ই-পেপার বিজ্ঞাপনের তালিকা রোববার ৫ ডিসেম্বর ২০২১ ২০ অগ্রহায়ণ ১৪২৮
ই-পেপার রোববার ৫ ডিসেম্বর ২০২১

ঘটনাবহুল বছর পার করল সুপ্রিমকোর্ট
হিরা তালুকদার
প্রকাশ: মঙ্গলবার, ৩১ ডিসেম্বর, ২০১৯, ১২:০০ এএম আপডেট: ৩১.১২.২০১৯ ১২:৩৬ এএম | প্রিন্ট সংস্করণ  Count : 59

একটি ঘটনাবহুল বছর পার করল সুপ্রিমকোর্ট। বেশ কিছু আলোচিত মামলার উৎপত্তি ও নিষ্পত্তি হয়েছে ২০১৯ সালে। সর্বোচ্চ আদালত কক্ষে প্রধান বিচারপতির সামনে ঘটেছে চরম হট্টগোলের ঘটনা। ছিল পানি, খাদ্যপণ্য ও দুধ নিয়ে কড়া নির্দেশনা। সব মিলিয়ে সারা বছর আলোচনার কেন্দ্রবিন্দুতে ছিল সুপ্রিমকোর্ট। জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার জামিন আবেদনের শুনানিকে কেন্দ্র করে ৫ ডিসেম্বর নজিরবিহীন হট্টগোল হয় সুপ্রিমকোর্টের আপিল বিভাগের এজলাস কক্ষে। খালেদা জিয়ার স্বাস্থ্যের বিষয়ে প্রতিবেদন তৈরি না হওয়ায় তা সেদিন আদালতে দাখিল করেনি রাষ্ট্রপক্ষ। এজন্য বিএনপি চেয়ারপারসনের জামিন শুনানি পিছিয়ে ১২ ডিসেম্বর শুনানির জন্য পরবর্তী দিন ধার্য করেন আপিল বিভাগ। স্বাস্থ্যগত প্রতিবেদন জমা না দেওয়ায় রাষ্ট্রপক্ষকে দোষারোপ করে ‘উই ওয়ান্ট জাস্টিস’ সেøাগান দিয়ে আপিল বিভাগে প্রধান বিচারপতির সামনে নজিরবিহীন হট্টগোল বাধান বিএনপির আইনজীবীরা। এ অবস্থায় এজলাস থেকে নেমে যান প্রধান বিচারপতির নেতৃত্বাধীন আপিল বিভাগের বেঞ্চ।
এজলাস থেকে নেমে যাওয়ার সময় প্রধান বিচারপতি সৈয়দ মাহমুদ হোসেন বিএনপিপন্থি আইনজীবীদের উদ্দেশে বলেন, ‘সব কিছুর সীমা থাকা উচিত। আপনারা এজলাস কক্ষে যে আচরণ করেছেন, তা নজিরবিহীন।’ পরে এ নিয়ে অ্যাটর্নি জেনারেল বিএনপির আইনজীবীদের দোষারোপ করেন। বিএনপির আইনজীবীরা দোষারোপ করেন রাষ্ট্রপক্ষকে।
পরে ১২ ডিসেম্বর আপিল বিভাগ বেঞ্চ খালেদা জিয়ার জামিন আবেদন খারিজ করে দেন। পাশাপাশি পর্যবেক্ষণে আদালত বলেন, ‘যদি আবেদনকারী (খালেদা জিয়া) প্রয়োজনীয় সম্মতি দেন, তাহলে মেডিকেল বোর্ড দ্রæত তার অ্যাডভান্সড ট্রিটমেন্টের (বায়োলজিক এজেন্ট) জন্য পদক্ষেপ নেবে, যা বোর্ড সুপারিশ করেছে।’
 ২০ অক্টোবর সুপ্রিমকোর্টের হাইকোর্ট বিভাগে অতিরিক্ত বিচারপতি হিসেবে নিয়োগ পান ৯ জন। এই অতিরিক্ত ৯ বিচারপতিকে নিয়ে সুপ্রিমকোর্টের হাইকোর্ট বিভাগে এখন মোট বিচারপতির সংখ্যা ১০০ জন। এর আগে সর্বশেষ ২০১৮ সালের ৩০ মে সুপ্রিমকোর্টের হাইকোর্ট বিভাগে ১৮ অতিরিক্ত বিচারপতি নিয়োগ দেওয়া হয়।
পরকীয়ার সাজা সংক্রান্ত দÐবিধির (পেনাল কোড) ৪৯৭ ধারা কেন অবৈধ ও অসাংবিধানিক ঘোষণা করা হবে না তা জানতে চেয়ে ৮ জুলাই রুল জারি করেন হাইকোর্ট। অ্যাডভোকেট ইশরাত হাসানের করা রিটের শুনানি নিয়ে বিচারপতি সৈয়দ রেফাত আহমেদ ও বিচারপতি ইকবাল কবিরের হাইকোর্ট বেঞ্চ ওই রুল জারি করেন। দÐবিধির ৪৯৭ ধারা অনুযায়ী কোনো স্ত্রী পরকীয়া করলে যার সঙ্গে পরকীয়া করবে শুধু সেই ব্যক্তির বিরুদ্ধে শাস্তির বিধান রয়েছে। অথচ স্ত্রীর বিরুদ্ধে স্বামীর কিছুই করার নেই। একইভাবে স্বামী পরকীয়া করলে স্ত্রী স্বামীর বিরুদ্ধে বা যার সঙ্গে পরকীয়ায় জড়িত হবেন, তার বিরুদ্ধে কোনো প্রতিকার পাবেন না। রিটকারী অ্যাডভোকেট ইশরাত হাসান বলেন, এ আইন সংবিধানের ২৭, ২৮ ও ৩২ অনুচ্ছেদের সঙ্গে সাংঘর্ষিক এবং এটা অদ্ভুত ও বৈষম্যমূলক।
পরীক্ষায় নিম্নমানের বলে প্রমাণ হওয়ায় ৫২টি খাদ্যপণ্য বাজার থেকে ১০ দিনের মধ্যে প্রত্যাহার করে নিতে ১২ মে আদেশ দেন হাইকোর্ট। সেইসঙ্গে এসব খাদ্যপণ্য বিক্রি ও সরবরাহে জড়িতদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতেও বলেন আদালত। পরে ২৩ মে আদালত আদেশে জানান, নিম্নমানের ৫২ পণ্যের মধ্যে যদি কোনো প্রতিষ্ঠান তাদের পণ্য বাজারজাত করতে চায় তাহলে বিএসটিআই থেকে পুনরায় মান পরীক্ষা করাতে হবে। মান পরীক্ষায় উত্তীর্ণের পর বিএসটিআই অনুমতি দিলে তা বাজারজাত করা যাবে।
বিএসটিআইয়ের লাইসেন্সধারী ১৪ কোম্পানির পাস্তুরিত দুধ উৎপাদন ও বিপণন বন্ধে ২৮ জুলাই নির্দেশ দেন হাইকোর্ট। একইসঙ্গে এসব দুধ ক্রয় ও মজুদ করা থেকেও বিরত থাকতে বলা হয়। বিএসটিআইয়ের লাইসেন্সধারী এই ১৪ কোম্পানির উৎপাদিত দুধে মানবদেহের জন্য ক্ষতিকর অ্যান্টিবায়োটিক ও ধাতব উপাদানের (সিসা) উপস্থিতি থাকায় আদালত এই নিষেধাজ্ঞা দেন। পরে হাইকোর্টের নিষেধাজ্ঞার আদেশ স্থগিত করেন আপিল বিভাগের চেম্বার জজ আদালত।
উন্নয়নমূলক কাজের কারণে ঢাকা মহানগরীতে ধুলাবালিতে বায়ুদূষণ প্রতিরোধে সকাল-বিকাল রাস্তায় পানি দিতে ২৮ জানুয়ারি নির্দেশ দেন হাইকোর্ট। একইসঙ্গে ঢাকা শহরে যারা বায়ুদূষণের কারণ সৃষ্টি করছে, তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে সপ্তাহে দুবার ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করতে পরিবেশ অধিদফতরকে নির্দেশ দেওয়া হয়। এসব নির্দেশনা বাস্তবায়নের পরের দুই সপ্তাহের মধ্যে পরিবেশ অধিদফতরের মহাপরিচালক এবং ঢাকা সিটি করপোরেশনের দুই মেয়র ও নির্বাহী কর্মকর্তাকে প্রতিবেদন দিতে বলেন হাইকোর্ট।
রাজধানীর কয়েকটি এলাকায় ওয়াসার পানিতে মল ও ব্যাকটেরিয়ার অস্তিত্ব নিয়ে পানি সরবরাহকারী প্রতিষ্ঠানটির উদ্দেশে ২৪ জুলাই হাইকোর্ট বলেন, আমাদের দরকার বিশুদ্ধ পানি। আমরা অতশত বুঝি না, বিশুদ্ধ পানি চাই।’ পানিতে ব্যাকটেরিয়া ও মলের অস্তিত্ব রয়েছেÑ এ সংক্রান্ত খবর উঠে আসার পর ওয়াসা কর্তৃপক্ষের বক্তব্য বা ব্যাখ্যা কী, তা জানতে চেয়ে শুনানিতে হাইকোর্টের একটি বেঞ্চ এ কথা বলেন।
বিচারাধীন মামলার বিষয়ে সংবাদ পরিবেশন থেকে বিরত থাকতে সংশ্লিষ্টদের প্রতি অনুরোধ ক্রমে আদেশ জানিয়ে ১৬ মে বিজ্ঞপ্তি দেয় সুপ্রিমকোর্ট প্রশাসন। এ নিয়ে গণমাধ্যমে আলোচনা তৈরি হলে ২১ মে সুপ্রিমকোর্টের রেজিস্ট্রার জেনারেল ড. জাকির হোসেনের সই করা আরেক বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, বাংলাদেশ সুপ্রিমকোর্ট সবসময় সংবাদপত্রের স্বাধীনতায় বিশ্বাসী। তবে আদালতের ভাবমূর্তি ও মর্যাদা ক্ষুণœ হয় এবং বিচারকাজ প্রভাবিত করেÑ এমন সংবাদ পরিবেশন ও প্রচার প্রত্যাশিত নয়।
 ৬ এপ্রিল জাতীয় চাঁদ দেখা কমিটি সভা করে জানায়, ওইদিন দেশের আকাশে কোথাও শাবান মাসের চাঁদ দেখা যায়নি। ফলে ৮ এপ্রিল থেকে শাবান মাস গণনা শুরু হবে এবং ২১ এপ্রিল দিবাগত রাতে পবিত্র লাইলাতুল বরাত পালিত হবে। তবে ‘মজলিসু রুইয়াতিল হিলাল’ নামে একটি সংগঠন দাবি করে, সেদিন খাগড়াছড়িতে চাঁদ দেখা গেছে। ২০ এপ্রিল দিবাগত রাতে পবিত্র লাইলাতুল বরাত পালিত হওয়ার কথা। এ নিয়ে বিতর্ক তৈরি হয়। এ অবস্থায় ১৫ এপ্রিল হাইকোর্টে আবেদন করার অনুমতি চেয়ে একটি আবেদন হয়। সে আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে হাইকোর্ট বলেন, এখন একেবারেই লাস্ট স্টেজ। তাই আমরা বিষয়টি নিয়ে বিব্রতবোধ করছি এবং এ অবস্থায় নতুন করে বিভ্রান্তির অবকাশ নেই।
দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) কাÐে বিনা দোষে তিন বছর কারাভোগের পর ৩ ফেব্রæয়ারি মুক্তি লাভ করেন পাটকল শ্রমিক জাহালম। সোনালী ব্যাংকের প্রায় সাড়ে ১৮ কোটি টাকা জালিয়াতির অভিযোগে আবু সালেক নামের এক ব্যক্তির বিরুদ্ধে ৩৩টি মামলা করে দুদক। কিন্তু দুদকের ভুলে সালেকের বদলে আটক হতে হয় টাঙ্গাইলের জাহালমকে। তিন বছর তাকে কাটাতে হয় কারাগারে। পরে একটি রিটের পরিপ্রেক্ষিতে জাহালমের আটকাদেশের বৈধতা প্রশ্নে রুল জারি করেন হাইকোর্ট। পরবর্তী আইনি প্রক্রিয়া শেষে জাহালম মুক্তি পান।
পুলিশের প্রতিবেদন (চার্জশিট) দাখিলের আগে গ্রেফতার ব্যক্তিকে গণমাধ্যমের সামনে উপস্থাপন বা মামলার তদন্ত কার্যক্রম সম্পর্কে বক্তব্য উপস্থাপন সমীচীন নয় বলে পর্যবেক্ষণ দিয়েছিলেন হাইকোর্ট। এ বিষয়ে নীতিমালা প্রণয়নের পক্ষে মত দেন আদালত।
আলোচিত রিফাত শরীফ হত্যা মামলায় তার স্ত্রী আয়শা সিদ্দিকা মিন্নির জামিনের বিষয়ে ১ অক্টোবর প্রকাশিত রায়ে এ পর্যবেক্ষণ দেন বিচারপতি এম. ইনায়েতুর রহিম ও বিচারপতি মো. মোস্তাফিজুর রহমানের হাইকোর্ট বেঞ্চ।






সর্বশেষ সংবাদ

সর্বাধিক পঠিত


ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: কমলেশ রায়, আমিন মোহাম্মদ মিডিয়া কমিউনিকেশন লিমিটেড
এর পক্ষে প্রকাশক গাজী আহমেদ উল্লাহ
নাসির ট্রেড সেন্টার, ৮৯, বীর উত্তম সি আর দত্ত সড়ক (সোনারগাঁও রোড), বাংলামোটর, ঢাকা।

ফোন : +৮৮-০২-৯৬৩২৩৬৮-৭৪, ফ্যাক্স : +৮৮-০২-৯৬৩২৩৭৫। ই-মেইল : [email protected]