ই-পেপার বিজ্ঞাপনের তালিকা সোমবার ২৫ অক্টোবর ২০২১ ১০ কার্তিক ১৪২৮
ই-পেপার সোমবার ২৫ অক্টোবর ২০২১
http://www.shomoyeralo.com/ad/amg-728x90.jpg

এমন কোনো শর্ত রাখিনি যা গ্রহণ করা কঠিন ছিল : শাওন
আনন্দ সময় প্রতিবেদক
প্রকাশ: শুক্রবার, ১৭ সেপ্টেম্বর, ২০২১, ৪:৪৪ এএম | অনলাইন সংস্করণ  Count : 126

‘আয়নাবাজি’ ও ‘রিকশা গার্ল’-এর পর অমিতাভ রেজা চৌধুরীর তৃতীয় সিনেমাটি হওয়ার কথা ছিল সরকারি অনুদানের। যেটির চিত্রনাট্য তৈরি হয় নন্দিত কথাসাহিত্যিক হুমায়ূন আহমেদের উপন্যাস ‘পেন্সিলে আঁকা পরী’ অবলম্বনে। অনুদানের ১৮ লাখ টাকা পেয়েছিলেনও নির্মাতা। কিন্তু শেষ পর্যন্ত সিনেমাটি বানাচ্ছেন না তিনি। সেই খবর এরই মধ্যে শোবিজের অন্যতম আলোচনার বিষয়। সিনেমাটি নির্মাণের আগে অনুমতির জন্য অমিতাভ রেজা গিয়েছিলেন হুমায়ূন আহমেদের পরিবারের কাছে। কিন্তু নির্মাতাকে যেই শর্ত দেওয়া হয়েছিল তাতে রাজি হননি তিনি। তাই অনুদানের টাকা ফেরত দিয়ে সিনেমাটি নির্মাণ থেকে সরে এলেন পরিচালক। কারণ সমস্যা বাধে কপিরাইটের অর্থ নির্ধারণে। হুমায়ূন আহমেদের পরিবার থেকে যেটি নির্ধারণ হয়, সেটি মেনে সিনেমা বানাবেন না অমিতাভ।

এ বিষয়ে কথা বললেন হুমায়ূন আহমেদের স্ত্রী মেহের আফরোজ শাওন। তিনি বলেন, ‘হুমায়ূন আহমেদের সৃষ্টির প্রসার আরও বাড়ুক, সেটি আমাদের সবার চাওয়া। আমরা এমন কোনো শর্ত রাখিনি যেটি গ্রহণ করা কঠিন ছিল। কপিরাইট শর্ত অনুযায়ী যেই অর্থ নির্ধারণ হয়েছে সেটিও কিন্তু আমরা চাইনি। কিন্তু অমিতাভ রেজাও আমাদের যে অঙ্ক প্রস্তাব করেছেন সেটিও মেনে নেওয়ার মতো ছিল না। আমরা চেয়েছিলাম সিনেমাটি হোক। এ জন্যই তো একসঙ্গে বসেছি।’

কপিরাইটের অর্থ নিয়ে যেখানে সমস্যা তৈরি হয়েছে, সেই জায়গায় আরও শিথিল হওয়ার সুযোগ ছিল কি না- এমন প্রশ্নের জবাবে শাওন আরও বলেন, ‘আমি সেই বিষয়টিই বলছিলাম। শিথিল হওয়ার সুযোগ কখন থাকে যখন যেটি মূল নির্ধারিত অঙ্ক সেটির আশপাশে থাকে। অমিতাভ রেজা তার জায়গা থেকে সেটুকু এফোর্ট করতে হয়তো পারবেন না। আর এ জন্যই সিনেমাটি বানাচ্ছেন না। এটিই স্বাভাবিক। কিন্তু হুমায়ূন আহমেদের সৃষ্টি নিয়ে কাজ করতে হলে তার উচ্চতা বজায় রেখেই করতে হবে।’




সর্বশেষ সংবাদ

সর্বাধিক পঠিত


ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: কমলেশ রায়, আমিন মোহাম্মদ মিডিয়া কমিউনিকেশন লিমিটেড
এর পক্ষে প্রকাশক গাজী আহমেদ উল্লাহ
নাসির ট্রেড সেন্টার, ৮৯, বীর উত্তম সি আর দত্ত সড়ক (সোনারগাঁও রোড), বাংলামোটর, ঢাকা।

ফোন : +৮৮-০২-৯৬৩২৩৬৮-৭৪, ফ্যাক্স : +৮৮-০২-৯৬৩২৩৭৫। ই-মেইল : [email protected]