ই-পেপার বিজ্ঞাপনের তালিকা  বুধবার ২২ সেপ্টেম্বর ২০২১ ৭ আশ্বিন ১৪২৮
ই-পেপার  বুধবার ২২ সেপ্টেম্বর ২০২১
http://www.shomoyeralo.com/ad/amg-728x90.jpg

কারওয়ান বাজারে ঢিলেঢালা লকডাউন
নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশ: শুক্রবার, ৩০ জুলাই, ২০২১, ৩:৩০ এএম | অনলাইন সংস্করণ  Count : 35

করোনা পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে চলমান লকডাউনের সপ্তম দিনে গতকাল বৃহস্পতিবার রাজধানীর বিভিন্ন এলাকায় লকডাউনের ঢিলেঢালা চিত্র দেখা গেছে। সড়কে বেড়েছে মানুষের উপস্থিতি ও যানবাহনের চলাচল। কাঁচাবাজারসহ সব জায়গায় ছিল মানুষের সরব উপস্থিতি।

বৃহস্পতিবার রাজধানীর কারওয়ান বাজার কাঁচাবাজারে গিয়ে দেখা গেছে, রোজকারের মতোই চলছে সবকিছু। সড়কের ওপর বসা সবজি ও ফলের দোকান থেকে দেদার চলছে বেচা-বিক্রি। এ সময় ক্রেতা ও বিক্রেতা কারও মুখে মাস্ক দেখা যায়নি, ছিল না কোনো সামাজিক দূরত্ব।

কারওয়ান বাজার আড়তের সামনের সড়কে ফল বিক্রি করছিলেন মিরাজুল শেখ। এ সময় একজন নারী ক্রেতা সেখানে আনার কিনছিলেন তবে কারও মুখে মাস্ক দেখা যায়নি। 

ফল বিক্রেতা মিরাজুল বলেন, সারা দিন রাস্তার ওপর দোকানদারি করি। কতক্ষণ মাস্ক মুখে রাখা যায়, তারপরও মাঝেমধ্যে পরি। মাস্ক পরে কথা বললে কাস্টমাররা কথা বুঝে না। মৃত্যু যখন হবে কেউ ঠেকাতে পারবে না বলেও এ সময় উল্লেখ করেন তিনি।

এ সময় ফল কিনতে আসা সুমনা আক্তার (ছদ্মনাম) বলেন, এমন পরিস্থিতিতে স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলা উচিত। আমার বাসা মোহাম্মদপুরে। একটা কাজে বাংলামোটর এসেছিলাম। কাজ শেষ, এখন বাসায় যাব তাই বাচ্চাদের জন্য আনার কিনতে এসেছি। এখানে একটু কম দামে সবকিছু পাওয়া যায়।

এলাকায় এক কেজি আনারের দাম তিনশ টাকা, এখানে নিল দুইশ টাকা। শুধু সুমনা নয় দামে কম পাওয়ায় অনেকেই বাসায় ফেরার সময় এখান থেকে কাঁচাবাজার করে নিয়ে যান।  

এদিকে লকডাউনের কারণে ক্রেতা কমেছে বলে দাবি করেছেন ব্যবসায়ীরা। ক্রেতা না থাকার কারণে সবজি পচে যাচ্ছে, এমনকি ফ্রিতে নেওয়ার মতো মানুষও খুঁজে পাওয়া যাচ্ছে না বলে জানান অনেকে।

সবজি ব্যবসায়ী মো. বিল্লাল বলেন, কারওয়ান বাজারে চারটি আড়ত করোনার কারণে বন্ধ রয়েছে। কাঁচামালের গাড়িও তেমন আসছে না। আমরা রাতে যারা পাইকারি কিনি তাদের অনেক টাকা লস হচ্ছে। এক কেজি বেগুন পাঁচ টাকা, চিচিঙ্গা ১০ টাকা, একটা লাউ তিন থেকে পাঁচ টাকা। এমন পরিস্থিতিতে কর্মচারীদের বেতন দেওয়াই দায় হয়ে পড়েছে। মানুষ খেয়ে বাঁচতে না পারলে স্বাস্থ্যবিধি মানবে কী করে?






সর্বশেষ সংবাদ

সর্বাধিক পঠিত


ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: কমলেশ রায়, আমিন মোহাম্মদ মিডিয়া কমিউনিকেশন লিমিটেড
এর পক্ষে প্রকাশক গাজী আহমেদ উল্লাহ
নাসির ট্রেড সেন্টার, ৮৯, বীর উত্তম সি আর দত্ত সড়ক (সোনারগাঁও রোড), বাংলামোটর, ঢাকা।

ফোন : +৮৮-০২-৯৬৩২৩৬৮-৭৪, ফ্যাক্স : +৮৮-০২-৯৬৩২৩৭৫। ই-মেইল : [email protected]