ই-পেপার বিজ্ঞাপনের তালিকা সোমবার ২ অক্টোবর ২০২৩ ১৭ আশ্বিন ১৪৩০
ই-পেপার সোমবার ২ অক্টোবর ২০২৩
https://www.shomoyeralo.com/ad/Amin-Mohammad-City-(Online).jpg

https://www.shomoyeralo.com/ad/SA-Live-Update.jpg
লোডশেডিংয়ের প্রতিবাদে সারাদেশে বিএনপির বিদ্যুৎ অফিস ঘেরাও
সময়ের আলো ডেস্ক
প্রকাশ: শুক্রবার, ৯ জুন, ২০২৩, ৬:২৫ এএম | অনলাইন সংস্করণ  Count : 147

ঘন ঘন লোডশেডিংয়ে সৃষ্ট জনদুর্ভোগ এবং বিদ্যুৎ খাতে ‘দুর্নীতির’ প্রতিবাদে রাজধানীসহ সারা দেশে বিদ্যুৎ অফিস ঘেরাও, অবস্থান কর্মসূচি পালন ও স্মারকলিপি প্রদান কর্মসূচি পালন করেছে বিএনপি। এ সময় পাবনায় যুবলীগ-ছাত্রলীগের হামলায় জেলা আহ্বায়কসহ ১০ জন আহত হয়েছেন। ফেনীতে পুলিশের হামলায় আহত হয়েছেন বিএনপির ৫ নেতাকর্মী। ফরিদপুর ও ঝিনাইদহে পুলিশি বাধায় প- হয়ে যায় অবস্থান কর্মসূচি। 

রাজধানীতে বিদ্যুৎ উন্নয়ন বোর্ডের (পিডিবি) চেয়ারম্যান বরাবর স্মারকলিপি দিয়েছে ঢাকা জেলা বিএনপি। মতিঝিলের ওয়াপদা ভবনে পিডিবির অফিসে বৃহস্পতিবার দুপুর সাড়ে ১২টায় স্মারকলিপি দিতে যায় বিএনপির একটি প্রতিনিধি দল। সেখানে বিদ্যুৎ উন্নয়ন বোর্ডের উপ-পরিচালক মমতাজ পারভীন স্মারকলিপি গ্রহণ করেন।

ওই প্রতিনিধি দলে ছিলেন ঢাকা জেলা বিএনপির সভাপতি খন্দকার আবু আশফাক ও সদস্য সচিব নিপুণ রায় চৌধুরী, আবদুস সালাম আজাদ, সুলতানা আহমেদ, দেওয়ান মো. সালাহউদ্দিন।

এক পৃষ্ঠার স্মারকলিপিতে বিদ্যুতের লোডশেডিংয়ে রাজধানীসহ জেলাগুলোতে চরম দুরবস্থার কথা তুলে ধরা হয়। আগে বেলা সাড়ে ১১টায় ঢাকা জেলা বিএনপির কয়েকশ নেতাকর্মী নয়াপল্টনে চায়না মার্কেটের সামনে সমবেত হন। সেখানে বিএনপির জ্যেষ্ঠ যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী সংক্ষিপ্ত বক্তব্য দেন।

পরে সেখান থেকে রিজভী দলীয় নেতাকর্মীদের নিয়ে মিছিল করে আরামবাগের কাছে গেলে পুলিশের বাধার মুখে পড়েন। মিছিলে দলের সাংগঠনিক সম্পাদক আবদুস সালাম আজাদ, স্বেচ্ছাসেবক বিষয়ক সম্পাদক মীর সরাফত আলী সপু, ঢাকা জেলার সাবেক সভাপতি দেওয়ান মো. সালাহউদ্দিন, মহিলা দলের সাধারণ সম্পাদক সুলতানা আহমেদসহ অনেকে ছিলেন।

সেখান থেকে মতিঝিলের ওয়াপদা ভবনে গিয়ে স্মারকলিপি দেন বিএনপি নেতারা। এ সময় রুহুল কবির রিজভী বলেন, প্রধানমন্ত্রী বলেছেন বিদেশি চাপের কাছে তিনি মাথা নত করবেন না, কিন্তু প্রধানমন্ত্রী আপনাকে জনগণের শক্তির কাছেই মাথা নত করতে হবে। আমাদের সীমান্তে যখন আমাদের লোককে গুলি করে তখন তো আপনাকে মাথা উঁচু করে থাকতে দেখি না। একটা প্রতিবাদও আপনাকে করতে দেখি না। রাজধানী ছাড়াও গাইবান্ধা, সিলেট, নারায়ণগঞ্জ, পটুয়াখালী, নোয়াখালী, ফেনীতে ঘেরাও কর্মসূচি পালিত হয়েছে। আমাদের নিজস্ব প্রতিবেদক, ব্যুরো ও প্রতিনিধিদের পাঠানো খবর: 

পাবনা : দেশব্যাপী ‘অসহনীয় লোডশেডিং ও বিদ্যুৎ খাতে ব্যাপক দুর্নীতি’ অনিয়মের প্রতিবাদে কেন্দ্রঘোষিত কর্মসূচির অংশ হিসেবে বিদ্যুৎ অফিসের সামনে বিএনপির অবস্থান ও বিক্ষোভ মিছিল-পরবর্তী পথসভা শেষে ফেরার পথে হামলা চালিয়েছে স্থানীয় যুবলীগ-ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা। এ সময় আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্যদের নীরব ভূমিকা পালন করতে দেখা গেছে। এতে জেলা বিএনপির আহ্বায়ক ও বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা হাবিবুর রহমান হাবিবসহ ১০ আহত হয়েছেন। বৃহস্পতিবার দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে পাবনা শহরের বড় ব্রিজ-সংলগ্ন পথসভা  ঘোড়া স্ট্যান্ড ও পাশে অবস্থিত লতিফ টাওয়ারের সামনে এ ঘটনা ঘটে।

বিএনপির নেতাকর্মী জানান, কেন্দ্রঘোষিত কর্মসূচির অংশ হিসেবে গোপালপুরস্থ জেলা বিএনপির নেতাকর্মীরা একটি বিক্ষোভ মিছিল নিয়ে শহরের পাওয়ার হাউস বিদ্যুৎ অফিসের দিকে রওনা হয়। কিন্তু পথের মধ্যে বড় ব্রিজের মাথায় পুলিশ তাদের বাধা দেয়। এ সময় পুলিশের সঙ্গে নেতাকর্মীদের বাকবিত-া হয়। পরে সিনিয়র নেতাদের হস্তক্ষেপে নেতাকর্মীরা শান্ত হন। পরে বড় ব্রিজের পাশে ঘোড়া স্ট্যান্ডে সংক্ষিপ্ত পথ সমাবেশ করেন।

এদিকে একই সময়ে পাবনা স্থানীয় যুবলীগ-ছাত্রলীগ ও স্বেছাসেবক লীগের নেতাকর্মীরা ট্রাফিক মোড়ে অবস্থান নেন। বিএনপির নেতাকর্মীরা সমাবেশ শেষে ফেরার পথে লতিফ টাওয়ার সামনে এলে ট্রাফিক মোড়ে অবস্থান নেওয়া যুবলীগ-ছাত্রলীগ ও স্বেচ্ছাসেবক লীগের নেতাকর্মীরা তাদের ওপর হামলা চালান। এ সময় জেলা বিএনপির আহ্বায়ক ও বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা হাবিবুর রহমান হাবিব, সিনিয়র যুগ্ম-আহবায়ক আব্দুস সামাদ খান মন্টুসহ ১০/১২ আহত হন। এই হামলার ঘটনায় জেলা স্বেচ্ছাসেবক দলের আহ্বায়ক ইয়ামিন খান ছুরিকাঘাতে গুরুতর আহত হলে তাকে পাবনা জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। অবস্থার অবনতি হলে উন্নত চিকিৎসার জন্য তাকে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয়েছে। 

বিএনপির নেতাকর্মীরা পাশের লতিফ টাওয়ার মার্কেটে আত্মরক্ষা করলে সেখানেও যুবলীগ-ছাত্রলীগ ও স্বেচ্ছাসেবক লীগের নেতাকর্মীরা তাদের ওপর হামলা চালান। এ সময় শহরজুড়ে ব্যাপক উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়ে। দোকানপাট বন্ধ হয়ে যায়। হামলার সময় দায়িত্বরত পুলিশ সদস্য উপস্থিত থাকলেও তাদের কোনো ভূমিকা নিতে দেখা যায়নি। ছাত্রলীগ-যুবলীগের নেতাকর্মীরা চলে যাওয়ার পর পুলিশ পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে নেন।
এ বিষয়ে জেলা বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম-আহ্বায়ক আবদুস সামাদ খান মন্টু বলেন, আমরা পূর্ব ঘোষিত কর্মসূচির অংশ হিসেবে শান্তিপূর্ণভাবে কর্মসূচি পালন করছিলাম। এ সময় আওয়ামী সন্ত্রাসীবাহিনী অতর্কিতভাবে আমাদের ওপর হামলা চালিয়েছে। 

তবে হামলা করার বিষয়টি অস্বীকার করে জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি রেজাউল রহিম লাল বলেন, আমাদেরও শান্তিসমাবেশ চলছিল। এ সময় বিএনপির নেতাকর্মীরা সেখানে হামলা চালানোর পরিকল্পনা নিয়ে আসার পথে নেতাকর্মীরা তাদের প্রতিহত করেছে মাত্র। 

এ বিষয়ে পাবনার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর সার্কেল) ডিএম হাসিবুল বেনজীর বলেন, ছাত্রলীগ-যুবলীগের সমাবেশের সময় পাশ দিয়ে বিএনপি নেতাকর্মীরা যাওয়ার সময় একটা হট্টগোল হয়েছে। কোনো হামলা হয়েছে কি না আমাদের জানা নেই। 

ফেনী : জেলা বিএনপি মিছিল করার চেষ্টা করলে পুলিশের ধাওয়ায় তা ছত্রভঙ্গ হয়ে যায়। এ সময় পুলিশের পিটুনিতে বিএনপির ৫ নেতাকর্মী আহত হয়েছেন বলে দাবি করে বিএনপি। দুপুরে ফেনী শহরের শহিদ শহীদুল্লা কায়সার সড়কের বিদ্যুৎ উন্নয়ন বোর্ড অফিসের সামনে ফেনী জেলা বিএনপির ‘অবস্থান’ কর্মসূচি পালিত হয়। এ সময় জেলা বিএনপির পক্ষ থেকে নির্বাহী প্রকৌশলীকে স্মারকলিপি প্রদান করা হয়। পরে বিক্ষোভ মিছিল করার সময় এ ঘটনা ঘটে। 

ফেনী জেলা বিএনপির সদস্য সচিব আলাল উদ্দিন আলাল দাবি করেন, শান্তিপূর্ণ অবস্থান কর্মসূচি শেষ করে ফেরার পথে সম্পূর্ণ বিনা উসকানিতে পুলিশ লাঠিচার্জ করে। পুলিশের লাঠির আঘাতে ৫ নেতাকর্মী আহত হন।

আহতরা হলেন-জেলা যুবদলের সভাপতি জাকির হোসেন জসিম, জেলা কৃষক দলের সাধারণ সম্পাদক সামছুদ্দিন খোকন, ফেনী পৌর ছাত্রদলের যুগ্ম আহ্বায়ক শরিফুল ইসলাম রানা, পাঁছগাছিয়া ইউনিয়নের যুবদল কর্মী গিয়াস উদ্দিন ও আবুল কালাম।

ফেনী মডেল থানার পরিদর্শক (তদন্ত) মাহফুজুর রহমান জানান, পুলিশ লাঠিচার্জ করেনি। কেউ যেন বিদ্যুৎ অফিসের দিকে না আসতে পারে সে জন্য সরিয়ে দিয়েছে পুলিশ।

ফরিদপুর : সকাল ১১টায় শহরের থানা রোডস্থ কাঠপট্টিতে অবস্থিত বিএনপির অফিস থেকে একটি মিছিল নিয়ে ঝিলটুলীর বিদ্যুৎ অফিসে যাওয়ার পথে চৌরাস্তায় বাধা প্রদান করে পুলিশ। পরে সেখানেই অবস্থান নেন বিএনপির নেতাকর্মীরা। পরে পুলিশি বাধা উপেক্ষা করে বিএনপির নেতাকর্মীরা মিছিল নিয়ে বিদ্যুৎ অফিসের সামনে গেলে আগে থেকে সেখানে অবস্থান নেওয়া জাতীয় শ্রমিক লীগের সভাপতি গোলাম মো. নাছির ও সাধারণ সম্পাদক ইমান আলী মোল্লার নেতৃত্বে নেতাকর্মীরা বিএনপির মিছিলে বাধা দেওয়ার চেষ্টা করলে পুলিশ দুই পক্ষের মাঝে অবস্থান নেয়। 
ঝিনাইদহ : পুলিশি বাধায় ঝিনাইদহে অবস্থান কর্মসূচি পালন করতে পারেনি বিএনপি। সকালে শহরের বিদ্যুৎ অফিসের পাশে তসলিমা ক্লিনিকের সামনে জড়ো হন বিএনপির নেতাকর্মীরা। সেখান থেকে বিদ্যুৎ অফিসের সামনে অবস্থান নিতে গেলে পুলিশ বাধা দেয়। পুলিশি বাধায় সেখানে বিক্ষোভ সমাবেশ করে তারা। এতে জেলা বিএনপির সভাপতি অ্যাড. এমএ মজিদ, সাধারণ সম্পাদক জাহিদুজ্জামান মনা, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আবদুল মজিদ বিশ্বাসসহ অন্যরা বক্তব্য রাখেন।

মেহেরপুর : বেলা সাড়ে ১১টার দিকে শহরের বোসপাড়াস্থ বিএনপির দলীয় কার্যালয়ের সামনে থেকে একটি বিক্ষোভ মিছিল বের করা হয়। মিছিলটি শহরের প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ শেষে একই স্থানে গিয়ে শেষ হয়। পরে দলীয় কার্যালয়ের সামনে বিক্ষোভ সমাবেশের আয়োজন করা হয়। 

গাইবান্ধা : পুলিশি বাধায় বিএনপি নেতাকর্মীরা বিদ্যুৎ অফিসের সামনে অবস্থান কর্মসূচি করতে না পেরে শহরের সার্কুলার রোডে দলীয় কার্যালয়ের সামনে দুপুর ১২টায় এ কর্মসূচি পালন করেন। 

দিনাজপুর : বিদ্যুৎ অফিসের সামনে বিএনপি অবস্থান কর্মসূচি পালন ও স্মারকলিপি প্রদান করেছে বিএনপি। অবস্থান কর্মসূচিতে জেলা বিএনপি, পৌর বিএনপি, কোতোয়ালি বিএনপির নেতাকর্মীসহ বিএনপির বিভিন্ন অঙ্গসহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মী অংশগ্রহণ করেন।

নারায়ণগঞ্জ : পুলিশের সামনেই শান্তিপূর্ণ অবস্থান কর্মসূচি ও প্রতিবাদ মিছিল করেছে নারায়ণগঞ্জ জেলা বিএনপির অঙ্গ ও সহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মীরা। বেলা সাড়ে ১১টার দিকে জেলার সিদ্ধিরগঞ্জ ডিপিডিসি বিদ্যুৎকেন্দ্রের নির্বাহী প্রকৌশলী (এনওসিএস) অমিত অধিকারীর কার্যালয়ে গিয়ে তার হাতে স্মারকলিপি প্রদান করেন নারায়ণগঞ্জ জেলা বিএনপির সদস্য সচিব গোলাম ফারুক খোকনসহ দলের নেতৃবৃন্দ।

পটুয়াখালী : জেলা বিএনপি এবং অঙ্গ-সংগঠনের নেতৃবৃন্দ পুলিশি বাধার সম্মুখীন হন। বাকবিত-ায় দুই কর্মীকে আটক করে পুলিশ। শহরের ফটিকের খেয়াঘাট এলাকা থেকে একটি বিক্ষোভ মিছিল শুরু করে ওয়েস্ট জোন পাওয়ার ডিস্ট্রিবিউশন কোম্পানি লিমিটেডের কার্যালয় অভিমুখে যাত্রা শুরু করে। মিছিলটি ফায়ার সার্ভিস স্টেশন অতিক্রম করলে পুলিশি বাধার মুখে পড়ে। 

নোয়াখালী : প্রতিবাদে অবস্থান কর্মসূচি শেষে স্মারকলিপি দিয়েছে নোয়াখালী জেলা বিএনপি। দুপুর ১২টার দিকে নোয়াখালী জেলা বিদ্যুৎ কার্যালয়ের সামনে তারা এ কর্মসূচি পালন করে। দুপুর ১টা পর্যন্ত বিদ্যুৎ অফিসের সামনে অবস্থানের পর বিএনপির নেতারা নোয়াখালী বিদ্যুৎ উন্নয়ন বোর্ডের নির্বাহী প্রকৌশলীর কাছে স্মারকলিপি প্রদান করে।

নওগাঁ : বিদ্যুৎ অফিসের সামনে অবস্থান কর্মসূচি পালন করেছে বিএনপি। বৃহস্পতিবার বেলা সাড়ে ১১টা থেকে দুপুর সাড়ে ১২টা পর্যন্ত শহরের কাঁঠালতলী এলাকায় বিদ্যুৎ উপকেন্দ্রের সামনে এ কর্মসূচি পালন করে নওগাঁ জেলা বিএনপি। পরে নর্দান ইলেক্ট্রিসিটি কোম্পানির (নেসকো) নির্বাহী প্রকৌশলীর কাছে স্মারকলিপি প্রদান করে বিএনপির প্রতিনিধি দল। 

সিলেট : বিদ্যুৎ ভবনের সামনে এক ঘণ্টা অবস্থান কর্মসূচি পালন করেছে সিলেট জেলা বিএনপি। দুপুর ১২টা থেকে ১টা পর্যন্ত নগরীর বাগবাড়িতে বিদ্যুৎ ভবনের সামনে এ কর্মসূচি পালিত হয়। এ সময় বিদ্যুৎ ভবনের সামনে বিপুলসংখ্যক পুলিশ মোতায়েন করা হয়।




এই ক্যাটেগরির আরো সংবাদ


https://www.shomoyeralo.com/ad/Google-News-Update.jpg

সর্বশেষ সংবাদ

সর্বাধিক পঠিত


ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: কমলেশ রায়, আমিন মোহাম্মদ মিডিয়া কমিউনিকেশন লিমিটেড
এর পক্ষে প্রকাশক গাজী আহমেদ উল্লাহ
নাসির ট্রেড সেন্টার, ৮৯, বীর উত্তম সি আর দত্ত সড়ক (সোনারগাঁও রোড), বাংলামোটর, ঢাকা।

ফোন : +৮৮-০২-৯৬৩২৩৬৮-৭৪, ফ্যাক্স : +৮৮-০২-৯৬৩২৩৭৫। ই-মেইল : shomoyeralo@gmail.com