ই-পেপার বিজ্ঞাপনের তালিকা শনিবার ২৯ জানুয়ারি ২০২২ ১৪ মাঘ ১৪২৮
ই-পেপার শনিবার ২৯ জানুয়ারি ২০২২
http://www.shomoyeralo.com/ad/Amin Mohammad City (Online AD).jpg

কারিগরিতে ভর্তিতে মেকআপ পদ্ধতি বাতিলের দাবি
নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশ: শনিবার, ৪ ডিসেম্বর, ২০২১, ৭:৩১ পিএম | অনলাইন সংস্করণ  Count : 73

ডিপ্লোমা ইঞ্জিনিয়ারিং শিক্ষা কোর্সে ২০২১-২০২২ শিক্ষাবর্ষে ভর্তি প্রক্রিয়ায় এসএসসি ও দাখিল পর্যায়ের বিজ্ঞান বিভাগ ব্যতিত মানবিক ও বাণিজ্যিক শাখার শিক্ষার্থীদের জন্য কারিগরি শিক্ষা বোর্ডের মেকআপ পদ্ধতি চালু করা হচ্ছে। কারিগরিতে ডিপ্লোমা ইঞ্জিনিয়ারিং কোর্সে বিভাগভিত্তিক অভিন্ন প্রশ্নে ভর্তি পরীক্ষা নেওয়ার দাবি জানানো হয়েছে। ভর্তি সংক্রান্ত নীতিমালায় যে পরিবর্তন আনা হয়েছে সেভাবে ভর্তি করলে কারিগরি থেকে অনেক শিক্ষার্থী মুখ ফিরিয়ে নেবে বলে মনে করেন প্রাইভেট পলিটেকনিক উদ্যোক্তা সমিতি। শনিবার ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটিতে (ডিআরইউ) এক সংবাদ সম্মেলনে এমন দাবি জানানো হয়।

লিখিত বক্তব্যে সংগঠনের সভাপতি ইঞ্জিনিয়ার মো. শামসুর রহমান বলেন, চার বছর মেয়াদি ডিপ্লোমা ইঞ্জিনিয়ারিং কোর্সে ভর্তি সংক্রান্ত নীতিমালায় পরিবর্তন আনা হয়েছে। নীতিমালায় বিজ্ঞান ছাড়া অন্য বিভাগে ভর্তির জন্য তিন সপ্তাহ ক্লাস করে যোগ্যতা অর্জন করতে বলা হয়েছে। এটি বাস্তবায়ন করা কঠিন হয়ে পড়বে। একই নীতিতে সব বিভাগের শিক্ষার্থী ভর্তি না করালে অনেকে জটিলতার কারণে কারিগরিতে ভর্তি হওয়া থেকে মুখ ফিরিয়ে নেবে।

তিনি বলেন, দেশের ৪১টি সরকারি পলিটেকনিক ও পাঁচ শতাধিক বেসরকারি পলিটেকনিক ইনস্টিটিউটে চার বছর মেয়াদি ডিপ্লোমা ইঞ্জিনিয়ারিং কোর্সে কারিগরি শিক্ষা অ্যাক্ট অনুযায়ী এসএসসি উত্তীর্ণ শিক্ষার্থীদের ভর্তি সুযোগের বিধান আছে। ১৯৫৫ সাল থেকে ইঞ্জিনিয়ারিং কোর্সের এসএসসি বিজ্ঞান, বাণিজ্যিক, মানবিক থেকে পাস করা শিক্ষার্থীরা ভর্তি হয়ে ডিপ্লোমা প্রকৌশলী হচ্ছেন।

সংবাদ সম্মেলন থেকে আরও জানানো হয়, দেশে কারিগরি-বৃত্তিমূলক শিক্ষায় শিক্ষার্থীরা আশানুরূপ আগ্রহী হয়ে ওঠে না। সেক্ষেত্রে নতুন পদ্ধতি যদি চালু হয় তাহলে ভর্তিতে বিপর্যয় নেমে আসবে। সরকারি-বেসরকারি পলিটেকনিকে বিপুল পরিমাণ আসন শূন্য থাকবে, সরকারের এ শিক্ষায় এনরোলমেন্ট বাড়ানোর পরিকল্পনা ব্যর্থ হবে। বিপুল-সংখ্যক শিক্ষার্থী এ ধরনের বিড়ম্বনামূলক ব্যবস্থার কারণে কারিগরি শিক্ষার পরিবর্তে সাধারণ শিক্ষায় চলে যাবে। ফলে দেশে শিক্ষিত বেকার তৈরি হবে, সমাজে অস্থিরতা সৃষ্টির কারণে দেশের ইঞ্জিনিয়ারিং কর্মক্ষেত্রে দক্ষ জনবলের অভাব দেখা দেবে, আরও বেশি করে বিদেশ থেকে দক্ষ জনবল এসে দেশের বিপুল পরিমাণ অর্থ নিয়ে যাবে। চতুর্থ শিল্প-বিপ্লবের চ্যালেঞ্জ মোকাবিলায় দেশ সংকটে পড়বে, অর্থনৈতিকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হবে ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা তথা সরকারের কারিগরি শিক্ষা সম্প্রসারণের পরিকল্পনা বাধাগ্রস্ত হবে।

এ সময় আরও উপস্থিত ছিলেন সংগঠনের সহ-সভাপতি আহসান হাবীব, সাধারণ সম্পাদক সোহেলী ইয়াসমিন প্রমুখ

/এমএইচ/




http://www.shomoyeralo.com/ad/BD Sports News.gif

সর্বশেষ সংবাদ

সর্বাধিক পঠিত


ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: কমলেশ রায়, আমিন মোহাম্মদ মিডিয়া কমিউনিকেশন লিমিটেড
এর পক্ষে প্রকাশক গাজী আহমেদ উল্লাহ
নাসির ট্রেড সেন্টার, ৮৯, বীর উত্তম সি আর দত্ত সড়ক (সোনারগাঁও রোড), বাংলামোটর, ঢাকা।

ফোন : +৮৮-০২-৯৬৩২৩৬৮-৭৪, ফ্যাক্স : +৮৮-০২-৯৬৩২৩৭৫। ই-মেইল : [email protected]