ই-পেপার মঙ্গলবার ২৮ নভেম্বর ২০২৩
মঙ্গলবার ২৮ নভেম্বর ২০২৩

বিপিসির লাভের টাকা গেল কোথায়, প্রশ্ন সিপিডির
নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশ: বুধবার, ১০ আগস্ট, ২০২২, ২:৪৩ পিএম  (ভিজিট : ৪৩৭)
২০১৪-১৫ অর্থবছর থেকে গত অর্থবছরের মে মাস পর্যন্ত প্রায় ৮ বছরে ৪৮ হাজার ১২১ কোটি টাকা লাভ করেছে বাংলাদেশ পেট্রোলিয়াম কর্পোরেশন (বিপিসি)। যার মধ্যে সরকার নিয়েছে ১০ হাজার কোটি টাকা। তাহলে বাকি টাকা কোথায় গেল বলে প্রশ্ন তুলেছেন সিপিডির গবেষণা পরিচালক খন্দকার গোলাম মোয়াজ্জেম। 

বুধবার(১০ আগস্ট) রাজধানীর ধানমন্ডিতে সেন্টার পলিসি ডায়লগের (সিপিডি) কার্যালয়ে ‌‘জ্বালানি তেলের অস্বাভাবিক মূল্যবৃদ্ধি এখন এড়ানো যেত কি?’ শীর্ষক আলোচনা তিনি এ প্রশ্ন তোলেন।

অর্থ মন্ত্রণালয়ের তথ্য তুলে ধরে খন্দকার গোলাম মোয়াজ্জেম বলেন, ২০১৫ সালে ৪ হাজার ১২৬ কোটি, ২০১৬ সালে ৯ হাজার ৪০, ২০১৭ সালে ৮ হাজার ৬৫৩, ২০১৮ সালে ৫ হাজার ৬৪৪ কোটি টাকা লাভ করেছে বিপিসি। এছাড়া ২০১৯ সালে ৪ হাজার ৭৬৮, ২০২০ সালে ৫ হাজার ৬৭ এবং ২০২১ সালে বিপিসি জ্বালানি তেল বিক্রি করে ৯ হাজার ৫৫৯ কোটি টাকা লাভ করেছ। বিপিসি সব সময় জ্বালানি তেল বিক্রি করে লাভ করেছে তাহলে এখন কেন ভর্তুকি তুলে নেয়া হলো? 

তিনি বলেন, ১০ হাজার কোটি টাকা সরকার নিয়েছে। বাকি ৩৬ হাজার কোটি টাকা কোথায় গেল? শুনেছি প্রকল্প বাস্তবায়নে কিছু টাকা খরচ করছে। আমরা দেখছি বিপিসি নাকি সব থেকে ধনী গ্রাহক। বিপিসির ২৫ হাজার কোটি টাকা অ্যাকাউন্টে রাখা হয়েছে। তাহলে এসব টাকা কার? বিপিসি চাইলে এই সংকট সময়ে জ্বালানি তেলের ভর্তুকি অব্যাহত রাখতে পারতো।

বুয়েটের সাবেক অধ্যাপক ও জ্বালানি ও টেকসই উন্নয়ন বিশেষজ্ঞ ড. ইজাজ হোসেন বলেন, আমরা অর্থনৈতিকভাবে সবচেয়ে খারাপ সময়ে আছি। এই সময়ে সরকার কিভাবে কোন কিছু না বিবেচনা করে জ্বালানি তেলের দাম এত বাড়ালো সেটা আমার বুঝে আসে না। জ্বালানি তেলে কর কমিয়েও সরকার দাম স্বাভাবিক রাখতে পারতো।

তিনি বলেন, সাবসিডি কেউই পছন্দ করে না। কিন্তু সরকার হঠাৎ করে জনগণের ওপর এত চাপ দেওয়ার চিন্তা কিভাবে করলো। আমরা যখন অর্থনৈতিক বিভিন্ন সমস্যায় জর্জরিত তখন এই দাম বাড়ানো হলো। 

সিপিডির নির্বাহী পরিচালক ড. ফাহমিদা খাতুনের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে আরও উপস্থিত ছিলেন কৃষি মন্ত্রণালয়ের সাবেক সচিব আনোয়ার ফারুক, সিপিডির গবেষণা পরিচালক খন্দকার গোলাম মোয়াজ্জেম, যাত্রী কল্যান সমিতির মহাসচিব মোজাম্মেল হক চৌধুরী, বিকেএমইএর সহ-সভাপতি ফজলে শামীম এহসান।

এফএইচ




সর্বশেষ সংবাদ

সর্বাধিক পঠিত


ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: কমলেশ রায়, আমিন মোহাম্মদ মিডিয়া কমিউনিকেশন লিমিটেড
এর পক্ষে প্রকাশক গাজী আহমেদ উল্লাহ
নাসির ট্রেড সেন্টার, ৮৯, বীর উত্তম সি আর দত্ত সড়ক (সোনারগাঁও রোড), বাংলামোটর, ঢাকা।

ফোন : +৮৮-০২-৯৬৩২৩৬৮-৭৪, ফ্যাক্স : +৮৮-০২-৯৬৩২৩৭৫। ই-মেইল : shomoyeralo[at]gmail.com