ই-পেপার বিজ্ঞাপনের তালিকা মঙ্গলবার ৩০ নভেম্বর ২০২১ ১৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৮
ই-পেপার মঙ্গলবার ৩০ নভেম্বর ২০২১
http://www.shomoyeralo.com/ad/amg-728x90.jpg

শয্যাশায়ী ব্যক্তির নামাজের বিধান
প্রকাশ: সোমবার, ১৮ অক্টোবর, ২০২১, ৮:৫৪ এএম | অনলাইন সংস্করণ  Count : 125

প্রত্যেক মুসলমানের ওপর পাঁচ ওয়াক্ত নামাজ ফরজ। এমনকি বয়সের ভারে ন্যুব্জ মানুষের জন্যও তা ফরজ। আল্লাহর রাসুল (সা.) বলেছেন, ‘তোমরা দাঁড়িয়ে নামাজ পড়বে। যদি না পার তবে বসে নামাজ পড়বে। যদি তা-ও না পার তবে ইশারা করে নামাজ আদায় করবে।’
 
(বুখারি : ১০৫০)। এ হাদিস থেকে বোঝা যায়, অসুস্থ অবস্থায় শয্যাশায়ী হয়েও নামাজ ছেড়ে দেওয়া জায়েজ নেই। কেউ যদি অসুস্থতার কারণে বসে নামাজ পড়তে অপারগ হয়, তাহলে সে শুয়ে ইশারার মাধ্যমে নামাজ পড়বে। তার পা কেবলার দিকে করে শোয়াতে হবে।

মাথাকে সামান্য ওপরে তুলে শোয়াবে, যাতে চেহারা কেবলার দিকে হয়। এরপর ইশারা করে রুকু-সিজদা করবে। (মুসান্নাফে ইবনে আবি শায়বা : ১/২৭৩)। যদি মাথা দিয়ে ইশারা করা হয়, তা রুকু-সিজদার স্থলাভিষিক্ত বিবেচিত হবে। যদি ইশারা চোখ বা অন্তরে হয়, তাহলে নামাজ সহিহ হবে না। (তিরমিজি, সুনানে কুবরা, হাদিস : ৩৭১৯)।

ওজরের কারণে বিছানায় শুয়ে নামাজ পড়তে হলে করণীয় হচ্ছে- কেবলার দিকে পা দিয়ে চিত হয়ে বিছানায় শোয়া এবং মাথার নিচে বালিশ দিয়ে মাথা যতটুকু সম্ভব উঁচু করে নেওয়া এবং মাথার ইশারার মাধ্যমে রুকু-সেজদা করে নামাজ আদায় করা। এক্ষেত্রে রুকুর ইশারার চেয়ে সিজদার ইশারায় একটু বেশি ঝুঁকতে হবে। আর উত্তর-দক্ষিণ হয়ে মাথা উত্তর দিকে রেখে ডান কাতে শুয়ে অথবা মাথা দক্ষিণ দিকে রেখে বাম কাতে শুয়ে চেহারা কেবলামুখী করে নামাজ আদায় করলেও নামাজ সহিহ হয়ে যাবে।

অবশ্য এই তিন পদ্ধতির মধ্যে প্রথমটি সবচেয়ে উত্তম, তারপর দ্বিতীয়টি, তারপর তৃতীয়টি। (কিতাবুল আসল : ১/১৯২; খুলাসাতুল ফাতাওয়া : ১/১৯৫; আলবাহরুর রায়েক : ২/১১৪; ফাতাওয়া হিন্দিয়া : ১/১৩৬)


আরও সংবাদ   বিষয়:  নামাজের নিয়ম   নামাজের বিধান  




সর্বশেষ সংবাদ

সর্বাধিক পঠিত


ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: কমলেশ রায়, আমিন মোহাম্মদ মিডিয়া কমিউনিকেশন লিমিটেড
এর পক্ষে প্রকাশক গাজী আহমেদ উল্লাহ
নাসির ট্রেড সেন্টার, ৮৯, বীর উত্তম সি আর দত্ত সড়ক (সোনারগাঁও রোড), বাংলামোটর, ঢাকা।

ফোন : +৮৮-০২-৯৬৩২৩৬৮-৭৪, ফ্যাক্স : +৮৮-০২-৯৬৩২৩৭৫। ই-মেইল : [email protected]