ই-পেপার বিজ্ঞাপনের তালিকা সোমবার ১৮ অক্টোবর ২০২১ ৩ কার্তিক ১৪২৮
ই-পেপার সোমবার ১৮ অক্টোবর ২০২১
http://www.shomoyeralo.com/ad/amg-728x90.jpg

জার্মানিতে ৭৫ শতাংশ মানুষকে টিকা দেওয়ার উদ্যোগ
সময়ের আলো ডেস্ক
প্রকাশ: মঙ্গলবার, ১৪ সেপ্টেম্বর, ২০২১, ১১:১৭ এএম | অনলাইন সংস্করণ  Count : 82

জার্মানিতে সপ্তাহব্যাপী প্রচারের মাধ্যমে আরও বেশি মানুষকে টিকা দেওয়ার চেষ্টা শুরু হয়েছে। দেশটিতে কমপক্ষে ৭৫ শতাংশ মানুষকে টিকা দিয়ে মহামারির চতুর্থ ঢেউ মোকাবিলার চেষ্টা চলছে। অন্যান্য অনেক শিল্পোন্নত দেশের মতো জার্মানিতেও করোনা টিকা কর্মসূচি থমকে গেছে। প্রায় ৬২ শতাংশ মানুষ টিকার প্রয়োজনীয় ডোজ পাওয়ার পর নতুন করে অনাগ্রহী, অলস, সংশয়ী অথবা কট্টর টিকাবিরোধীদের কিছুতেই এই কর্মসূচির আওতায় আনা যাচ্ছে না। লাল ফিতের ফাঁস ছাড়াই শহরের কেন্দ্রস্থলে মোবাইল ভ্যানে করোনা টিকার ‘ওয়াক ইন’ ব্যবস্থা সত্ত্বেও কর্মসূচির গতি বাড়ছে না। অথচ বিজ্ঞানী ও বিশেষজ্ঞরা আসন্ন শীতের মাসগুলোর আগে করোনা মহামারি নিয়ন্ত্রণে রাখতে আরও বেশি মানুষকে টিকা দেওয়ার প্রয়োজনীয়তার ওপর জোর দিচ্ছেন। কমপক্ষে ৭৫ শতাংশ মানুষ সব প্রয়োজনীয় ডোজ পেলে তবেই চতুর্থ ঢেউ মোকাবিলা করা যাবে বলে তারা মনে করছেন। ডয়চে ভেলে।

উল্লেখ্য, জার্মানিতে বর্তমানে প্রতি ১ লাখ মানুষের মধ্যে সংক্রমণের গড় হার প্রায় ৮২ ছুঁতে চলেছে। হাসপাতালে ভর্তি করোনায় আক্রান্ত মানুষের প্রায় কেউই টিকা নেননি। সেই লক্ষ্য পূরণ করতে সোমবার থেকে গোটা দেশে নতুন এক প্রচার অভিযান শুরু হয়েছে।

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমেও ‘এখানে টিকা দেওয়া হচ্ছে’ হ্যাশট্যাগ সম্বল করে বিশেষ করে তরুণ প্রজন্মের কাছে পৌঁছানোর চেষ্টা করা হবে। একটি ওয়েবসাইটেই দেশের সব টিকাকেন্দ্রের হদিস পাওয়া যাবে। এর আওতায় এক সপ্তাহ ধরে শপিংমল, লাইব্রেরি, মসজিদ থেকে শুরু করে মানুষের সমাগম হয় এমন অসংখ্য জায়গায় বিনা অ্যাপয়েন্টমেন্টে ও বিনামূল্যে করোনা টিকা নিতে পারবেন। স্থায়ী ও অস্থায়ী কেন্দ্রে সহজেই সেই সুযোগ পাওয়া যাবে। সাপ্তাহিক প্রচার অভিযান শেষেও সেসব জায়গায় টিকা নেওয়ার ব্যবস্থা রাখা হবে।

/জেডও/




সর্বশেষ সংবাদ

সর্বাধিক পঠিত


ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: কমলেশ রায়, আমিন মোহাম্মদ মিডিয়া কমিউনিকেশন লিমিটেড
এর পক্ষে প্রকাশক গাজী আহমেদ উল্লাহ
নাসির ট্রেড সেন্টার, ৮৯, বীর উত্তম সি আর দত্ত সড়ক (সোনারগাঁও রোড), বাংলামোটর, ঢাকা।

ফোন : +৮৮-০২-৯৬৩২৩৬৮-৭৪, ফ্যাক্স : +৮৮-০২-৯৬৩২৩৭৫। ই-মেইল : [email protected]