ই-পেপার বৃহস্পতিবার ২২ ফেব্রুয়ারি ২০২৪
বৃহস্পতিবার ২২ ফেব্রুয়ারি ২০২৪

আরবি প্রভাষক নিয়োগে ইসলামিক স্টাডিজ বিভাগকে অন্তর্ভুক্তের দাবি
প্রকাশ: মঙ্গলবার, ২৮ নভেম্বর, ২০২৩, ৩:১৩ পিএম  (ভিজিট : ৬৪৬)
মাদ্রাসায় আরবি প্রভাষক নিয়োগে ইসলামিক স্টাডিজ বিভাগকে পুণরায় সংযুক্ত করার দাবিতে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে মানববন্ধন করেছে ইসলামিক স্টাডিজ বিভাগের শিক্ষার্থীরা। মঙ্গলবার (২৮ নভেম্বর) দুপুরে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সন্ত্রাস বিরোধী রাজু ভাস্কর্যের পাদদেশে এ মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়।

মানববন্ধনে ইসলামিক স্টাডিজ বিভাগের মাস্টার্সের শিক্ষার্থী আমির ফয়সাল বলেন, কিছুদিন পুর্বে যে সার্কুলার প্রকাশিত হয়েছে সেখানে মাদরাসা শিক্ষক নিয়োগের ক্ষেত্রে ইসলাম শিক্ষা বিভাগকে বাদ দেওয়া হয়েছে। ইসলামিক আরবি বিশ্ববিদ্যালয় থেকে সুস্পষ্টভাবে বলে দেওয়া হয়েছে যে সেখানে নিয়োগ পরীক্ষার মাধ্যমে যে প্রভাষক নিয়োগ দেওয়া হয় সেখানে ইসলাম শিক্ষা বিভাগের আবেদন করতে পারবে। অথচ এনটিআরছি প্রণীত যে নীতিমালা সেখানে ইসলাম শিক্ষা বিভাগকে বঞ্চিত করা হয়েছে। আমরা এই প্রজ্ঞাপন বাতিল চাই।

একই বিভাগের শিক্ষার্থী সাইফুল ইসলাম বলেন, এই নীতি প্রয়োগ করে আমাদের যোগ্যতা প্রমাণের সুযোগ বঞ্চিত করা হচ্ছে। আমাদেরকে সুযোগ দিতে হবে। আমরা চাই যে অন্যায্য অন্যায়মূলক নীতিমালা জারি করা হয়েছে তা নিঃসন্দেহে বৈষম্যমূলক নীতি। এই নীতি অবিলম্বে বাতিল করতে হবে। একই ধরণের লেখাপড়া করে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে আমরা পাশ করছি। অথচ এধরণের নীতি প্রণয়ন করে আমাদেরকে সুযোগ বঞ্চিত করা হচ্ছে।
প্রসঙ্গত, শিক্ষক নিয়োগের প্রথম থেকে সপ্তদশ শিক্ষক নিবন্ধন পরীক্ষা- ২০২০ সাল পর্যন্ত স্বীকৃত বিশ্ববিদ্যালয় থেকে ইসলামিক স্টাডিজ বিষয়ে উত্তীর্ণ শিক্ষার্থীরা মাদ্রাসায় সহকারী মৌলভী ও প্রভাষক পদে বেসরকারী শিক্ষক নিবন্ধন পরীক্ষায় আবেদনের সুযোগ পেত। তবে গত ২ নভেম্বর বেসরকারি শিক্ষক নিবন্ধন ও প্রত্যয়ন কর্তৃপক্ষ (NTRCA) অষ্টাদশ শিক্ষক নিবন্ধন পরীক্ষণ- ২০২৩ এর বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করে।

বিজ্ঞপ্তিতে আরবি ও ফিকহ বিভাগে সহযোগী মৌলভী ও প্রভাষক পদে শিক্ষাগত যোগ্যতা হিসেবে বাংলাদেশ মাদ্রাসা শিক্ষা বোর্ড হতে ফাজিল বা কামিল ডিগ্রি অথবা ইসলামি বিশ্ববিদ্যালয়বা ইসলামি আরবি বিশ্ববিদ্যালয় অধিভুক্ত মাদ্রাসা থেকে ফাজিল বা কামিল ডিগ্রি অথবা ইসলামি বিশ্ববিদ্যালয় হতে আল কুরআন অ্যান্ড ইসলামিক স্টাডিজ, আল হাদীস অ্যান্ড ইসলামিক স্টাডিজ, দাওয়াহ অ্যান্ড ইসলামিক স্টাডিজ, আল ফিকহ অ্যান্ড লিগ্যাল স্টাডিজ বিষয়ে অনার্সসহ স্নাতকোত্তর ডিগ্রি অথবা কোন স্বীকৃত বিশ্ববিদ্যালয় হতে আরবি বিষয়ে অনার্সসহ স্নাতকোত্তর ডিগ্রি নির্ধারণ করা হয়েছে। কিন্তু ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়, রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়, চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়, জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়, বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়সমূহ এবং জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের ইসলামিক স্টাডিজ বিভাগ তথা স্বীকৃত বিশ্ববিদ্যালয়ের ইসলামিক স্টাডিজ বিষয় থেকে উত্তীর্ণ শিক্ষার্থীদের উক্ত পদসমূহে আবেদন করার সুযোগ দেওয়া হয়নি।

সময়ের আলো/জিকে




https://www.shomoyeralo.com/ad/1698385080Google-News-Update.jpg

সর্বশেষ সংবাদ

সর্বাধিক পঠিত


ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: কমলেশ রায়, আমিন মোহাম্মদ মিডিয়া কমিউনিকেশন লিমিটেড এর পক্ষে প্রকাশক গাজী আহমেদ উল্লাহ
নাসির ট্রেড সেন্টার, ৮৯, বীর উত্তম সি আর দত্ত সড়ক (সোনারগাঁও রোড), বাংলামোটর, ঢাকা।

ফোন : +৮৮-০২-৯৬৩২৩৬৮-৭৪, ফ্যাক্স : +৮৮-০২-৯৬৩২৩৭৫ | ই-মেইল : shomoyeralo@gmail.com
close