দের নাম। কেউ আবার সিনেমার বিভিন্ন চরিত্রকে। 

কোরবানি ঈদ মানেই গরুর হাঁকডাক। ঈদুল আজহার মাসখানেক আগে থেকেই দেশজুড়ে গরুর কেনাবেচা নিয়ে নানা আলোচনা হতে থাকে। দিন যত গড়ায় হাটের তোড়জোরও চোখে পড়ে। আজ থেকে রীতিমতো কোরবানির পশু কেনার ধুম পড়েছে। করোনার বিধিনিষেধ শিথিলের ফলে রাজধানীর সব হাটে এখন বিপুলসংখ্যক গরুর সমাগম ঘটেছে। দেশি-বিদেশি বিভিন্ন প্রজাতির প্রচুর গরু এসেছে। উৎসুক মানুষের নজর কাড়ছে বাহারি নামের বড় গরু। বিভিন্ন পশুর হাটের মূল ফটক দিয়ে হাটে ঢুকতেই বাহারি নামের বড় গরু চোখে পড়ে। 

বাহারি নাম শুনেই অনেকে গুরুর কাছে ভিড় করেন। তরুণরা গরুর সঙ্গে সেলফি তুলে পোস্ট করছেন সামাজিক মাধ্যমে। লোকমুখে গরুর নাম ছড়িয়ে পড়ার পর নিজেদের নাম নিয়ে নিজেদের মধ্যে খোশগল্প করছেন। শখ ও আদর করে দেওয়া এমন বাহারি নামে গরুর চাহিদা বাড়ছে বলে জানান খামারিরা। টাঙ্গাইলের বাসাইলে কোরবানির জন্য ৩১ মণ ওজনের একটি ষাঁড় প্রস্তুত করেছেন এক খামারি। সাত ফুট লম্বা সাদা রঙের গরুটির বয়স দুই বছর সাত মাস। খামারি জোবায়ের ইসলাম ভালোবেসে এর নাম রেখেছেন ‘শাকিব খান’। শুধু দেশীয় খাবার খাইয়ে ‘শাকিব খান’কে লালন-পালন করা হচ্ছে। আকর্ষণীয় নাম আর আকারে বড় হওয়ায় আগ্রহ নিয়ে ষাঁড়টিকে দেখতে প্রতিদিনই উৎসুক মানুষজন জোবায়েরের খামারে ভিড় জমান। এখন পর্যন্ত ষাঁড়টির দাম হাঁকা হয়েছে ১৩ লাখ টাকা।

কলকাতার ছবি পাগলুর নামে রাখা হয়েছে বিশালদেহী এক গরু। যার ওজন প্রায় ৩৫ মণ। কাছে গিয়ে পাগলু বলে ডাকতেই লাফালাফি শুরু করে গরুটি। বড় শখ করে গরুটির নাম রাখেন কুষ্টিয়ার টিপু-পাপিয়া দম্পতি। পাপিয়া জানান, প্রতিদিন সকালে পাগলুর ডাকে ঘুম ভাঙে। একবার টিপু পাগলুকে মেরেছিল, এ জন্য দুই দিন তিনি কোনো খাবার খায়নি। 

টেলিভিশনে চোখ না থাকলে মিউজিক শুনে যে কারও ভারতের কন্নড়ি ব্লকবাস্টার সিনেমা ‘কেজিএফ’র ভিলেন আধিরার কথা মনে হতে পারে। তবে পর্দা থেকে চোখ ফেরালে রক্ত হিম করা আধিরাকে নয় বরং একদম শান্ত স্বভাবের একটি প্রাণীকে দেখতে পাবেন। এই আধিরার দেশ অবশ্য ভারত নয়, আটলান্টিকের ওপারের দেশ মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র। বিশালদেহী গরুটির ওজন প্রায় সাড়ে ১৩শ কেজি। হলস্টিয়ান ফিজিয়ান জাতের গরুটির দাম চাওয়া হচ্ছে ৩৫ লাখ টাকা। অন্যদিকে ‘মিস্টার বাংলাদেশ’, প্রায় এক টন ওজনের গরুটির দাম চাওয়া হচ্ছে ১০ লাখ টাকা।

রেসলার জন সিনাকে খুব পছন্দ করেন বুরহান উদ্দিন। নিয়মিত তার রেসলিংও দেখেন। গায়ে গতরে বড় হওয়ায় নিজের পালিত গরুটির নাম দিয়েছেন ‘জন সিনা’। বুরহানের ‘জন সিনার’ ওজন এখন প্রায় ৪০ মণ। এলাকায় তার ‘জন সিনা’ই সবচেয়ে বড় গরু বলে দাবি বুরহান উদ্দিনের। কোরবানির বাজারে বিক্রির জন্য তিনি গরুটির দাম হাঁকছেন ৩০ লাখ টাকা।

রংপুরের বদরগঞ্জ পৌরসভা এলাকায় ‘বাদশা’ নামে গরুটি অপরিচিত কেউ বাড়িতে ঢুকলেই সে গর্জে ওঠে। ডাকাডাকি করে। এর ওজন প্রায় ৩৮ মণ। ‘নবাব’, ‘উজির’ এবারের হাটে সবচেয়ে বেশি দাম হাঁকানো ষাঁড়! ‘নবাব’ মাদারীপুরে এবারের কোরবানির হাটে সবচেয়ে বেশি দাম হাঁকানো ষাঁড়। ভাট্টি আর কালো মানিককে নিয়ে তোলপাড় শুরু হয়েছে চট্টগ্রামে। জেলার সবচেয়ে ছোট গরু হচ্ছে ভাট্টি। আর কালো মানিক হলো সবচেয়ে বড় গরু। কালো মানিকের ওজন ২৫ মণ। তার দাম হাঁকা হয়েছে ১০ লাখ টাকা। আর সবচেয়ে ছোট গরু ৭২ কেজি ওজনের ভাট্টির দাম ৫ লাখ টাকা।
পুরো শরীর সাদা, মাঝে মাঝে কালো পশমও তাদের অস্তিত্ব জানান দেয়। শান্ত মেজাজ নিয়ে শুয়ে আছে বিশাল দেহের ‘ডন’। তাকে ঘিরে উৎসুক জনতা। অবলা প্রাণীটি তাকে দেখার কারণ বুঝলে হয়তো নিজেই নিজেকে ডনই ভাবত! রাজধানীর আফতাবনগর হাট মাত করছে ‘ডন’। শান্ত মেজাজী বিশাল দেহের ‘ডন’কে ঘিরে উৎসুক জনতা ভিড় জমাচ্ছে। গাজীপুরের কাপাসিয়ার এখলাস উদ্দিন ১ হাজার ৫০০ কেজির গরুটির দাম হেঁকেছেন ২৫ লাখ টাকা।

/এমএইচ/ 




সর্বশেষ সংবাদ

সর্বাধিক পঠিত


ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: কমলেশ রায়, আমিন মোহাম্মদ মিডিয়া কমিউনিকেশন লিমিটেড
এর পক্ষে প্রকাশক গাজী আহমেদ উল্লাহ
নাসির ট্রেড সেন্টার, ৮৯, বীর উত্তম সি আর দত্ত সড়ক (সোনারগাঁও রোড), বাংলামোটর, ঢাকা।

ফোন : +৮৮-০২-৯৬৩২৩৬৮-৭৪, ফ্যাক্স : +৮৮-০২-৯৬৩২৩৭৫। ই-মেইল : [email protected]