ই-পেপার বিজ্ঞাপনের তালিকা মঙ্গলবার ৫ জুলাই ২০২২ ২১ আষাঢ় ১৪২৯
ই-পেপার মঙ্গলবার ৫ জুলাই ২০২২
http://www.shomoyeralo.com/ad/Amin Mohammad City (Online AD).jpg

রাজধানীবাসীকে জলাবদ্ধতা থেকে রক্ষা করুন
মাহবুবউদ্দিন চৌধুরী
প্রকাশ: মঙ্গলবার, ২৪ মে, ২০২২, ৬:১৭ পিএম | অনলাইন সংস্করণ  Count : 80

বর্ষা পুরোপুরিভাবে আসার আগেই এই কয়েকদিনের বৃষ্টি শুধু রাজধানী কেন, চট্টগ্রাম-সিলেট নগরীর জলবদ্ধতার কারণে জনজীবন বিপর্যস্ত। ঢাকা শহরের পুরান ঢাকা কেন, নতুন ঢাকার অবস্থা আরও বেহাল। নগরীর খাল, বিল, পুকুর, নালা, নর্দমা সবকিছুই এখন ভরাট। যেসব ওপেন ড্রেন নগরীতে নতুন করে তৈরি করা হয়েছে সেগুলোর অবস্থা আরও করুণ। ময়লায় ভরে যাওয়ায় এগুলো এখন কোনো কাজেই আসছে না। জলবদ্ধতার পাশাপাশি রাজধানীর রাস্তাগুলোর অবস্থা করুণ ও শোচনীয়। ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের তদারকি ও মনিটরিংয়ের অভাবে জলবদ্ধতার কোনো সমাধানের মুখ দেখছে না পুরান ঢাকার মানুষ।

সংস্কারের অভাবে বহু সড়ক থেকে পিচ-কংক্রিট উঠে গেছে। পানি নিষ্কাশনের ব্যবস্থা না থাকার ফলে নগরীর রাস্তাঘাট ভেঙে পরিসর ছোট হয়েছে। বৃষ্টি ও জলবদ্ধতায় রাস্তায় গর্তের সৃষ্টি হয়েছে। এতে পানি জমে রাস্তাগুলো আরও খারাপ হয়েছে। শুকনো অবস্থায় এসব ভাঙা রাস্তাগুলো সংস্কার করা হলে অন্তত গোটা রাস্তা রক্ষা করা সম্ভব হতো। ঢাকা ও চট্টগ্রামের জলবদ্ধতায় প্রধান সড়ক শুধু নয়, বিভিন্ন এলাকার অলিগলি তলিয়ে যায় পানিতে। এতে অসহনীয় যানজটে নাগরিক ভোগান্তি বাড়ে। বর্ষা মৌসুম আসার আগেই এভাবে জলবদ্ধতা সৃষ্টি হওয়ায় উদ্বেগ ও উৎকণ্ঠার মধ্যে রয়েছে ঢাকা, চট্টগ্রাম ও সিলেট নগরবাসী। 

ঢাকা ওয়াসার কাছ থেকে অল্প কিছুদিন আগে রাজধানীর খালগুলোর দায়িত্ব নিয়েছে দুই সিটি করপোরেশন। কয়েকদিন লোক দেখানো কাজ করে নিশ্চুপ রাজধানীর দুই সিটি মেয়র। বলা বাহুল্য নির্দিষ্ট কিছু খাল বা বক্স কালভার্ট পরিষ্কার করলেই যে জলবদ্ধতা দূর হবে তা নয়। পর্যায়ক্রমে সব খাল দখলমুক্ত করে তা সম্পূর্ণভাবে নিষ্কাশন করতে হবে। তবে রাজধানীর জলবদ্ধতার পানি বিনা বাধায় সরে যাওয়ার জন্য। এ জন্য সবার আগে বুড়িগঙ্গা নদী সংস্কার করা দরকার। নদীটির এখন আর প্রাণ নেই। নিয়মিত খনন ও নদীর দুই তীর দখলমুক্ত করা এবং নদীর সৌন্দর্য বৃদ্ধির জন্য সরকারকে প্রথম উদ্যোগ নিতে হবে।

বুড়িগঙ্গা নদী হতে বর্জ্য অপসারণ ও অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদসহ রাজধানীর ভেতরে জমে থাকা পানি দ্রুত নদীতে যাওয়ার জন্য পাম্প হাউসগুলো চালু রাখতে হবে। ঢাকা ও চট্টগ্রামে জলবদ্ধতা দীর্ঘ কয়েক যুগের সমস্যা। সরকারের সহযোগিতায় যদি সিটি করপোরেশন কর্তৃপক্ষ কার্যকর উদ্যোগ নিলে দ্রুত এ সঙ্কটের সমাধান সম্ভব। ক্ষমতায় আসার আগে সব মেয়রই জলবদ্ধতা দূর করা বা নগরবাসীদের মুক্তির কথা শুনিয়ে থাকেন। এখন সামান্য বৃষ্টিতে চলাফেরায় সমস্যায় পড়তে হচ্ছে। পাশাপাশি যানবাহন ও পথচারীদের সীমাহীন কষ্ট নগরবাসীকে ব্যথিত করছে। ড্রেনের নোংরা ও দুর্গন্ধযুক্ত পানি বাড়িঘরে ঢুকছে। পুরান ঢাকার অবস্থা আরও শোচনীয়। জলবদ্ধতায় ওয়াসার ম্যানহোলগুলোর নোংরা পানিতে পুরান ঢাকার রাস্তাঘাট সয়লাব। স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয় কোনোভাবেই নগরীর জলবদ্ধতার দায় এড়াতে পারে না। আশা করছি, শিগগিরই এ বিষয়ে কার্যকর ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

ফরিদাবাদ, গেণ্ডারিয়া, ঢাকা

আরএস/ 

http://www.shomoyeralo.com/ad/Local-Portal_Send-Money_728-X-90.gif



http://www.shomoyeralo.com/ad/Google-News.jpg

সর্বশেষ সংবাদ

সর্বাধিক পঠিত


ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: কমলেশ রায়, আমিন মোহাম্মদ মিডিয়া কমিউনিকেশন লিমিটেড
এর পক্ষে প্রকাশক গাজী আহমেদ উল্লাহ
নাসির ট্রেড সেন্টার, ৮৯, বীর উত্তম সি আর দত্ত সড়ক (সোনারগাঁও রোড), বাংলামোটর, ঢাকা।

ফোন : +৮৮-০২-৯৬৩২৩৬৮-৭৪, ফ্যাক্স : +৮৮-০২-৯৬৩২৩৭৫। ই-মেইল : [email protected]