ই-পেপার বিজ্ঞাপনের তালিকা বৃহস্পতিবার ৮ ডিসেম্বর ২০২২ ২৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৯
ই-পেপার বৃহস্পতিবার ৮ ডিসেম্বর ২০২২
https://www.shomoyeralo.com/ad/Amin Mohammad City (Online AD).jpg

ঢাকার ছাদগুলো যেন আরেক কাতার
মামুন সোহাগ
প্রকাশ: বুধবার, ২৩ নভেম্বর, ২০২২, ১০:৪২ এএম | অনলাইন সংস্করণ  Count : 81

বিশ্বকাপে নেই বাংলাদেশ। তবুও উন্মাদনার এতটুকুও কমতি নেই ফুটবলপ্রেমীদের। আবাল-বৃদ্ধ-বণিতা সবার মাঝেই উৎসব উৎসব আমেজ বিরাজ করছে। ঢাকার আকাশে পতপত করে উড়ছে ব্রাজিল, আর্জেন্টিনা, জার্মানিসহ পছন্দের বিভিন্ন দেশের পতাকা। ভবনের দেয়ালে-ব্যালকনিতে রয়েছে প্রিয় দলের ব্যানার-গ্রাফিতি। নগরীর যেকোনো এলাকায় তাকালেই মনে হচ্ছে ঢাকা নয়, এটি যেন মরুর দেশ কাতারের কোনো এলাকা।

ফুটবল র‌্যাঙ্কিংয়ে বাংলাদেশের অবস্থান ১৯২ তে থাকলেও ফুটবলপ্রেমীদের উত্তেজনা দেখে বোঝা যায় বিশ্বকাপের জ্বরে কাঁপছে গোটা দেশ। বাসাবাড়ির ছাদ, বারান্দা, পাড়া-মহল্লা কিংবা অলিগলিতেও ছড়িয়ে পড়েছে এই উন্মাদনা।

হাজার হাজার মাইল দূরের দেশের কোনো ফুটবল দল বা খেলোয়াড়ের প্রতি ভক্তি-ভালোবাসা যে কতখানি মজবুত সেটারও প্রমাণ মেলে। খুব দূরে নয়, ঢাকার ভেতরেই ধানমন্ডি, পুরান ঢাকা, মিরপুর, আমিন বাজার, গুলশান, মহাখালী কিংবা পান্থপথ এলাকায় তাকালেই মিলবে ঢাকার ছাদে নান্দনিক পতাকার দৃশ্য।

ঢাকার বিভিন্ন মোড়ে মোড়ে, বাসে হকারিতে, দোকানগুলোতে বিভিন্ন দলের পতাকা, জার্সি, মুখোশের পসরা নিয়ে বসেছেন বিক্রেতারা। তাদের কাছ থেকে কিনে বাড়ির ছাদে প্রিয় দলের পতাকা ওড়াচ্ছেন ফুটবল ভক্তরা।
ফার্মগেট মোড়ে পতাকা বিক্রি করতে দেখা যায় সুরুজ আলীকে। পতাকার দাম বেড়েছে জানিয়ে তিনি বলেন, এবার পতাকা বিক্রি হচ্ছে অনেক। ফুটপাথে, বাসে ঘুরে পতাকা বিক্রি করি। এখানে এত মানুষ কিনবে সেটা প্রথম দিন ভাবিনি। তাই কম এনেছিলাম। সব বিক্রি হয়ে গেছে। এরপর প্রতিদিন বেশি আনছি। পতাকার কাপড়ের ওপর নির্ভর করে দাম রাখা হচ্ছে জানিয়ে তিনি বলেন, ৫০০ থেকে এক হাজার টাকায় ভেতরে বড় পতাকা বিক্রি করছি।

বাংলাদেশে আর্জেন্টিনা ও ব্রাজিলের সমর্থকই বেশি। তৃতীয় সারিতে জার্মানির সমর্থকও কম নয়। বেশিরভাগ সমর্থক বুঁদ হয়ে থাকে মেসি, রোনালদো আর নেইমারকে নিয়ে। সেই দৃশ্যই দেখা গেল আমিনবাজারে। এখানে এমন কোনো ছাদ নেই যেখানে পতাকা উড়ছে না। কথা হচ্ছিল তরুণী সুমাইয়া সাথির সঙ্গে। সময়ের আলোকে তিনি বলেন, ‘আমরা পশ্চিমপাড়ার একটা বাসায় তিন তলাতে থাকি। ছাদে উঠে দেখি বিশাল অবস্থা। কোনো ছাদ খালি নেই। সব ছাদ পতাকায় ছেয়ে গেছে। বেশিরভাগ পতাকা ব্রাজিল আর আর্জেন্টিনার।’

মিরপুরের শেওড়াপাড়া এলাকায় থাকেন শুভ্রা চৌধুরী। তার ভাষ্যে, আমাদের এলাকার ছাদে এবারই প্রথম এত বেশি পতাকা দেখছি। এর আগেও বিশ্বকাপ দেখেছি কিন্তু খেলা নিয়ে এত আমেজ কাজ করেনি। তিনি মনে করেন, এবার সোশ্যাল মিডিয়ার কারণেই হচ্ছে। কারণ মানুষ সহজেই প্রচার করতে পারছে, কে কোন দল সাপোর্ট করে। ঢাকায় এত পতাকা আগে দেখিনি।

খেলা নিয়ে চলে বাকযুদ্ধও বটে। গতকালকের ম্যাচে সৌদির সঙ্গে আর্জেন্টিনার হারের পর বিজয়োল্লাস করে ব্রাজিল সমর্থকেরা। এক সমর্থক বলেন, বরাবরই চেয়েছি ব্রাজিলের সঙ্গে আর্জেন্টিনার খেলা হোক। বাসায় পতাকা টানিয়েছি, জার্সি পরেছি কিন্তু যে হার হারল, তাতে মনে করি আর্জেন্টাইনদের রাতের আঁধারে বাসা থেকে পতাকা নামানো উচিত।

ঢাকা শহরের ছাদগুলোতে যেভাবে পতাকা ছড়িয়ে পড়েছে এটাকে পতাকায় পতাকায় বিশ্বকাপের লড়াই বললেন বেসরকারি প্রতিষ্ঠানে চাকরি করা তারিফুল ইসলাম। তিনি বলেন, ‘দেশের ফুটবলের যে অবস্থা সেটা আরও একবার মনে করিয়ে দেয় অন্য দেশের ফুটবল নিয়ে এত মাতামাতি দেখলে। উত্তরা এলাকার ছাদগুলো যেভাবে পতাকায় ছেয়ে গেছে তাকে বলাই যায় দেশের ফুটবলের কোনো সমর্থন নয়। এটা পতাকায় পতাকায় লড়াই।’

/এমএইচ/




https://www.shomoyeralo.com/ad/Google-News.jpg

সর্বশেষ সংবাদ

সর্বাধিক পঠিত


ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: কমলেশ রায়, আমিন মোহাম্মদ মিডিয়া কমিউনিকেশন লিমিটেড
এর পক্ষে প্রকাশক গাজী আহমেদ উল্লাহ
নাসির ট্রেড সেন্টার, ৮৯, বীর উত্তম সি আর দত্ত সড়ক (সোনারগাঁও রোড), বাংলামোটর, ঢাকা।

ফোন : +৮৮-০২-৯৬৩২৩৬৮-৭৪, ফ্যাক্স : +৮৮-০২-৯৬৩২৩৭৫। ই-মেইল : shomoyeralo@gmail.com