ই-পেপার বিজ্ঞাপনের তালিকা  বুধবার ২২ সেপ্টেম্বর ২০২১ ৭ আশ্বিন ১৪২৮
ই-পেপার  বুধবার ২২ সেপ্টেম্বর ২০২১
http://www.shomoyeralo.com/ad/amg-728x90.jpg

ভিডিওগুলো পর্নোগ্রাফি ছিল না : হাই কোর্টে শিল্পার স্বামীর আইনজীবী
সময়ের আলো অনলাইন
প্রকাশ: শুক্রবার, ২৩ জুলাই, ২০২১, ৬:৩০ পিএম আপডেট: ২৩.০৭.২০২১ ৬:৫৪ পিএম | অনলাইন সংস্করণ  Count : 79

বলিউড অভিনেত্রী শিল্পা শেঠির স্বামী ব‍্যবসায়ী রাজ কুন্দ্রার বাড়ি থেকে উদ্ধার হওয়া ভিডিওগুলো পর্নোগ্রাফি ছিল না বলে দাবি করে এবার হাই কোর্টের দ্বারস্থ হলেন তার আইনজীবী সুভাষ যাদব। তিনি আগেই জানিয়েছিলেন, তার মক্কেলের গ্রেফতার আইনসম্মত নয় এবং সুবিচারের জন্য তারা উচ্চ আদালতে আবেদন জানাবেন।

পরিকল্পনামাফিক এবার উচ্চ আদালতের দ্বারস্থ হলেন রাজের আইনজীবী। তিনি জানিয়েছেন, রাজ এবং অন্যদের বিরুদ্ধে মহারাষ্ট্র পুলিশ চার হাজার পৃষ্ঠার চার্জশিট দিলেও কোথাও প্রমাণ করতে পারেনি যে রাজের ভিডিওগুলো পর্নোগ্রাফি ছিল। বাকি যে সব ধারায় রাজের নামে অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে, সেগুলো জামিনযোগ্য।

সংবাদমাধ্যমের কাছেও একই বক্তব্য রেখেছিলেন রাজের আরেক আইনজীবী অবোধ পান্ডা। তার মতে, রাজের ছবিতে অশ্লীল কিছু দৃশ্য থাকলেও ‘প্রকৃত যৌন সঙ্গম’ সেখানে দেখানো হয়নি। তাই সেই ভিডিওগুলোকে কোনোভাবেই পর্নো বলা চলে না।

পুলিশ জানিয়েছে, বিভিন্ন প্রোডাকশন হাউসের সাহায্য নিয়ে এই ভিডিও তৈরি করেছিলেন রাজের প্রাক্তন ব্যক্তিগত সহকারী উমেশ কামাত। হটশট অ্যাপের মাধ্যমে এই সব পর্নো ভিডিওগুলো দেখতে পেত মানুষ। প্লে স্টোর থেকেই প্রথমে অ্যাপটি পাওয়া গেলেও পরে রাজ তার ব‍্যক্তিগত সহকারী উমেশ কামাতকে বলেন প্লে স্টোর থেকে অ্যাপটি সরিয়ে নিতে। ২০২০ সালের শেষের দিকে গুগল প্লে স্টোর ও অ্যপলের অ্যাপ স্টোর থেকে সরিয়ে দেওয়া হয়েছিল হটশট অ্যাপটিকে।

ইতোমধ্যে এই দুজনের হোয়াটসঅ্যাপ চ‍্যাট থেকে এ তথ‍্য পেয়েছে পুলিশ। পর্নো ভিডিও থেকে রাজের রোজগারের পরিমাণও জানতে পেরেছে মুম্বাই পুলিশ। এই ব‍্যবসায়ীর বিরুদ্ধে এটিই বড় প্রমাণ হিসেবে ধরছে তদন্তকারীরা।

বৃহস্পতিবার মুম্বাই পুলিশ অভিযান চালিয়ে রাজ কুন্দ্রার বাড়ি থেকে ৭০টি পর্নো ভিডিও উদ্ধার করেছে। আজ শুক্রবার (২৩ জুলাই) পর্যন্ত রাজ ও উমেশ কামাত পুলিশ হেফাজতে রয়েছেন। দফায় দফায় তাকে জিজ্ঞাসাবাদ চলছে।

রাজের ঘনিষ্ঠজনদের মধ‍্যে তার স্ত্রী শিল্পা শেঠিও রয়েছেন পুলিশি নজরদারিতে। প্রাথমিকভাবে সন্দেহ করা হচ্ছে রাজের এই ব্যবসায় শিল্পাও তাকে মদদ জোগাতেন। পুলিশ জানিয়েছে, জিজ্ঞাসাবাদ করা হতে পারে শিল্পাকেও।

সূত্র : আনন্দবাজার পত্রিকা

/এসএ/




সর্বশেষ সংবাদ

সর্বাধিক পঠিত


ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: কমলেশ রায়, আমিন মোহাম্মদ মিডিয়া কমিউনিকেশন লিমিটেড
এর পক্ষে প্রকাশক গাজী আহমেদ উল্লাহ
নাসির ট্রেড সেন্টার, ৮৯, বীর উত্তম সি আর দত্ত সড়ক (সোনারগাঁও রোড), বাংলামোটর, ঢাকা।

ফোন : +৮৮-০২-৯৬৩২৩৬৮-৭৪, ফ্যাক্স : +৮৮-০২-৯৬৩২৩৭৫। ই-মেইল : [email protected]