ই-পেপার শনিবার ২৫ জানুয়ারি ২০২০ ১০ মাঘ ১৪২৬
ই-পেপার শনিবার ২৫ জানুয়ারি ২০২০

বর্ণিল আয়োজনে বঙ্গবন্ধু বিপিএলের উদ্বোধন
রাজু আহাম্মেদ
প্রকাশ: সোমবার, ৯ ডিসেম্বর, ২০১৯, ১২:০০ এএম আপডেট: ০৯.১২.২০১৯ ১:০৪ এএম | প্রিন্ট সংস্করণ  Count : 151

বিচ্ছুরিত বর্ণিল আলোর রোশনাই মঞ্চময়, আলোকিত ওই মঞ্চেই গান হলো, নাচ হলো। সুর-ছন্দের উন্মাদনায় মিলে একাকার হয়ে গেলেন দর্শকরা। মিরপুর শেরেবাংলা স্টেডিয়ামের চারপাশ আলোকিত হলো মনোমুগ্ধকর আতশবাজির ঝলকানিতে। এরইমাঝে স্টেডিয়ামে এলেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। প্রেসিডেন্ট বক্সের সামনে তার জন্য নির্ধারিত মঞ্চে দাঁড়িয়ে বঙ্গবন্ধু বিপিএলের উদ্বোধন ঘোষণা করলেন। তখন তার সঙ্গে ছিলেন বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি) সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন।

বিপিএল (বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগ) ফ্র্যাঞ্চাইজি ভিত্তিক টি-টোয়েন্টি টুর্নামেন্ট। টুর্নামেন্টে আগের ছয়টি আসর ফ্র্যাঞ্চাইজিভিত্তিকই ছিল। কিন্তু সাত দল নিয়ে এবারের আসরটি আয়োজিত হচ্ছে বিসিবির নিজস্ব ব্যবস্থাপনায়। ২০২০ সালে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী। এ উপলক্ষে ২০২০ সালকে মুজিব বর্ষ ঘোষণা করেছে সরকার। মুজিব বর্ষ সামনে রেখে বিসিবি এবারের বিপিএল উৎসর্গ করেছে বঙ্গবন্ধুকে। সে কারণেই এবারের আসরটির নাম বঙ্গবন্ধু বিপিএল। বিশেষ এই বিপিএলের উদ্বোধন করলেন বঙ্গবন্ধুকন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

উদ্বোধন উপলক্ষে সন্ধ্যা সাতটায় মিরপুরের হোম অব ক্রিকেটে আসার কথা ছিল প্রধানমন্ত্রীর। আসেন মিনিট দশেক আগে। এসেই সেরে ফেলেন উদ্বোধনের আনুষ্ঠানিকতা। শুরু হয় আতশবাজির ঝলকানি। বর্ণিল আলোক ছটায় সেজে ওঠে হোম অব   ক্রিকেটের রাতের আকাশ। প্রধানমন্ত্রী তখন তার জন্য নির্ধারিত মঞ্চে উপবিষ্ট। পরে অনেকটা সময় উপভোগ করেন কনসার্ট। জেমস-সনু নিগমরা সুরের ঝঙ্কার তুলেছেন তখন। সুর-ছন্দের এই অনুষ্ঠান শুরু হয় সন্ধ্যায়। ডি’রকস্টার খ্যাত মইদুল ইসলাম খান শুভ-রেশমি মির্জারা পারফর্ম করেন।

বঙ্গবন্ধু বিপিএলের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানকে জাঁকজমকপূর্ণ করে তুলতে চেষ্টায় ত্রুটি রাখেনি বিসিবি। উদ্বোধন ঘোষণা ছাড়া সেই আয়োজনে ক্রিকেটীয় কোনো বিষয়াদি ছিল না। তবে গোটা আয়োজনই ছিল উপভোগ্য, নির্মল বিনোদনদায়ী। সনু নিগমের কণ্ঠে ‘ধনধান্যে পুষ্পে ভরা, আমাদেরই বসুন্ধরা’ আর ‘একটি মুজিবুরের থেকে লক্ষ্য মুজিবুরের কণ্ঠস্বরের ধ্বনি... বাংলাদেশ আমার বাংলাদেশ’ গান দুটো তো অন্যরকম এক আবেশ ছড়িয়ে দিল। দর্শকের হাতে থাকা মোবাইলের ফ্লাশ লাইট একসঙ্গে জ্বলল রাতের অন্ধকারে জোনাকির মতো। এরপরের লেজার শো’টাও ছিল মনোমুগ্ধকর।

অনুষ্ঠানের শেষটা হয়েছে ধামাকাদার। কৈলাশ খেরের পরিবেশনার পর বলিউডের দুই সুপারস্টার ক্যাটরিনা কাইফ আর সালমান খানের পারফরম্যান্স মাতিয়ে রাখে মিরপুর শেরেবাংলা। প্রথমে ছিল ক্যাটরিনার একক পারফরম্যান্স, এরপর একক পারফরম্যান্স সালমানের। জমকালো উদ্বোধনী অনুষ্ঠানের শেষটা হয়েছে দুই মহাতারকার ডুয়েট পারফরম্যান্সের মধ্য দিয়ে। ততক্ষণে প্রায় মধ্যরাত। তাতে কি, স্টেডিয়ামের উঞ্চতা ছড়ানো পারফরম্যান্স দেখে ঘরে ফেরার কালে হালকা শীতের পরশটাও তো কম উপভোগ্য ছিল না। তা ছাড়া দর্শক মনে পয়সা উসুলের স্বস্তিও তো ছিল!






সর্বশেষ সংবাদ

সর্বাধিক পঠিত


ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: কমলেশ রায়, আমিন মোহাম্মদ মিডিয়া কমিউনিকেশন লিমিটেড-এর পক্ষে প্রকাশক গাজী আহমেদ উল্লাহ
নাসির ট্রেড সেন্টার, ৮৯, বীর উত্তম সি আর দত্ত সড়ক (সোনারগাঁও রোড), বাংলামোটর, ঢাকা।

ফোন : +৮৮-০২-৯৬৩২৩৬৮-৭৪, ফ্যাক্স : +৮৮-০২-৯৬৩২৩৭৫। ই-মেইল : [email protected]