ই-পেপার মঙ্গলবার ১৬ জুলাই ২০২৪
মঙ্গলবার ১৬ জুলাই ২০২৪

চট্টগ্রামে গার্ডার ধসে ১৩ মৃত্যু: আট আসামির ৭ বছর কারাদণ্ড
প্রকাশ: বুধবার, ১০ জুলাই, ২০২৪, ৫:২৮ পিএম  (ভিজিট : ২০২)
চট্টগ্রামের বহদ্দারহাটে ফ্লাইওভারের গার্ডার ধসে ১৩ জন নিহতের মামলায় ৮ আসামির প্রত্যেককে ৭ বছরের সশ্রম কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত। একইসাথে প্রত্যেককে ৩ লাখ টাকা করে অর্থদণ্ড, অনাদায়ে আরও ৬ মাসের কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছে।

বুধবার (১০ জুলাই) দুপুরে চট্টগ্রামের চতুর্থ অতিরিক্ত মহানগর দায়রা জজ শরীফুল আলম ভূঁঞা মামলায় রায় ঘোষণা করেন।  

মামলার বিবরণে জানা যায়, ২০১২ সালের ২৪ নভেম্বর সন্ধ্যায় গার্ডার ধসে পড়ে। এতে ১৩ জন নিহত হয়। এক যুগ পর আজ (বুধবার) মামলার রায় ঘোষণা হলো। দণ্ডিত আট আসামির সবাই গার্ডার নির্মাণে যুক্ত ঠিকাদার মীর আখতার- পারিসার (জেভি) তৎকালীন কর্মী। 

দণ্ডিতরা  হলেন- প্রকল্প ব্যবস্থাপক গিয়াস উদ্দিন, মনজুরুল ইসলাম, প্রকৌশলী আবদুল জলিল, আমিনুর রহমান, আবদুল হাই, মোশাররফ হোসেন, মান নিয়ন্ত্রণ প্রকৌশলী শাহজাহান আলী ও রফিকুল ইসলাম। রায় ঘোষণার সময় আট আসামির সবাই আদালতে উপস্থিত ছিলেন। রায় ঘোষণার পর জামিনে থাকা আসামিদের জামিন বাতিল করে সাজা পরোয়ানা মূলে কারাগারে পাঠানো হয়।

এ ব্যাপারে চতুর্থ অতিরিক্ত মহানগর দায়রা জজ আদালতের পিপি অনুপম চক্রবর্তী বলেন, গার্ডার ধসে দুর্ঘটনার মামলায় আদালত ৮ আসামির প্রত্যেককে ৭ বছরের কারাদণ্ডে দণ্ডিত করেছেন। দুর্ঘটনার জন্য নির্মাণ কাজে যুক্ত ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান কোনভাবে দায় এড়াতে পারে না। আদালত রায় ঘোষণার মাধ্যমে প্রমাণিত হয়েছে ঘটনার জন্য আসামিরা দায়ী এবং তারা দায় এড়াতে পারে না।

আদালতের বেঞ্চ সহকারী ওমর ফুয়াদ বলেন, ফ্লাইওভারের গার্ডার ধসে ১৩ জন নিহত হওয়ার মামলায় আট আসামির প্রত্যেককে দুইটি ধারায় পাঁচ ও দুই বছর করে সশ্রম কারাদণ্ডাদেশ দেন। এই দুই সাজা একটির পর একটি চলবে। অর্থাৎ প্রত্যেককে ৭ বছর করে কারাদণ্ড দেয়া হয়েছে। একইসাথে দণ্ডিত প্রত্যেককে ৩ লাখ টাকা অর্থদণ্ড অনাদায়ে আরও ৬ মাসের কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত। এ মামলায় ২৮ জন সাক্ষীর মধ্যে রাষ্ট্রপক্ষে ২২ জনের সাক্ষ্য গ্রহণ হয়েছে। 

মামলার বিবরণে আরও জানা যায়, গার্ডার ধসে দুর্ঘটনার পর অবহেলা জনিত মৃত্যুর অভিযোগে বহদ্দারহাটে নির্মাণাধীন ফ্লাইওভারের প্রকল্প পরিচালক চট্টগ্রাম উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের (সিডিএ) নির্বাহী প্রকৌশলীসহ ২৫ জনের বিরুদ্ধে ২০১২ সালের ২৬ নভেম্বর চান্দগাঁও থানার তৎকালীন এসআই আবুল কালাম আজাদ বাদী হয়ে মামলা দায়ের করেন। পুলিশ তদন্ত শেষে ২০১৩ সালের ২৪ অক্টোবর আদালতে ৮ জনের বিরুদ্ধে চার্জশিট দাখিল করেন। ২০১৪ সালের ১৮ জুন তৎকালীন চট্টগ্রাম মহানগর দায়রা জজ এসএম মজিবুর রহমানের আদালত ৮ জনের বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠন করা হয়। এরপর দীর্ঘ সময় ধরে চলে মামলার শুনানি। আজ (বুধবার) দীর্ঘ প্রতীক্ষিত রায় ঘোষণা হলো।

সময়ের আলো/আরআই


আরও সংবাদ   বিষয়:  বহদ্দারহাটে গার্ডার ধস-মৃত্যু   কারাদণ্ড-আদালত   চট্টগ্রাম  




https://www.shomoyeralo.com/ad/1698385080Google-News-Update.jpg

সর্বশেষ সংবাদ

সর্বাধিক পঠিত


ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: কমলেশ রায়, আমিন মোহাম্মদ মিডিয়া কমিউনিকেশন লিমিটেড এর পক্ষে প্রকাশক গাজী আহমেদ উল্লাহ
নাসির ট্রেড সেন্টার, ৮৯, বীর উত্তম সি আর দত্ত সড়ক (সোনারগাঁও রোড), বাংলামোটর, ঢাকা।

ফোন : +৮৮-০২-৯৬৩২৩৬৮-৭৪, ফ্যাক্স : +৮৮-০২-৯৬৩২৩৭৫ | ই-মেইল : shomoyeralo@gmail.com
close