ই-পেপার বিজ্ঞাপনের তালিকা বৃহস্পতিবার ৮ ডিসেম্বর ২০২২ ২৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৯
ই-পেপার বৃহস্পতিবার ৮ ডিসেম্বর ২০২২
https://www.shomoyeralo.com/ad/Amin Mohammad City (Online AD).jpg

মুদ্রা সংকটের উচ্চ ঝুঁকিতে পাকিস্তান
সময়ের আলো অনলাইন
প্রকাশ: বৃহস্পতিবার, ২৪ নভেম্বর, ২০২২, ৪:৩১ পিএম | অনলাইন সংস্করণ  Count : 70

মুদ্রা সংকটের উচ্চ ঝুঁকিতে রয়েছে পাকিস্তান। জাপানের ফিন্যান্সিয়াল কোম্পানি এবং ইনভেস্ট ব্যাংক নমুরা হোল্ডিং এই তথ্য জানান।  তবে পাকিস্তানের পাশাপাশি মিসর, রোম, শ্রীলঙ্কা, তুরস্ক, চেক রিপাবলিক ও হাঙ্গেরিসহ সাতটি দেশ এই ঝুঁকির মধ্যে রয়েছে বলে জানান জাপানের এই ব্যাংক।

ব্যাংক সূত্রে জানা যায়, ৩২টির মধ্যে ২২টি দেশের ‘ড্যামোক্লেস’ সতর্কতা সিস্টেম তদের এই ঝুঁিকর মাত্রা দেখেছে। মে মাসের পর এই তালিকায় সবচেয়ে বেশি ঝুঁকিতে আছে ব্রাজিল ও চেক রিপাবলিক। নিউজ ইন্টারন্যাশনালের মতে, ১৯৯৯ সালের জুলাইয়ের পর এটিই সর্বোচ্চ স্কোর। এ স্কোর এশিয়ান সংকটের শিখর থেকে খুব বেশি দূরে নয়।

নমুরার অর্থনীতিবিদদের মতে, ইএম মুদ্রার এই ক্রমবর্ধমান এই বিস্তৃত ঝুঁকি সতর্কতার অশুভ চিহ্ণ হিসেবে ধরা যায়।

পাকিস্তান স্টেট ব্যাংকের মতে, ০.৪৯ পতনের পর রুপি ২২৩.৬৬ বন্ধ হয়েছে। গত সাতটি ট্রেডিং সেশনে গ্রিনব্যাকের বিপরীতে মুদ্রাটি ২.২৪ টাকা বা ১ শতাংশ হারিয়েছে। চলতি অর্থবছরের প্রথম ত্রৈমাসিকে পাকিস্তানের মোট ঋণ ও দায় পাকিস্তানি রুপি (রুপি) দ্বারা ১২ ট্রিলিয়ন বা ২৩.৭ শতাংশ বেড়েছে। আন্তর্জাতিক মুদ্রা তহবিল থেকে ঋণের লেনদেন এবং রুপির অবমূল্যায়ন সংখ্যাটিকে উল্লেখযোগ্যভাবে ঠেলে দিয়েছে।

বিশ্লেষকদের বরাত দিয়ে নিউজ ইন্টারন্যাশনাল জানিয়েছে, ২০২২-২০২৩ অর্থবছরে জুলাই-সেপ্টেম্বর মাসে ঋণ এবং দায় দাঁড়িয়েছে ৬২.৪৬ ট্রিলিয়ন রুপি যা গত অর্থবছরের চেয়ে বেশি। গত বছর ঋণ এবং দায় ছিলো ৫০.৪৯ ট্রিলিয়ন রুপি। 
দ্য এক্সপ্রেস ট্রিবিউনের এক প্রতিবেদনে প্রকাশিত হয়েছে, পাকিস্তান পাঁচ বছরের ‘সুকুকের’ (শরিয়া-সম্মত বন্ড) এর বিপরীতে ১ বিলিয়ন পরিশোধ করবে। এই চুক্তি চলতি বছরের ৫ ডিসেম্বরে ফাইনাল হওয়ার কথা। টপলাইন রিসার্চ অনুসারে, সুকুকের (রিটার্নের হার) একদিনে ৯৬৪ বেসিস পয়েন্ট বেড়ে ৬৯.৯৬ শতাংশে দাঁড়িয়েছে। 

ডনের এক প্রতিবেদনে জানা যায়, এই অর্থবছরের জন্য চাহিদা এবং আমদানি নিয়ন্ত্রণের পরিপ্রেক্ষিতে রাজস্ব হ্রাস পাচ্ছে। আরেকটি উদ্বেগজনক কারণ হল সাম্প্রতিক মাসগুলোতে পাকিস্তানের রেমিটেন্স সর্বকালের সর্বনিম্ন পর্যায়ে পৌঁছেছে। ২০২২ সালের অক্টোবরে, শ্রমিকদের রেমিট্যান্স ২.২ বিলিয়ন মার্কিন ডলারের প্রবাহ রেকর্ড করেছে যা গত মাসের তুলনায় ৯ শতাংশ হ্রাসের ইঙ্গিত দিয়েছে।

স্টেট ব্যাংক অব পাকিস্তান টুইটে বলেন, এ বছর অক্টোবরে প্রবাসী শ্রমিকদের রেমিট্যান্স ছিলো ২.২ বিলিয়ন মার্কিন ডলার। এর আগের মাসে তা ছিলো ২.৪ বিলিয়ন মার্কিন ডলার। পরিসংখ্যান থেকে দেখা যায়, ২০২৩ সালের জুলাই-অক্টোবর সময়ের মধ্যে ৯.৯ বিলিয়ন মার্কিন ডলারের ক্রমবর্ধমান প্রবাহে গত বছরের তুলনায় রেমিট্যান্স ৮.৬ শতাংশ কমেছে।

/এমএইচ/




https://www.shomoyeralo.com/ad/Google-News.jpg

সর্বশেষ সংবাদ

সর্বাধিক পঠিত


ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: কমলেশ রায়, আমিন মোহাম্মদ মিডিয়া কমিউনিকেশন লিমিটেড
এর পক্ষে প্রকাশক গাজী আহমেদ উল্লাহ
নাসির ট্রেড সেন্টার, ৮৯, বীর উত্তম সি আর দত্ত সড়ক (সোনারগাঁও রোড), বাংলামোটর, ঢাকা।

ফোন : +৮৮-০২-৯৬৩২৩৬৮-৭৪, ফ্যাক্স : +৮৮-০২-৯৬৩২৩৭৫। ই-মেইল : shomoyeralo@gmail.com