ই-পেপার বিজ্ঞাপনের তালিকা সোমবার ৬ ডিসেম্বর ২০২১ ২১ অগ্রহায়ণ ১৪২৮
ই-পেপার সোমবার ৬ ডিসেম্বর ২০২১
http://www.shomoyeralo.com/ad/amg-728x90.jpg

ওরা ভয়ঙ্কর ‘কিং’
নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশ: বুধবার, ২৪ নভেম্বর, ২০২১, ৮:৩২ এএম | অনলাইন সংস্করণ  Count : 195

বয়স সবার ১৪ থেকে ১৮ বছর। পড়াশোনায় কেউ প্রাথমিকের গণ্ডি পেরোয়নি। কিন্তু তার আগেই নিজেকে কিং ভাবা শুরু করে। উঠতি তরুণদের নিয়ে গড়ে তোলে কিশোর গ্রুপ। সেই গ্রুপের নাম দেয় ‘ভাইব্বা ল কিং’। ‘ভাইব্বা ল কিং’ মানে তাদের সদস্যরা যে অবস্থায়ই থাকুক না কেন তাদের মোহাম্মদপুরের কিং মনে করতে হবে। অপরাধ কার্যক্রমের মাধ্যমে তারা নিজেদের কিং হিসেবে উপস্থাপন করতে চায়। এই গ্রুপের অধিকাংশ সদস্য লেগুনা, অটোচালনা, দোকানের কর্মচারী, নির্মাণকর্মী ও অফিসের বার্তাবাহক। তারা দিনে বিভিন্ন পেশায় জড়িত থাকার পাশাপাশি টিকটক ভিডিও বানাত। যেখানে অস্ত্রশস্ত্র নিয়ে চিত্র ধারণ করা হতো। আর রাত হলেই ছিনতাইয়ে নেমে পড়ত। গত ২ থেকে ৩ বছর ধরে রাজধানীর মোহাম্মদপুরের চাঁদ উদ্যান, ঢাকা উদ্যান, বসিলা ও রায়েরবাজারসহ বিভিন্ন এলাকায় আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে বিভিন্ন সময় সশস্ত্র মহড়া, ভাড়ায় শোডাউন করে আসছিল। তারা বিভিন্ন সময় ছিনতাইয়ের উদ্দেশ্যে ব্যাংকের আশপাশে গিয়ে গ্রাহকদের টার্গেট করত।

শুধু কি তাই, গ্রুপটি ফেসবুকে পেজ ও গ্রুপ খুলে নানা ধরনের উদ্ভট স্ট্যাটাস দিয়ে নিজেদের উপস্থিতির কথা জানান দিত। এই গ্রুপের কাজই ছিল দিনে পুরো এলাকায় দাপিয়ে বেড়ানো। সবার হাতেই থাকত বড় বড় ছোরা। সম্প্রতি একটি ভিডিও সামাজিক মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়ে। সেই ভিডিওর সূত্র ধরে সোমবার রাতে কিশোর গ্রুপটির প্রধান মোহনসহ নয়নকে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব-২।

গ্রেফতাররা হলো- নাঈম (১৪), মো. রুমান (১৮), মো. তামিম খান (১৪), মো. সজীব (১৭), গ্যাং লিডার শরীফ ওরফে মোহন (১৮), উদয় (১৯), মো. শাকিল (১৯), মো. নয়ন (১৮), মো. জাহিদ (১৮)। তাদের কাছ থেকে চারটি দেশি ছুরি, একটি স্টিলের হাতলযুক্ত কুঠার, গাঁজা ৫০ পুরিয়া, স্টিলের তৈরি ছোরা দুটি, স্টিলের তৈরি ফোল্ডিং চাকু একটি, একটি প্লাস্টিকের পিস্তল, ৬৫ পিস ইয়াবা ও ইয়াবা খাওয়ার সরঞ্জামাদি এবং তিনটি মোবাইল ফোন জব্দ করা হয়। মঙ্গলবার রাজধানীর কারওয়ান বাজারে মিডিয়া সেন্টারে র‌্যাব মিডিয়া বিভাগের পরিচালক কমান্ডার খন্দকার আল মঈন সংবাদ সম্মেলনে এসব তথ্য জানান।

তিনি জানান, গ্রুপের প্রধান হচ্ছে মোহন। তার নেতৃত্বেই বসিলা ও ঢাকা উদ্যানে কিশোর গ্যাং নানা ধরনের সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ড চালাত। তাদের কিশোর গ্যাং ‘ভাইব্বা ল কিং’ গ্রুপে প্রায় ১৫-২০ জন সদস্য রয়েছে। লিডার মোহনের নেতৃত্বে তিন বছর আগে এটি গঠন করা হয়। ২৫ অক্টোবর এলাকায় দুগ্রুপের মধ্যে ধাওয়া-পাল্টাধাওয়া, মারামারির ঘটনা ঘটে। এর ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়ে। তাতে দেখা যায়, এক গ্রুপের সদস্যরা অস্ত্র হাতে নিয়ে ছুটছে। সেই ভিডিওর সূত্র ধরেই নয়জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। বাকিদের গ্রেফতারের চেষ্টা অব্যাহত আছে।

তিনি জানান, তারা সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে গ্রুপ পেজ খুলে নানা ধরনের স্ট্যাটাস দিত এবং তাদের উপস্থিতি জানান দিত। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে তাদের গ্যাং সংক্রান্ত বিভিন্ন ঔদ্ধত্যপূর্ণ প্রচারণা পাওয়া যায়। যেমন- মোহাম্মদপুরের পোলাপান যা করি তা টোকেন ছাড়াই ওপেন, মোহাম্মদপুরের পোলা বাজান/আমি একাই একশ/গেঞ্জাম করার আগে ‘ভাইব্বা ল কিং’ ইত্যাদি। মোহাম্মদপুর এলাকায় চাঁদাবাজি, সন্ত্রাসী কার্যক্রম, চুরি-ডাকাতি, আধিপত্য বিস্তার করে আসছে। তারা ভাড়ায় বিভিন্ন স্থানে হুমকি ও মারধরে অংশগ্রহণ করে। এ ছাড়া ইভটিজিংসহ বিভিন্ন অসামাজিক কর্মকাণ্ডের সঙ্গেও জড়িত।

/জেডও/




সর্বশেষ সংবাদ

সর্বাধিক পঠিত


ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: কমলেশ রায়, আমিন মোহাম্মদ মিডিয়া কমিউনিকেশন লিমিটেড
এর পক্ষে প্রকাশক গাজী আহমেদ উল্লাহ
নাসির ট্রেড সেন্টার, ৮৯, বীর উত্তম সি আর দত্ত সড়ক (সোনারগাঁও রোড), বাংলামোটর, ঢাকা।

ফোন : +৮৮-০২-৯৬৩২৩৬৮-৭৪, ফ্যাক্স : +৮৮-০২-৯৬৩২৩৭৫। ই-মেইল : [email protected]