ই-পেপার বিজ্ঞাপনের তালিকা শুক্রবার ১৭ সেপ্টেম্বর ২০২১ ২ আশ্বিন ১৪২৮
ই-পেপার শুক্রবার ১৭ সেপ্টেম্বর ২০২১
http://www.shomoyeralo.com/ad/amg-728x90.jpg

করোনা ও ডেঙ্গুর উপসর্গ কাছাকাছি
নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশ: শনিবার, ২৪ জুলাই, ২০২১, ১১:৪১ পিএম আপডেট: ২৫.০৭.২০২১ ১২:০১ এএম | অনলাইন সংস্করণ  Count : 92

করোনা ও ডেঙ্গুর উপসর্গ প্রায় কাছাকাছি। করোনার ক্ষেত্রে শ্বাসকষ্টজনিত সমস্যা হতে পারে, যেটা ডেঙ্গুতে দেখা যায় না। ডেঙ্গু জ্বরের ক্ষেত্রে চার-পাঁচ দিন পরে শরীরে লাল র‌্যাশ হতে পারে। সবচেয়ে ভয়ের বিষয় হচ্ছে ডেঙ্গু ‘শক সিন্ড্রোম’, হেমোরেজিক। এবারের ডেঙ্গুতে রোগীর রক্তক্ষরণ হচ্ছে, যা আতঙ্কের। এতে রোগীর মৃত্যুও হতে পারে।

তাই সরকারের স্বাস্থ্য অধিদফতর ও চিকিৎসকরা বলছেন, জ্বর হলে করোনা পরীক্ষার পাশাপাশি ডেঙ্গু পরীক্ষাও করাতে হবে। দ্রুত চিকিৎসা শুরু করা সম্ভব হলে ডেঙ্গু রোগীর মৃত্যুঝুঁকি কমে আসবে।

স্বাস্থ্য অধিদফতর বলছে, জ্বর হলে করোনা পরীক্ষার পাশাপাশি ডেঙ্গু পরীক্ষাও করাতে হবে। দেশের করোনা পরিস্থিতি এখন ঊর্ধ্বগামী। এ অবস্থায় ডেঙ্গু পরিস্থিতিও যদি অবনতি হয় তা হলে সামাল দেওয়া কঠিন হবে বলে স্বাস্থ্য অধিদফতর শঙ্কা প্রকাশ করেছে।

স্বাস্থ্য অধিদফতরের মুখপাত্র ও লাইন ডিরেক্টর অধ্যাপক ডা. নাজমুল ইসলাম বলেছেন, রাজধানীসহ সারা দেশের মশক নিয়ন্ত্রণে যারা দায়িত্বপ্রাপ্ত আছেন, তারা যদি নিজেদের জায়গা থেকে নিজেকে উজাড় করে না দেন, তা হলে পরিস্থিতির অবনতি ঘটতে থাকবে।

তিনি বলেন, ‘ডেঙ্গু প্রতিরোধে সাধারণ মানুষকেও অনেক বেশি সচেতন হতে হবে। ছাদে ফুলের টব ও বাসার আশপাশের ড্রেনসহ সবকিছু পরিষ্কার রাখতে হবে। বাথরুমের কমোড, বালতিসহ কোনো কিছুতেই যেন পানি জমে না থাকে। বিশেষ করে ৩ দিন বা তার অধিক সময়ের জন্য কোথাও চলে গেলে বাসায় কোনো পাত্রে পানি জমিয়ে রাখা যাবে না।’

তিনি বলেন, ‘আমরা জানি এডিস মশা মূলত দিনের বেলায় কামড় দেয়। তাই দিনের যেকোনো সময় ঘুমালেও মশারি টানিয়ে ঘুমাতে হবে। তারপরও যদি কারও জ্বর হয় তা হলে করোনা পরীক্ষার পাশাপাশি ডেঙ্গু পরীক্ষাও করতে হবে।

তিনি বলেন, ‘চিকিৎসা নেওয়ার ক্ষেত্রে অবশ্যই রেজিস্টার্ড কোনো চিকিৎসকের পরামর্শে ওষুধ গ্রহণ করতে হবে। প্রয়োজনে স্বাস্থ্য অধিদফতরের হটলাইন বা স্বাস্থ্য বাতায়নে যোগাযোগ করে চিকিৎসা নেবেন।’

ডেঙ্গু নিয়ে আতঙ্কিত না হয়ে সচেতন হওয়ার পরামর্শ দেন রোগ নিয়ন্ত্রণ ও গবেষণা ইনস্টিটিউটের (আইইডিসিআর) প্রধান বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তা ডা. এএসএম আলমগীর।

তিনি সময়ের আলোকে বলেন, ‘একজন ব্যক্তি একই সঙ্গে কোভিড-১৯ এবং ডেঙ্গু জ্বরে আক্রান্ত হতে পারেন। সেক্ষেত্রে হাসপাতালে ভর্তি ছাড়া অন্য কোনো বিকল্প নেই।’ জ্বর হলে করোনা পরীক্ষার পাশাপাশি ডেঙ্গুর টেস্ট করানোর পরামর্শ দেন তিনি।

ডা. আলমগীর বলেন, ‘বাংলাদেশে এখন সারা বছরই মানুষ ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হন। কিন্তু আমরা দেখছি এবার হেমোরেজিক ডেঙ্গুর হার বেশি। রক্তক্ষরণ হয়, যা আতঙ্কের। এবার ডেঙ্গুর ধরনে কোনো পরিবর্তন এসেছে কি না এ বিষয়ে গবেষণা করা হচ্ছে।’

তিনি বলেন, ‘করোনার এ সময়ে শিশুরা যেহেতু বাসায় বেশি সময় থাকে এবং বাইরে খেলাধুলার জন্য বের হলে তাদের প্রতি অভিভাবকদের একটু নজর বেশি দিতে হবে।’

/জেডও/




সর্বশেষ সংবাদ

সর্বাধিক পঠিত


ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: কমলেশ রায়, আমিন মোহাম্মদ মিডিয়া কমিউনিকেশন লিমিটেড
এর পক্ষে প্রকাশক গাজী আহমেদ উল্লাহ
নাসির ট্রেড সেন্টার, ৮৯, বীর উত্তম সি আর দত্ত সড়ক (সোনারগাঁও রোড), বাংলামোটর, ঢাকা।

ফোন : +৮৮-০২-৯৬৩২৩৬৮-৭৪, ফ্যাক্স : +৮৮-০২-৯৬৩২৩৭৫। ই-মেইল : [email protected]