ই-পেপার বিজ্ঞাপনের তালিকা  বুধবার ৮ ডিসেম্বর ২০২১ ২৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৮
ই-পেপার  বুধবার ৮ ডিসেম্বর ২০২১
http://www.shomoyeralo.com/ad/amg-728x90.jpg

মৃত ব্যক্তির একাধিক জানাজার বিধান
নাহিদ হাসান
প্রকাশ: সোমবার, ২৫ অক্টোবর, ২০২১, ১:৪৮ পিএম | অনলাইন সংস্করণ  Count : 132

অনেক সময় মৃত ব্যক্তির একাধিক জানাজা পড়তে দেখা যায়। অনেকেই এটাকে প্রভাব ও মর্যাদার প্রতীক হিসেবে মনে করে। বিশেষ করে সমাজের উচ্চশ্রেণির লোকেরা যখন ইন্তেকাল করে তখন তার এক জানাজা শহরে আরেক জানাজা গ্রামে এভাবে করতে করতে একাধিক জানাজা হয়ে যায়। এক জায়গা থেকে আরেক জায়গায় স্থানান্তরিত করে একাধিক জানাজা পড়ার মাধ্যমে মূলত মৃত ব্যক্তিকে কষ্ট দেওয়া হয়। রাসুল (সা.) ও সাহাবায়ে কেরামের যুগে এর প্রচলন ছিল না।

মৃত ব্যক্তির ‘অলি’ বা অবিভাবকের উপস্থিতিতে বা অনুমতি সাপেক্ষে জানাজা পড়া হলে দ্বিতীয়বার জানাজার নামাজ পড়া জায়েজ নেই। তবে যদি অলির অনুমতি ব্যতীত জানাজার নামাজ পড়া হয়ে যায়, তবে শুধু অলি জানাজা পুনরাবৃত্তি করার অধিকার রাখে।

এই সুরতে যারা প্রথম জানাজায় অংশগ্রহণ করেনি তারা দ্বিতীয় জানাজায় অংশগ্রহণ করতে পারবে। আর যারা প্রথম জানাজায় অংশগ্রহণ করেছিল তারা অলির সঙ্গে দ্বিতীয় জানাজায় অংশগ্রহণ করতে পারবে না। তেমনিভাবে কেউ যদি অন্য দেশে মৃত্যুবরণ করে এবং সেখানকার লোকজন অলির অনুমতি ব্যতীত ওই দেশে জানাজা পড়ে নেয় তাহলে লাশ দেশে আনার পর অলি দ্বিতীয়বার জানাজার নামাজ পড়তে পারবে। আর অলির অনুমতি নিয়ে জানাজা পড়লে দ্বিতীয়বার জানাজা পড়তে পারবে না।

আসলে জানাজার নামাজ হচ্ছে ফরজে কেফায়া। আর কোনো ফরজ বিধান একাধিকবার আদায় করা যায় না। তবে নফল একাধিকবার আদায় করা যায়। যেমন- হজ জীবনে একবার আদায় করা ফরজ। কেউ একাধিকবার হজ করলে প্রথমটা তার ফরজ হিসেবে আদায় হবে এবং বাকিগুলো নফল হিসেবে গণ্য হবে।

তেমনিভাবে কেউ যদি জোহরের ফরজ একা আদায় করে নেয় এবং পরবর্তীতে ইমামের সঙ্গে জামাতে শরিক হয় তাহলে তার প্রথম নামাজ ফরজ হিসেবে আদায় হবে এবং ইমামের সঙ্গে যে নামাজ পড়েছে তা নফল হিসেবে গণ্য হবে। এক্ষেত্রে জানাজার ব্যাপারটি ভিন্ন; কেননা জানাজার নামাজের নফল বিধান শরিয়তে নেই। তাই একবার জানাজা পড়া হয়ে গেলে দ্বিতীয়বার ফরজের পুনরাবৃত্তির অবকাশ নেই। তবে অলিকে যেহেতু শরিয়ত নির্দিষ্ট হক প্রদান করেছে তাই অলির ব্যাপারটি ভিন্ন।

হাদিস শরিফে রাসুলুল্লাহ (সা.) বলেন, ‘তোমরা জানাজাকে দ্রুত নিয়ে যাও। কেননা মৃত ব্যক্তি যদি নেককার হয় তবে তো তাকে তার শুভ পরিণতির দিকেই নিয়ে যাচ্ছ। আর যদি বদকার হয় তাহলে তো তোমাদের ঘাড় থেকে আপদ সরিয়ে দিচ্ছ!’ (বুখারি : ১৩১৫)।

এ হাদিসে বিলম্ব না করে লাশ তাড়াতাড়ি দাফন করতে বলা হয়েছে। সুতরাং যদি একাধিক জানাজা পড়া হয় তাহলে লাশ দাফন করতে বিলম্ব হবে এবং এই হাদিসের ওপর আমল করা সম্ভব হবে না। (ফাতহুল বারি : ৩/২১৯)


আরও সংবাদ   বিষয়:  জানাজা  




সর্বশেষ সংবাদ

সর্বাধিক পঠিত


ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: কমলেশ রায়, আমিন মোহাম্মদ মিডিয়া কমিউনিকেশন লিমিটেড
এর পক্ষে প্রকাশক গাজী আহমেদ উল্লাহ
নাসির ট্রেড সেন্টার, ৮৯, বীর উত্তম সি আর দত্ত সড়ক (সোনারগাঁও রোড), বাংলামোটর, ঢাকা।

ফোন : +৮৮-০২-৯৬৩২৩৬৮-৭৪, ফ্যাক্স : +৮৮-০২-৯৬৩২৩৭৫। ই-মেইল : [email protected]