ই-পেপার বিজ্ঞাপনের তালিকা সোমবার ১৮ অক্টোবর ২০২১ ৩ কার্তিক ১৪২৮
ই-পেপার সোমবার ১৮ অক্টোবর ২০২১
http://www.shomoyeralo.com/ad/amg-728x90.jpg

‘বিয়ে করতে ভয় পাই’
গাজী আনিস
প্রকাশ: মঙ্গলবার, ২১ সেপ্টেম্বর, ২০২১, ৬:২৪ এএম আপডেট: ২১.০৯.২০২১ ১২:৫১ পিএম | অনলাইন সংস্করণ  Count : 160

ছোট ও বড়পর্দার জনপ্রিয় মুখ জ্যোতিকা জ্যোতি। মেধা আর অভিনয় দিয়ে জয় করেছেন দর্শকমন। বর্তমানে লেখালেখি, ব্যবসা, রাজনীতি নিয়ে ব্যস্ত সময় পার করছেন তিনি। শিগগিরই ফিরবেন অভিনয়ে। বর্তমান ব্যস্ততা ও ব্যক্তিগত জীবন নিয়ে কথা বলেছেন সময়ের আলোর সঙ্গে। সাক্ষাৎকার নিয়েছেন গাজী আনিস

বর্তমান ব্যস্ততা নিয়ে বলুন।
আপাতত ব্যবসা নিয়ে ময়মনসিংহের গৌরীপুরে আছি। ইচ্ছে ছিল লকডাউনে খামারে কাজ করব, তাই করেছি। কাজ করে আমি অসুস্থ হয়ে গেছি। আর মিডিয়ার কাজ নিয়ে খুব যে ব্যস্ত আছি এমন না। ২০২০ সালে কিছু কাজ করা হয়েছে। ২০২১ সালে তেমন কাজ করা হয়নি। সবশেষ ‘লাল মোরগের ঝুঁটি’ নামের একটি সিনেমায় কাজ করেছি। দ্রুত কাজে ফিরব।
কী কাজ দিয়ে ফিরতে চাচ্ছেন?
ঢাকা ফিরে পুরোদমে মিডিয়ায় কাজ করব। আগামী পরশু ঢাকা ফেরা হবে। একটা সিনেমা নিয়ে প্রথম দফা মিটিং শেষ করেছি। আগামী সপ্তাহের মধ্যে আরেকটা মিটিং হবে। আশা করছি ফাইনাল আলোচনায় সিদ্ধান্ত নেব।


হঠাৎ কেন ব্যবসায় নামলেন?
করোনায় কিছু করার ছিল না তাই ব্যবসা শুরু করেছি। ‘খনা অর্গানিক’র মাধ্যমে আমি শতভাগ খাঁটি দেশীয় পণ্য মানুষের কাছে পৌঁছে দিচ্ছি। আমার একটা পণ্য আছে খলিসা ফুলের মধু। সুন্দরবন এলাকা থেকে সংগ্রহ করি। মানুষ এটা বারবার নিচ্ছেন। তবে ব্যবসা ক্ষেত্রে বিশ^স্ত লোক খুঁজে পাচ্ছি না। যাদের ওপর আস্থা রেখে আমি অন্য কাজে মনোযোগ দেব। আর আমাদের শরীরের জন্য দেশি পণ্য দরকার। আমি সেই চেষ্টা করছি। মানুষের কাছে দেশীয় খাবার পৌঁছে দেওয়ার চেষ্টা করছি।

ওপার বাংলার সিনেমায় আপনাকে আর দেখা যাচ্ছে না...
লকডাউনের জন্য ভারতের কাজ করা হচ্ছে না। দুইটা ছবির কথা হয়েছিল। এর মধ্যে তারা একটা ছবি করেনি। আর অন্য একটা ছবির জন্য আমি সেখানে রিস করতে পারিনি। এখন আবার যোগাযোগ করার চেষ্টা করব। চোখ কান খোলা রাখব।

আপনাকে কবে ওয়েব সিরিজে দেখা যাবে?
চান্স হলেই কাজ করব আমি এমন না। আন্তর্জাতিক মানের কাজ করতে চাই। টাকার জন্য কাজ করতে চাই না। টাকার জন্য কৃষিকাজ করা যাবে। কোয়ালিটি, স্টোরি, ক্যারেক্টার, ডিরেক্টর ভালো না হলে কাজ করি না। সস্তা জনপ্রিয়তা চাই না। রাতারাতি হিট হতে চাই না। মানসম্মত কাজ পাচ্ছি না।

আপনি কবিতাও লেখেন, এ নিয়ে জানতে চাই।
হ্যাঁ নিয়মিত লিখি। কবিতার পাশাপাশি পত্রিকায় কলাম লেখার প্রস্তাব পাই। ব্রহ্মপুত্রের পাড়ে বসে মিটিং করতে করতে এখন কবিতা নিয়ে ভাবছি। গতকাল একটা রোম্যান্টিক কবিতা লিখেছি। কবিতার লাইন এমন- ‘সতেরো’শ সতেরো দিন-ঠোঁটগুলো চুমুহীন’।  

ব্যবসা ও সিনেমা নিয়ে ভবিষ্যৎ পরিকল্পনা কী?
ভবিষ্যৎ ভেবে কিছু করি না। পরিকল্পনা করে লাভ নাই। স্বপ্নের মধ্যে এখনও সিনেমা আছে। মনে হচ্ছে এখনও সিনেমার কাজ শুরু করিনি। আর ব্যবসার জন্য ঢাকায় বড় করে একটা শোরুম করতে চাই। এর বেশি কিছু না, হঠাৎ যদি মরে যাই পরিকল্পনা করে কী হবে!

বিয়ে করছেন কবে?
বিয়ে করতে ভয় পাই। ভাঙা-গড়ার ভয়। যেমন মানুষ চাই তেমন মানুষের দেখা পাইনি। দেখা পেলেও বিয়ে করতাম কিনা জানি না। আর দেশের প্রেক্ষাপটে ছেলেরা আমার এই চ্যালেঞ্জিং পেশাকে মেনে নেবে কিনা জানা নাই। তবে প্রতিদিন প্রেম-বিয়ের প্রস্তাব পাচ্ছি। অনেক জুনিয়রও প্রেম-বিয়ের প্রস্তাব দিচ্ছে। কিন্তু আমি রেসপন্স করছি না।




সর্বশেষ সংবাদ

সর্বাধিক পঠিত


ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: কমলেশ রায়, আমিন মোহাম্মদ মিডিয়া কমিউনিকেশন লিমিটেড
এর পক্ষে প্রকাশক গাজী আহমেদ উল্লাহ
নাসির ট্রেড সেন্টার, ৮৯, বীর উত্তম সি আর দত্ত সড়ক (সোনারগাঁও রোড), বাংলামোটর, ঢাকা।

ফোন : +৮৮-০২-৯৬৩২৩৬৮-৭৪, ফ্যাক্স : +৮৮-০২-৯৬৩২৩৭৫। ই-মেইল : [email protected]