ই-পেপার বিজ্ঞাপনের তালিকা সোমবার ২৫ অক্টোবর ২০২১ ১০ কার্তিক ১৪২৮
ই-পেপার সোমবার ২৫ অক্টোবর ২০২১
http://www.shomoyeralo.com/ad/amg-728x90.jpg

সম্পত্তি না দেওয়ায় মা বাবা ভাইকে হত্যা
মিরসরাই (চট্টগ্রাম) প্রতিনিধি
প্রকাশ: শুক্রবার, ১৫ অক্টোবর, ২০২১, ২:১১ এএম আপডেট: ১৫.১০.২০২১ ২:৩৭ এএম | অনলাইন সংস্করণ  Count : 118

চট্টগ্রামের মিরসরাইয়ে সম্পত্তি না দেওয়ায় বাবা-মা ও ভাইকে জবাই করেছে বাড়ির বড় ছেলে। নিহতরা হলেন- মো. মোস্তফা সওদাগর (৫৬) তার স্ত্রী জোস্নে আরা (৪৫) ও মেজো ছেলে আহমদ হোসেনকে (২৫)। হত্যায় জড়িত সন্দেহে বড় ছেলে সাদেক হোসেন সাদ্দাম (৩০) ও তার স্ত্রী আইনুর নাহারকে আটক করেছে জোরারগঞ্জ থানা পুলিশ। বুধবার রাত ৩টার দিকে উপজেলার ৩নং জোরারগঞ্জ ইউনিয়নের ৭নং ওয়ার্ডের মধ্যম সোনাপাহাড় গ্রামের মোস্তফা সওদাগরের বাড়িতে এই নৃশংস হত্যাকাণ্ড ঘটে।

বৃহস্পতিবার বিকালে ৪টায় পুলিশের প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে সাদেক হোসেন সাদ্দাম বাবা, মা ও ভাইকে হত্যার বিষয়টি স্বীকার করে। পুলিশ বাড়ির পেছন থেকে হত্যাকাণ্ডে ব্যবহৃত ছুরিটি উদ্ধার করেছে।

নিহত মো. মোস্তফার ছোট ছেলে আলতাফ হোসেন বলেন, ভোর রাতে বড় ভাই সাদ্দাম আমাকে ফোন দিয়ে বলেন বাড়িতে ডাকাত এসেছিল, বাবা, মা ও মেজো ভাইকে জবাই করে ফেলেছে। তুই তাড়াতাড়ি আয় তাদের হাসপাতালে নিতে হবে। আমি বাড়িতে এসে দেখি বাবা-মা আর মেজো ভাইয়ের নিথর দেহ ঘরের ভেতর পড়ে আছে। রাতে বাড়িতে বাবা, মা, বড় ভাই ও তার স্ত্রী আইনুর নাহার, তাদের ৪ বছর বয়সি একটি ছেলে এবং মেজো ভাই আহমদ হোসেন ছিল। আমি চাকরির কারণে বারইয়ারহাট মাছের আড়তে থাকি। আমার বাবা কিছু জায়গা জমি মেজো ভাই আহমদকে দিয়ে দিয়েছিল। ওটা নিয়ে বাবা-মায়ের সঙ্গে বড় ভাইয়ের প্রায় ঝগড়া হতো।

৭নং ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য মনির আহমদ ভাসানী বলেন, মোস্তফা সওদাগর অনেক ভালো মানুষ ছিলেন। সম্প্রতি ২ ছেলেকে বাদ দিয়ে বাড়ির জমিটি ছোট ছেলে, মেয়ে ও স্ত্রীর নামে রেজিস্ট্রি করে দেওয়ায় বড় ছেলের সঙ্গে প্রায় সময় ঝগড়া হতো। বড় ছেলে ঘরে খরচের টাকা কম দিত। মেজো ছেলের বিয়ের জন্য টাকা চাওয়াতে আবারও ঝগড়া হতে পারে। সেই থেকে এমন হত্যাকাণ্ড ঘটেছে বলে ধারণা করা হচ্ছে।

জোরারগঞ্জ থানার ওসি নুর হোসেন মামুন বলেন, বাবা, মা ও ভাইকে হত্যার বিষয়টি স্বীকার করেছেন বড় ছেলে সাদেক হোসেন। সম্পত্তির বিরোধে এমন হত্যাকাণ্ড হয়েছে বলে জানা গেছে। সহকারী পুলিশ সুপার (মিরসরাই সার্কেল) লাবিব আবদুল্লাহ বলেন, এটি একটি হত্যাকাণ্ড। এখানে ডাকাতির কোনো ঘটনা ঘটেনি। ঘরের ভেতর থাকা মোবাইল, আসবাবপত্র সব পরিপাটি অবস্থায় আছে। নিহত মো. মোস্তফা মিয়া তার স্ত্রী জোস্নে আরা বেগম ও মেজো ছেলে আহমদ হোসেনকে গলা কেটে হত্যা করা হয়েছে। তাদের শরীরে একাধিক জখমের আঘাত আছে। ধারালো ছোরা দিয়ে এই হত্যাকাণ্ড করা হয়। এ ঘটনায় নিহতের ছেলে সাদেক হোসেন ওরফে সাদ্দামকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আটক করা হয়েছে। তার অন্তঃসত্ত্বা স্ত্রী আইনুর নাহারকে পুলিশ হেফাজতে রাখা হয়েছে।

তিনি আরও বলেন, চট্টগ্রাম থেকে আসা পিবিআই ও সিআইডি বিশেষজ্ঞ টিম ঘটনাস্থল থেকে আলামত সংগ্রহ করেছে। লাশ ময়নাতদন্তের জন্য চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। বৃহস্পতিবার বিকাল ৪টা পর্যন্ত থানায় কোনো মামলা হয়নি।

/জেডও/




সর্বশেষ সংবাদ

সর্বাধিক পঠিত


ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: কমলেশ রায়, আমিন মোহাম্মদ মিডিয়া কমিউনিকেশন লিমিটেড
এর পক্ষে প্রকাশক গাজী আহমেদ উল্লাহ
নাসির ট্রেড সেন্টার, ৮৯, বীর উত্তম সি আর দত্ত সড়ক (সোনারগাঁও রোড), বাংলামোটর, ঢাকা।

ফোন : +৮৮-০২-৯৬৩২৩৬৮-৭৪, ফ্যাক্স : +৮৮-০২-৯৬৩২৩৭৫। ই-মেইল : [email protected]