ই-পেপার বিজ্ঞাপনের তালিকা মঙ্গলবার ৬ ডিসেম্বর ২০২২ ২১ অগ্রহায়ণ ১৪২৯
ই-পেপার মঙ্গলবার ৬ ডিসেম্বর ২০২২
https://www.shomoyeralo.com/ad/Amin Mohammad City (Online AD).jpg

ব্যাংক রেমিট্যান্স আনবে ১০৭ টাকা ৫০ পয়সায়
প্রবাসী আয় ডলারপ্রতি কমলো ৫০ পয়সা
নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশ: মঙ্গলবার, ২৭ সেপ্টেম্বর, ২০২২, ৬:২৩ এএম | অনলাইন সংস্করণ  Count : 123

ডলারের সঙ্কট নিরসনে প্রবাসী আয়ে ৫০ পয়সা কমিয়ে নতুন দাম নির্ধারণ করেছে ব্যাংকগুলো। এখন থেকে ব্যাংকগুলো প্রবাসী আয় আনার ক্ষেত্রে সর্বোচ্চ দাম দিতে পারবে ১০৭ টাকা ৫০ পয়সা। আগে এ দর ছিল ১০৮ টাকা। রফতানির ক্ষেত্রে পূর্বের সিদ্ধান্ত বহাল রয়েছে। প্রবাসী আয়ের নতুন এ দর অক্টোবরের ১ তারিখ থেকে কার্যকর হবে। ব্যাংকের শীর্ষ নির্বাহীদের সংগঠন অ্যাসোসিয়েশন অব ব্যাংকার্স বাংলাদেশ এবিবি) ও বাংলাদেশ ফরেন এক্সচেঞ্জ ডিলারস অ্যাসোসিয়েশনের (বাফেদা) শীর্ষ নেতারা সোমবার (২৬ সেপ্টেম্বর) এক সভায় নতুন এ সিদ্ধান্ত নেন। এতে ব্যাংক খাতের শীর্ষ নির্বাহীরা উপস্থিত ছিলেন। সোনালী ব্যাংকের মতিঝিলের প্রধান কার্যালয়ে এ সভা অনুষ্ঠিত হয়।  

১ অক্টোবর থেকে ব্যাংকগুলো প্রবাসী আয়সহ বিভিন্ন আয় আনতে প্রতি ডলারের জন্য সর্বোচ্চ দাম দিতে পারবে ১০৭ টাকা ৫০ পয়সা। আর রফতানি আয় নগদায়ন করতে হবে সর্বোচ্চ ৯৯ টাকা দামে। ফলে প্রতি ডলারের গড়ে খরচ পড়ছে ১০৩ টাকা ২৫ পয়সা। এর চেয়ে সর্বোচ্চ এক টাকা বেশি অর্থাৎ ১০৪ টাকা ২৫ পয়সা দামে আমদানি ঋণপত্র নিষ্পত্তিতে ডলারের দাম ধরতে পারবে ব্যাংকগুলো।

সভা শেষে বাফেদা ও সোনালী ব্যাংকের ব্যবস্থাপনা পরিচালক আফজাল করিম জানান, বৈঠকে শুধু রেমিট্যান্স কেনার ক্ষেত্রে পূর্বের দাম সংশোধন করা হয়েছে। বাকিগুলোতে কোনো পরিবর্তন আসেনি। এখন ১০৭ টাকা ৫০ পয়সায় রেমিট্যান্স এবং ৯৯ টাকায় রফতানি বিল সংগ্রহ করবে ব্যাংক। আন্তব্যাংক ডলার লেনদেনের ক্ষেত্রে দুই দামের মধ্যবর্তী একটি সংখ্যা নির্ধারণ করা হয়েছে। নতুনভাবে নির্ধারিত দাম অনুযায়ী রেমিট্যান্স ও রফতানি বিলের গড় ১০৩ টাকা ২৫ পয়সা। তবে ব্যাংকগুলো চাইলে এই দলের সঙ্গে এক টাকা লাভ করে ১০৪ টাকা ২৫ পয়সায় অন্য ব্যাংকের কাছে ডলার বিক্রি করতে পারবে। এই সিদ্ধান্ত বাস্তবায়ন হবে আগামী ১ অক্টোবর থেকে।

এর আগে সরবরাহে টান পড়ে চাহিদা বাড়লে গত বছরের মাঝামাঝি সময় থেকে ডলারের দর বাড়তে থাকে। আর চলতি বছরের মার্চের পর থেকে সঙ্কট তীব্র হলে ক্রমেই আকাশচুম্বী হতে থাকে প্রধান এ বিদেশি মুদ্রার দর। এরপর অস্থিরতা কমাতে নীতি সিদ্ধান্তসহ বেশকিছু পদক্ষেপ নেয় বাংলাদেশ ব্যাংক।
ডলারের দাম স্থিতিশীল রাখতে হিমশিম খেতে হচ্ছে কেন্দ্রীয় ব্যাংককে। ইতোমধ্যে প্রতি ডলারের দাম ৮৬ থেকে বাড়িয়ে ৯৬ টাকায় নির্ধারণ করা হয়েছে। যদিও ব্যাংকগুলোয় ডলার কেনাবেচা হচ্ছে আরও অনেক দামে। তবে গতকাল বাণিজ্যিক ব্যাংকগুলো আমদানি পর্যায়ে ডলারের দাম নিয়েছে ১০৪ টাকা ৭৫ পয়সা। আর নগদ ডলার বিক্রি করছে ১০৬ থেকে ১০৭ টাকা।


আরও সংবাদ   বিষয়:  প্রবাসী আয়  




https://www.shomoyeralo.com/ad/Google-News.jpg

সর্বশেষ সংবাদ

সর্বাধিক পঠিত


ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: কমলেশ রায়, আমিন মোহাম্মদ মিডিয়া কমিউনিকেশন লিমিটেড
এর পক্ষে প্রকাশক গাজী আহমেদ উল্লাহ
নাসির ট্রেড সেন্টার, ৮৯, বীর উত্তম সি আর দত্ত সড়ক (সোনারগাঁও রোড), বাংলামোটর, ঢাকা।

ফোন : +৮৮-০২-৯৬৩২৩৬৮-৭৪, ফ্যাক্স : +৮৮-০২-৯৬৩২৩৭৫। ই-মেইল : shomoyeralo@gmail.com