ই-পেপার বিজ্ঞাপনের তালিকা রোববার ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২১ ১১ আশ্বিন ১৪২৮
ই-পেপার রোববার ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২১
http://www.shomoyeralo.com/ad/amg-728x90.jpg

নির্বাচন নিয়ে পরিকল্পনা : তৃণমূল গোছাতে মাঠে আওয়ামী লীগ
হাবীব রহমান
প্রকাশ: বৃহস্পতিবার, ১৬ সেপ্টেম্বর, ২০২১, ২:২৬ এএম | অনলাইন সংস্করণ  Count : 75

আগামী জাতীয় নির্বাচন ও বিরোধী দলের সম্ভাব্য আন্দোলন মোকাবিলায় দলকে প্রস্তুত করতে তৃণমূল গোছাতে মাঠে নেমেছে আওয়ামী লীগ। প্রধানমন্ত্রীর দিকনির্দেশনায় সাংগঠনিক দায়িত্বপ্রাপ্তরা কাজে নেমে পড়েছেন। আট বিভাগের জন্য আটটি সাংগঠনিক দলও সক্রিয় হচ্ছে। পাশাপাশি অনলাইনে গুজব ও অপপ্রচার মোকাবিলায় ১ লাখ অনলাইন অ্যাক্টিভিস্টকে প্রশিক্ষণের আওতায় আনছে দলটি।

দলের নেতারা বলছেন, আসন্ন ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনকে টার্গেট করে আওয়ামী লীগ মাঠে নেমেছে। এ প্রস্তুতির মধ্য দিয়েই আগামী জাতীয় নির্বাচনের জন্য দলকে সংগঠিত করা হবে। প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনার পর ইতোমধ্যে বেশ কিছু জেলা-উপজেলায় সম্মেলনের তারিখ নির্ধারিত হয়েছে। মঙ্গলবার ধানমন্ডিতে দলীয় সভাপতির রাজনৈতিক কার্যালয়ে এক বৈঠকে আগামী ২০ ও ২১ নভেম্বর যথাক্রমে পাবনা ও নাটোর জেলা আওয়ামী লীগের সম্মেলন তারিখ নির্ধারণ করা হয়। এ ছাড়া আগামী ২৪ সেপ্টেম্বর চাঁপাইনবাবগঞ্জ পৌরসভা, ২৫ সেপ্টেম্বর সিরাজগঞ্জের এনায়েতপুর, ২৯ সেপ্টেম্বর পাবনার ঈশ্বরদী ও ৩০ সেপ্টেম্বর সিরাজগঞ্জের সলঙ্গা উপজেলায় সম্মেলনের তারিখ নির্ধারণ করা হয়েছে। এর বাইরে পাবনার নতুন দুই সাংগঠনিক থানার আহ্বায়ক কমিটি এবং নওগাঁর দুই উপজেলার সম্মেলনের সম্ভাব্য তারিখ ১৬/১৭ অক্টোবর।

এর আগে গত শনিবার জামালপুর পৌর শাখার ত্রিবার্ষিক সম্মেলন হয়েছে। আগামী ২০ সেপ্টেম্বর অনুষ্ঠিত হবে রাজবাড়ী জেলা আওয়ামী লীগের বর্ধিত সভা। ঢাকা মহানগর আওয়ামী লীগের থানা ও ওয়ার্ডের পূর্ণাঙ্গ কমিটি গঠনের কাজ চলছে। চট্টগ্রাম মহানগর আওয়ামী লীগও বর্ধিত সভা করে ওয়ার্ড ও থানা কমিটি করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে। এভাবে সারা দেশে তৃণমূলে নতুন সম্মেলন করার কাজে পুরোদমে মাঠে নেমে পড়েছে আওয়ামী লীগ। আট বিভাগের আটটি সাংগঠনিক দল সারা দেশে সাংগঠনিক সফরে বের হবে।
আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক আহমদ হোসেন সময়ের আলোকে বলেন, আওয়ামী লীগ হচ্ছে একটা সাগরের মতো, সাগরের পানি যেমন শুকায় না, আওয়ামী লীগের কাজও তেমনি শেষ হয় না।

তিনি বলেন, আগামী জাতীয় নির্বাচনের চ্যালেঞ্জ মোকাবিলায় প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনার পর সারা দেশে দলকে সংগঠিত করতে ইউনিয়ন, উপজেলা ও জেলায় সম্মেলন শুরু হয়েছে। পুরো দলকে একটা শৃঙ্খলার মধ্য দিয়ে আনা হচ্ছে।

আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক এসএম কামাল হোসেন বলেন, করোনার কারণে আমাদের সম্মেলনের কিছুটা ব্যাঘাত ঘটেছে। করোনা না হলে এত দিনে অধিকাংশ জেলা ও উপজেলা সম্মেলন করা শেষ হয়ে যেত।

আরেক সাংগঠনিক সম্পাদক সাখাওয়াত হোসেন শফিক বলেন, করোনার কারণে দীর্ঘদিন সাংগঠনিক স্থবিরতা কাটাতে আওয়ামী লীগ সাংগঠনিকভাবে মাঠে নেমেছে। অনেক জেলা-উপজেলার কমিটির মেয়াদ শেষ। কিছু জায়গায় বিভক্তি আছে। এসব জায়গায় সম্মেলন ও বর্ধিত সভার তারিখ নির্ধারিত হচ্ছে।

আওয়ামী লীগের বন ও পরিবেশ সম্পাদক দেলোয়ার হোসেন বলেন, প্রধানমন্ত্রী ও দলীয় সভাপতি নির্দেশনা দিয়েছেন দল পুনর্গঠন করার জন্য। বিভাগীয় দায়িত্বপ্রাপ্ত টিমগুলো কাজে নেমে পড়েছে। বিভিন্ন জেলা-উপজেলায় সম্মেলনের তারিখ নির্ধারিত হচ্ছে।

শুধু মাঠের সাংগঠনিক অবস্থারই পুনর্বিন্যাস করছে না আওয়ামী লীগ। এর পাশাপাশি ফেসবুকসহ সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে গুজব ও অপপ্রচার রোধেও মাঠে নেমেছে দলটি। ১ লাখ অনলাইন অ্যাক্টিভিস্টের সমন্বয়ে একটি প্লাটফর্ম তৈরি করে সারা দেশে অনলাইন অ্যাক্টিভিস্টদের জন্য প্রশিক্ষণ কর্মশালা পরিচালনা করছে।

আওয়ামী লীগের বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিষয়ক সম্পাদক ইঞ্জিনিয়ার মো. আবদুস সবুর বলেন, আগামী দিনে বাংলাদেশ যত উন্নত হতে থাকবে, নির্বাচন যত ঘনিয়ে আসবে, তত বেশি গুজব ও অপপ্রচার ছড়ানোর চেষ্টা করবে প্রতিক্রিয়াশীল গোষ্ঠী। বিশেষত সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে গুজব অপপ্রচার ছড়িয়ে তারা জনগণকে বিভ্রান্ত করে সরকারের উন্নয়ন কর্মকাণ্ড বাধাগ্রস্ত করার জন্য চেষ্টা করবে। যেহেতু তারা রাজপথে পেরে উঠতে পারবে না, তাই তাদের একমাত্র হাতিয়ার হচ্ছে গুজব ও অপপ্রচার। এ গুজব মোকাবিলায় দলের নেতাকর্মীদের প্রশিক্ষণ দেওয়া হচ্ছে।

/জেডও/




সর্বশেষ সংবাদ

সর্বাধিক পঠিত


ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: কমলেশ রায়, আমিন মোহাম্মদ মিডিয়া কমিউনিকেশন লিমিটেড
এর পক্ষে প্রকাশক গাজী আহমেদ উল্লাহ
নাসির ট্রেড সেন্টার, ৮৯, বীর উত্তম সি আর দত্ত সড়ক (সোনারগাঁও রোড), বাংলামোটর, ঢাকা।

ফোন : +৮৮-০২-৯৬৩২৩৬৮-৭৪, ফ্যাক্স : +৮৮-০২-৯৬৩২৩৭৫। ই-মেইল : [email protected]