ই-পেপার বিজ্ঞাপনের তালিকা শুক্রবার ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২০ ১০ আশ্বিন ১৪২৭
ই-পেপার শুক্রবার ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২০

বানারীপাড়ায় ট্রিপল মার্ডার
২৪ ঘণ্টায় রহস্য উন্মোচন, স্বর্ণালঙ্কারের লোভে হত্যাকান্ড
নিজস্ব প্রতিবেদক বরিশাল ও বানারীপাড়া প্রতিনিধি
প্রকাশ: সোমবার, ৯ ডিসেম্বর, ২০১৯, ১২:০০ এএম আপডেট: ০৯.১২.২০১৯ ১২:২৩ এএম | প্রিন্ট সংস্করণ  Count : 85

কুয়েত প্রবাসীর বাড়ির দুই নির্মাণ শ্রমিক জাকির ও জুয়েল একরাতে গৃহকর্ত্রীসহ জামাতা এবং ভাগ্নিকে হত্যা করে নিজেদের আড়াল করতে চেয়েছিল। কিন্তু র‌্যাবের কৌশলী পদক্ষেপে আটক জাকিরের মুখগলে বেরিয়ে আসে হত্যার কারণ এবং তার সহযোগী অপর নির্মাণ শ্রমিক জুয়েল হাওলাদারের নাম। মাত্র ২৪ ঘণ্টার ব্যবধানে ঘাতক জুয়েল হাওলাদারকে বরিশাল শহর থেকে আটক ও নিয়ে যাওয়া সমুদয় স্বর্ণালঙ্কার উদ্ধার করা হয়েছে। র‌্যাবের মিডিয়া শাখা এই তথ্য নিশ্চিত করে বলেছে- ঘাতকরা জিন নিয়ে আসার নামে ঘটনার রাতে নাটকীয়ভাবে ওই বাড়ির দরজা খোলা রেখে ঘরে প্রবেশ করে।
শনিবার ভোর রাতে বরিশালের বানারীপাড়া উপজেলার শালিয়াবাগপুর গ্রামের কুয়েত প্রবাসী আব্দুর রবের বাড়িতে ওই হত্যাকাÐ সংঘটিত হয়। প্রবাসীর বাড়িতে একাধিক সদস্যের বসবাস থাকলেও ওই রাতে বৃদ্ধ মা মরিয়ম বেগম (৭০), ভগ্নিপতি শফিকুল আলম (৬৫) এবং খালাতো ভাই ইউসুফকে (৩২) শ্বাসরোধ করে হত্যার সময়ক্ষণ কেউ আঁচ করতে পারেনি।
এ হত্যাকাÐ পুলিশ প্রশাসনে তোলপাড় সৃষ্টি করে। ঘটনা জানাজানির পরপরই স্থানীয় থানা পুলিশ বাড়িতে অবস্থানরত নির্মাণ শ্রমিক জাকিরকে আটক করে। বরিশাল র‌্যাবের কর্মকর্তারা পরবর্তীতে থানা অভ্যন্তরে একান্তে জাকিরকে জিজ্ঞাসাবাদ করলে হত্যাকাÐে নিজের সংশ্লিষ্টতা স্বীকার করে জুয়েল নামে একজন সহযোগীর নাম প্রকাশ করে। বেলা ১২ টার ভেতরে র‌্যাবের একটি টিম গোটা হত্যাকাÐের ক্লু উপলব্ধি করে তথ্যপ্রযুক্তির মাধ্যমে জুয়েলের অবস্থান শনাক্তে মাঠে নামে।
শনিবার রাতে বরিশাল শহরের পশ্চিম মতাশার মুহুরিকান্দা এলাকা থেকে জুয়েলকে তার নিজ বাড়ি থেকে গ্রেফতার করতে সক্ষম হয়। এই সময় জাকিরের বরিশাল নগরীর সাগরদীর ভাড়া বাসা থেকে ওই রাতে লুণ্ঠিত স্বর্ণালঙ্কার ও তিনটি মোবাইল সেটসহ হত্যাকাÐে ব্যবহৃত একটি ছুরি উদ্ধার করে। গ্রেফতার জুয়েল ও জাকিরকে মুখোমুখি করা হলে উভয়ে অভিন্ন তথ্য দিয়ে জানায় লোভের বশবর্তী তিনজনকে শ্বাসরোধ করে হত্যার পূর্বে ওই জিন নিয়ে আসার নাটক সাজিয়েছিল।
র‌্যাব সূত্র জানায়- জাকির দীর্ঘদিন ধরে প্রবাসী আব্দুর রবের বাড়িতে নতুন ভবন নির্মাণে শ্রমিকের কাজে নিয়োজিত থাকার পাশাপাশি জিনের ওঝাঁ বা বাদশা পরিচয় দিয়ে নিজের দক্ষতা প্রকাশ করে পরিবারের সঙ্গে ঘনিষ্ঠ হয়ে ওঠে। যাতায়াতের সূত্র ধরে প্রবাসীর বাড়িতে বেশি মাত্রার স্বর্ণালঙ্কার থাকার ধারণায় সদ্য কাজে যোগদান অপর সহযোগী নির্মাণ শ্রমিক জুয়েলের সঙ্গে চুরির পরিকল্পনা নেয়। কিন্তু ঘটনার রাতে জিন নিয়ে আসার নামে বাড়ির দরজা খোলা রাখার পরামর্শ দেওয়া হলেও পিরোজপুরের স্বরূপকাঠি থেকে বেড়াতে শফিকুল আলম ও খালাতো ভাই ইউসুফের উপস্থিতি অন্তরায় হয়ে দাঁড়ায়। এক পর্যায়ে উভয় ঘাতক মিলে একে একে তিনজনকে শ্বাসরোধ করে হত্যার করে।
এদিকে ঘটনার একদিন পর রোববার সকালে সুলতান মাহামুদ বাদী হয়ে বানারীপাড়া থানায় এই সংক্রান্তে একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন। সুলতান মাহামুদ ও প্রবাসী আব্দুর বর সম্পর্কে আপন দুই ভাই।







সর্বশেষ সংবাদ

সর্বাধিক পঠিত


ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: কমলেশ রায়, নির্বাহী সম্পাদক : শাহনেওয়াজ দুলাল, আমিন মোহাম্মদ মিডিয়া কমিউনিকেশন লিমিটেড-এর পক্ষে
প্রকাশক গাজী আহমেদ উল্লাহ। নাসির ট্রেড সেন্টার, ৮৯, বীর উত্তম সি আর দত্ত সড়ক (সোনারগাঁও রোড), বাংলামোটর, ঢাকা।

ফোন : +৮৮-০২-৯৬৩২৩৬৮-৭৪, ফ্যাক্স : +৮৮-০২-৯৬৩২৩৭৫। ই-মেইল : [email protected]