ই-পেপার বিজ্ঞাপনের তালিকা শুক্রবার ২১ ফেব্রুয়ারি ২০২০ ৭ ফাল্গুন ১৪২৬
ই-পেপার শুক্রবার ২১ ফেব্রুয়ারি ২০২০

চরভদ্রাসনে পৃথক স্থান হতে দুটি লাশ উদ্ধার
চরভদ্রাসন (ফরিদপুর)প্রতিনিধি
প্রকাশ: রোববার, ৮ সেপ্টেম্বর, ২০১৯, ১১:০৪ এএম | অনলাইন সংস্করণ  Count : 1441

ফরিদপুরের চরভদ্রসন উপজেলায় পৃথক স্থান হতে শনিবার রাতে দুটি লাশ উদ্ধার করেছে চরভদ্রাসন থানা পুলিশ। এর মধ্যে সদর ইউনিয়নের কামাড় ডাঙ্গী গ্রামে স্বর্না আক্তার(১৪) নামে সপ্তম শ্রেনীর এক শিক্ষার্থীর ঝুলন্ত লাশ ও গাজিরটেক ইউনিয়নের হাজীহঞ্জ বাজার পদ্মা নদীর উত্তর পূর্ব ডুবো চর হতে আনুমানিক ২৪/২৫ বছর বয়সী অজ্ঞাত নারীর গলিত লাশ উদ্ধার করা হয়েছে।

ঐ চরে অজ্ঞাত লাশটি দেখতে পেয়ে পুলিশে খবর দেয় স্থানীয়রা। খবর পেয়ে চরভদ্রাসন থানার এস.আই মোঃ খাইরুল ইসলাম লাশটি উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসেন। লাশটি এক মাস আগের হবে বলে ধারনা করছে থানা পুলিশ। অন্যদিকে স্বর্না কামার ডাঙ্গী গ্রামের বাসিন্দা মৃত:মোন্নাফ ব্যাপারীর ছোট মেয়ে। সে চরভদ্রাসন রোকন উদ্দিন সরকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের সপ্তম শ্রেনীর শিক্ষার্থী ছিল। ঘটনার বর্ননায় স্বর্নার মেঝ বোন বর্ণা আক্তার(২৩) জানায় ঐ দিন বিকেল ৫টার দিকে বাড়ির কাছেই পদ্মা নদীতে নৌকা বাইস দেখতে যায় পরিবারের সকলে। বাইস দেখতে সকলের সাথে স্বর্নাকে যেতে অনুরোধ করা হলে তার শরীর ভাল নেই বলে বাড়িতে থেকে যায় স্বর্না। নৌকা বাইস দেখে সন্ধার দিকে বাড়ি ফিরে স্বর্নার ঘর ভেতর থেকে আটকানো ও ঘড়ের ভেতর উচ্চ শব্দে টেলিভিসন চলার শব্দ পায় তারা। অনেক ডাকা ডাকির পর ঘড়ের দরজা না খোলায় বেড়ার ফাকা দিয়ে স্বর্নাকে দোচালা ঘড়ের আড়ার সাথে গলায় ওড়না পেচানো অবস্থায় ঝুলতে দেখতে পায়। পরিবারের সদস্যদের চিৎকারে প্রতিবেশিরা এসে ঘড়ের দরজা ভেঙ্গে স্বর্নাকে উদ্ধার করে চরভদ্রাসন হাসপাতালে নিয়ে আসলে উপজেলা স্বাস্থ্য প:প: কর্মকর্তা ডা. আবুল কালাম আজাদ স্বর্নাকে মৃত বলে ঘেষনা করেন।

সরজমিনে ঘটনাস্থলে গেলে স্বর্নার মা মইফুল বেগম ও পরিবারের সদস্যরা জানায় প্রায় এক বছর হয় স্থানীয় একটি ছেলের সাথে স্বর্নার সম্পর্ক তৈরী হলেও কিছুদিন ধরে তাদের সম্পর্কের টানা পোরেন চলছিল। তিন বোনের মধ্যে স্বর্না সবার ছোট।

চরভদ্রাসন থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি)হারুন অর রশিদ বলেন, পুলিশ মৃতদেহ দুটি উদ্ধার করে থানায় নিয়ে এসেছে। রবিবার ঝুলন্ত মরদেহটি ময়না তদন্তের জন্য ফরিদপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে। এ ব্যাপারে থানায় একটি অপমৃত্যুর মামলা হয়েছে। এছাড়া অজ্ঞাত লাশটির ডিএনএ নমুনা সংগ্রহের জন্য মর্গে পাঠানো হয়েছে।




সর্বশেষ সংবাদ

সর্বাধিক পঠিত


ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: কমলেশ রায়, আমিন মোহাম্মদ মিডিয়া কমিউনিকেশন লিমিটেড-এর পক্ষে প্রকাশক গাজী আহমেদ উল্লাহ
নাসির ট্রেড সেন্টার, ৮৯, বীর উত্তম সি আর দত্ত সড়ক (সোনারগাঁও রোড), বাংলামোটর, ঢাকা।

ফোন : +৮৮-০২-৯৬৩২৩৬৮-৭৪, ফ্যাক্স : +৮৮-০২-৯৬৩২৩৭৫। ই-মেইল : [email protected]