ই-পেপার বিজ্ঞাপনের তালিকা  বুধবার ২২ সেপ্টেম্বর ২০২১ ৭ আশ্বিন ১৪২৮
ই-পেপার  বুধবার ২২ সেপ্টেম্বর ২০২১
http://www.shomoyeralo.com/ad/amg-728x90.jpg

সুরক্ষা অ্যাপ থেকে ভুয়া এসএমএস
চট্টগ্রাম ব্যুরো
প্রকাশ: শুক্রবার, ৩০ জুলাই, ২০২১, ৯:১৭ এএম | অনলাইন সংস্করণ  Count : 88

‘সুরক্ষা’ অ্যাপ হ্যাক করে টিকা গ্রহণের ভুয়া এসএমএস পাঠানোর অভিযোগে পাঁচলাইশ থানায় জিডি করেন চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ (চমেক) হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ। কিন্তু প্রাথমিক তদন্ত শেষে পুলিশ বলছে, সুরক্ষা অ্যাপ সুরক্ষিতই আছে। শর্ষের ভেতরেই ভূত। এসএমএস পাঠানো হচ্ছে চমেক হাসপাতালের ভেতর থেকে। বৃহস্পতিবার দুপুরে পাঁচলাইশ থানার ওসি জাহিদুল কবীর এ তথ্য নিশ্চিত করে বলেন, গত মঙ্গলবার চমেক হাসপাতালের উপ-পরিচালক ডা. আফতাব উদ্দিন ‘সুরক্ষা’ অ্যাপ হ্যাক হওয়ার অভিযোগ এনে থানায় জিডি করেন।
 
অভিযোগে উল্লেখ করা হয়, চমেক হাসপাতালে প্রতিদিন ৫-১০ জন অতিরিক্ত লোক ভ্যাকসিন নিতে আসছেন। এদের মোবাইলে এসএমএস গেছে। কিন্তু সেই তারিখের সঙ্গে সুরক্ষা অ্যাপের তারিখের মিল নেই। তাদের সন্দেহ অ্যাপটি কেউ হ্যাক করে অবৈধভাবে তারিখগুলো পাঠাচ্ছে। অভিযোগ পেয়েই আমরা তদন্ত শুরু করি। একপর্যায়ে বুঝতে পারি হ্যাক কাণ্ডের ভূত শর্ষের ভেতরেই। হাসপাতালের ভ্যাকসিন কেন্দ্রে ১০ জন অপারেটর টিকার তারিখ নিশ্চিত করে এসএমএস পাঠান। এসব অপারেটরের আইডি ও পাসওয়ার্ড একই। মূলত এই সুযোগ কাজে লাগিয়ে অপারেটরদের কেউ অতিরিক্ত এসএমএসগুলো পাঠাচ্ছেন।

ওসি বলেন, আমরা ইতোমধ্যেই বিষয়টি নিয়ে হাসপাতালের উপ-পরিচালকসহ কর্মকর্তাদের সঙ্গে আলোচনা করেছি। জানার চেষ্টা করছি কোনো অপারেটর এই কাজটি করেছেন, কেন করেছেন? কিংবা এর বিনিময়ে ওই অপারেটর অনৈতিক কোনো সুবিধা নিয়েছেন কিনা।

এদিকে চমেক হাসপাতালের ভ্যাকসিন কেন্দ্র থেকে পাঠানো ভুয়া এসএমএসের জেরে টিকা পেতে বিড়ম্বনায় পড়েছেন নগরের কয়েকশ টিকা গ্রহীতা। নাম প্রকাশ না করার শর্তে এক ভুক্তভোগী বলেন, অ্যাপস থেকে পাঠানো ওটিপি ব্যবহার করে আমি আমার টিকা কার্ড সংগ্রহ করি। কিন্তু চমেক কর্তৃপক্ষের অভিযোগ আমরা ‘সুরক্ষা’ অ্যাপ হ্যাক করে এই এসএমএস পেয়েছি।

এ নিয়ে বেশ কয়েকজনকে টিকা না দিয়ে উল্টো হাসপাতালের উপ-পরিচালকের কার্যালয়ে নিয়ে দাঁড় করিয়ে রাখে। মামলাসহ বিভিন্ন হুমকি দিতে থাকে। এমন বিব্রতকর পরিস্থিতির কারণে নিজেই লজ্জাবোধ করছি, সামাজিকভাবেও হেয়প্রতিপন্ন হচ্ছি। এ ছাড়া এ জটিলতায় আমাদের টিকা পাওয়া নিয়েও শঙ্কা দেখা দিয়েছে। এ বিষয়ে মোবাইল ফোনে জানতে চাইলে চমেক হাসপাতালের উপ-পরিচালক ডা. আফতাব উদ্দিন কোনো মন্তব্য করতে রাজি হননি। তবে চট্টগ্রাম সিভিল সার্জন সেখ ফজলে রাব্বি বলেন, সবাইকে তো টিকা নিতেই হবে। এ সমস্যার কারণে টিকা পেতে কাউকে সমস্যায় পড়তে হবে না। নির্ধারিত দিনে টিকা কার্ড ও এসএমএস সঙ্গে নিয়ে গেলে কেন্দ্রের কর্মকর্তারা তাদের টিকা দিতে বাধ্য থাকবেন।




সর্বশেষ সংবাদ

সর্বাধিক পঠিত


ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: কমলেশ রায়, আমিন মোহাম্মদ মিডিয়া কমিউনিকেশন লিমিটেড
এর পক্ষে প্রকাশক গাজী আহমেদ উল্লাহ
নাসির ট্রেড সেন্টার, ৮৯, বীর উত্তম সি আর দত্ত সড়ক (সোনারগাঁও রোড), বাংলামোটর, ঢাকা।

ফোন : +৮৮-০২-৯৬৩২৩৬৮-৭৪, ফ্যাক্স : +৮৮-০২-৯৬৩২৩৭৫। ই-মেইল : [email protected]