ই-পেপার বিজ্ঞাপনের তালিকা শনিবার ৩ ডিসেম্বর ২০২২ ১৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৯
ই-পেপার শনিবার ৩ ডিসেম্বর ২০২২
https://www.shomoyeralo.com/ad/Amin Mohammad City (Online AD).jpg

বইমেলায় ক্ষুদ্র নৃগোষ্ঠীর বই
ঢাবি প্রতিনিধি
প্রকাশ: সোমবার, ১৪ মার্চ, ২০২২, ৪:৫৯ পিএম আপডেট: ১৪.০৩.২০২২ ৫:০৫ পিএম | অনলাইন সংস্করণ  Count : 448

বাঙালির প্রাণের মেলা অমর একুশে গ্রন্থমেলা প্রায় শেষের দিকে। করোনা মহামারির কারণে গত বছর মেলা হয়েছিল অনেকটাই অগোছালো, জরাজীর্ণ। তবে অন্যবারের চেয়ে এবারের বইমেলা বেশ জমজমাট। প্রতিদিনই মেলা ঘুরে দেখা গেছে পাঠকদের বই কেনা, পড়া ও প্রিয়জনকে উপহার দেওয়ার হিড়িক। দেশসেরা প্রকাশনীগুলোও প্রকাশ করেছেন পাঠক চাহিদায় থাকা নানা বিষয়ের বই। এগুলোর মধ্যে রয়েছে দেশের অবহেলিত ক্ষুদ্র নৃগোষ্ঠীকে নিয়ে লেখা বইও।

রোববার বইমেলা ঘুরে দেখা যায়, কয়েক বছর ধরে নৃগোষ্ঠীদের নিজস্ব কয়েকটি প্রকাশনী মেলার সোহরাওয়ার্দী উদ্যান অংশে স্থান পেলেও এ বছর নেই সেসব প্রকাশনী। মেলার তথ্যকেন্দ্র বলছে, নৃগোষ্ঠীকে নিয়ে লেখা বই প্রকাশ করে থাকে মোটা দাগে ৪ থেকে ৫টি প্রকাশনী। এগুলোর মধ্যে মাওলা বাদার্স, গতিধারা ও শোভা প্রকাশ উল্লেখযোগ্য।

ক্ষুদ্র নৃগোষ্ঠীকে নিয়ে মাওলা ব্রাদার্স থেকে প্রকাশিত বই রয়েছে ১৫টি। তবে এগুলোর মধ্যে অধিকাংশ বই লিখেছেন বাঙালি লেখকরা। এগুলোর মধ্যে রয়েছে- ড. মুস্তাফা মজিদ সম্পাদিত ‘আদিবাসী সংস্কৃতি’, ‘মারমা জাতিসত্তা’, ‘আদিবাসী রাখাইন’, ‘বাংলাদেশের মঙ্গোলীয় আদিবাসী’, ‘দ্য রাখাইনস’, ‘গারো জাতিসত্তা’, ‘হাজং জাতিসত্তা’, মাহমুদা ইসলামের ‘সমাজ ও ধর্ম’, ড. রতন লাল চক্রবর্তীর ‘সিলেটের নিঃস্ব আদিবাসী পাত্র’, কাবেদুল ইসলামের ‘প্রাচীন বাংলার জনপদ ও জনজাতিগোষ্ঠী’, সেলিনা হোসেনের ‘আদিবাসীদের মেঘ ও শিশির’, ‘মাযহারুল ইসলাম তরুর ‘আদিবাসী লোকজীবন’, শোভা ত্রিপুরার ‘ত্রিপুরাজাতি’, সৌরভ সিকদারের ‘বাংলাদেশের আদিবাসী : ভাষা সংস্কৃতি-অধিকার’ ও মনোয়ার আহমদের লেখা ‘বাংলাদেশের উপজাতীয় সংস্কৃতি’।

শোভা প্রকাশে রয়েছে সাইফুল আহসান বুলবুলের লেখা ‘বাংলাদেশের সমতল ভূমির নৃতাত্ত্বিক জনগোষ্ঠী’, ‘বাংলাদেশের রাখাইন জনগোষ্ঠী’, ‘বাংলাদেশের পার্বত্যাঞ্চলের নৃতাত্ত্বিক জনগোষ্ঠী’, আলী আহাম্মদ খানের ‘গারো পাহাড় অঞ্চলের আদিবাসী’, ‘বাংলাদেশের হাজং সম্প্রদায়’, ‘গারো সম্প্রদায় : ধর্মের উৎস ও প্রভাব’, ড. মাজহারুল ইসলাম তরুর ‘গারো সম্প্রদায় : সমাজ ও সংস্কৃতি’, ‘গারো ও হাজং সম্প্রদায়ের লোকসাহিত্য’ ও নাজমুন নাহার লাইজু রচিত ‘বাংলাদেশের বেদে সম্প্রদায়’।

গতিধারা প্রকাশনী থেকে বের হয়েছে বিলু কবীরের সম্পাদনায় ‘আদিবাসী ভূমি ও সঙ্গত প্রসঙ্গ’। ব্যবস্থাপক মাসুদ বলেন, ক্ষুদ্র নৃগোষ্ঠীকে নিয়ে লেখার চাহিদা আছে মোটামুটি। তবে অনলাইনে রকমারিতে আমাদের বইগুলো পাওয়া যায়। সেখানেই বেশি বিক্রি হয় বইটি। নন্দিতা প্রকাশে রয়েছে দুটি বই। এগুলো হলো- গারো থিওফিল নকরেকের লেখা ‘গারো সংস্কৃতির জীবনবাদ পর্যালোচনা’ ও ‘গারোদের অধিকার আদায়ের সংগ্রাম-যুগের দাবি’। গারো সংস্কৃতির জীবনবাদ পর্যালোচনা বইটি বেশ ভালোই বিক্রি হচ্ছে বলে জানান বিক্রয় প্রতিনিধি সাকিল আহসান।

অন্যদিকে গণপ্রকাশনে নৃগোষ্ঠীকে নিয়ে লেখা বই রয়েছে শুধু একটি। তবে আবদুস সাত্তার লিখিত দলিতদ্রোহী ড. আম্বেদকর বইটি ব্যাপক সাড়া ফেলেছে বলে জানান বিক্রয়কর্মী সাদাত। গণপ্রকাশনের প্রকাশকের বক্তব্য, বাংলাদেশে ছোট-বড় প্রায় আশিটি সম্প্রদায় রয়েছে যারা দলিত বলে পরিচিত। এসব দলিত জনগোষ্ঠীর সংখ্যা প্রায় ৬০ লাখ। মোগল ও ইংরেজ শাসকরা ভারতের বিভিন্ন অঞ্চল থেকে এদের পূর্বপুরুষদের এ দেশে নিয়ে আসে। আজীবন তারা রাষ্ট্রীয় ও সামাজিকভাবে নানা বৈষম্য, নিপীড়ন-নির্যাতনের শিকার। দীর্ঘকাল তারা মানবেতর জীবনযাপন করছে। ‘সবার উপরে মানুষ সত্য তাহার উপরে নাই’- এই চিরন্তন সত্যটি আধুনিক সভ্যতার যুগে দলিতদের জন্য এক নির্মম উপহাস। দলিতদ্রোহী ড. আম্বেদকরের বইটি দলিতদের জীবনের এক করুণ অথচ বাস্তব আলেখ্য। দলিতদের প্রতিভূ ড. আম্বেদকর তাদের জীবনমান উন্নয়ন ও রাষ্ট্রীয় স্বীকৃতির জন্য যে আন্দোলন-সংগ্রাম ও ত্যাগের স্বাক্ষর রেখেছেন, ভারতবর্ষের ইতিহাসে তা চিরস্মরণীয় হয়ে থাকবে। তাছাড়া এ দেশের দলিতদের সমস্যা, সঙ্কট, দাবি, অধিকারের বিষয়টি লেখক অত্যন্ত নিপুণভাবে ফুটিয়ে তুলেছেন এই গ্রন্থে।

রোববার অমর একুশে গ্রন্থমেলার ২৭তম দিনে নতুন বই এসেছে ৬৮টি। বিকাল ৪টায় বইমেলার মূলমঞ্চে অনুষ্ঠিত হয় তফাজ্জল হোসেন মানিক মিয়া : নির্ভীক সাংবাদিকতার পথিকৃৎ শীর্ষক আলোচনা অনুষ্ঠান। প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন দেলওয়ার হাসান। আলোচনায় অংশগ্রহণ করেন মোফাকখারুল ইকবাল, মো. মিনহাজ উদ্দীন এবং শেখ আদনান ফাহাদ। সভাপতিত্ব করেন আবেদ খান।
এএসপি আনিসুল করিম হত্যা মামলা

/আরএ


আরও সংবাদ   বিষয়:  বইমেলা   ক্ষুদ্র নৃগোষ্ঠীর বই  




https://www.shomoyeralo.com/ad/Google-News.jpg

সর্বশেষ সংবাদ

সর্বাধিক পঠিত


ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: কমলেশ রায়, আমিন মোহাম্মদ মিডিয়া কমিউনিকেশন লিমিটেড
এর পক্ষে প্রকাশক গাজী আহমেদ উল্লাহ
নাসির ট্রেড সেন্টার, ৮৯, বীর উত্তম সি আর দত্ত সড়ক (সোনারগাঁও রোড), বাংলামোটর, ঢাকা।

ফোন : +৮৮-০২-৯৬৩২৩৬৮-৭৪, ফ্যাক্স : +৮৮-০২-৯৬৩২৩৭৫। ই-মেইল : shomoyeralo@gmail.com