ই-পেপার শনিবার ১৮ জানুয়ারি ২০২০ ৪ মাঘ ১৪২৬
ই-পেপার শনিবার ১৮ জানুয়ারি ২০২০

সতীর্থদের বোলিং-দীক্ষা আমিরের
ক্রীড়া প্রতিবেদক
প্রকাশ: শুক্রবার, ১৭ জানুয়ারি, ২০২০, ১২:০০ এএম | প্রিন্ট সংস্করণ  Count : 1

ফাইনাল বলে কথা, বেশ কয়েকদিন পর তাই অনুশীলনে গোটা খুলনা টাইগার্স শিবিরকে দেখা গেল। লম্বা সময় নিয়ে শিরোপা নির্ধারণী লড়াইয়ের জন্য নিজেদের প্রস্তুত করলেন মুশফিক-শান্ত-মিরাজরা। একাডেমি মাঠের পশ্চিম পাশের নেটগুলোতে প্রধান কোচ জেমস ফস্টারের অধীনে চলছিল ব্যাটিং অনুশীলন, সেন্টার উইকেটে তখন একটু বেশিই স্বপ্রভিত দেখাল মোহাম্মদ আমিরকে। লম্বা সময় নিয়ে কেবল বোলিংই করলেন না পাকিস্তানি পেসার, এর ফাঁকে ফাঁকে সতীর্থ শফিউল ইসলাম, শহিদুল ইসলাম আর রবিউল হকদের করণীয়ও বুঝিয়ে দিলেন।
সেন্টার উইকেটে খুলনার পেসারদের বোলিং অনুশীলন চলছিল বোলিং কোচ তালহা জুবায়েরের তত্ত¡াবধানেই। তবে বাংলাদেশের হয়ে খেলা সাবেক এই ডানহাতি পেসারকে ছাপিয়ে কোচের ভ‚মিকাটা নিজেই নিয়ে নিলেন আমির। বারবার শফিউল-শহিদুলদের তিনি বুঝিয়ে দিচ্ছিলেন, কোন মুহূর্তে কেমন বোলিং করতে হবে। প্রতিপক্ষ ব্যাটসম্যানের কৌশল কেমন হবে, সেটা ওই ব্যাটসম্যানের স্ট্যান্স দেখে আন্দাজ করার দীক্ষাও দিলেন।
তা আমিরের কাছ থেকে কতটুকু শিখলেন, এমন প্রশ্ন যখন শফিউলকে করা হলো, এর জবাবে বেশি কিছু বলতে চাইলেন না জাতীয় দলে খেলা ডানহাতি এই পেসার। শুধু বললেন, ‘সব দলীয় পরিকল্পনার অংশ। পরিকল্পনায় যা ছিল আমির সেগুলো নিয়েই আলোচনা করছিলেন।’ আজকের ফাইনালে রাজশাহী রয়্যালসের ব্যাটসম্যানদের বিপক্ষে কীভাবে দলের কৌশলগুলো কাজে লাগাতে হবে দুরন্ত ছন্দে থাকা আমির সতীর্থদের সেটাই দেখিয়ে দেওয়ার, বুঝিয়ে দেওয়ার চেষ্টা করেছেন।
খানিকটা দূর থেকে কুশল বিনিময়ের সময় এই প্রতিবেদককে পাকিস্তানি পেসার বললেন, ‘সব কিছু ঠিকঠাকই হয়েছে।’ থামসআপ দেখিয়ে জানালেন, আজকের ফাইনালে আগুন ঝরানোর জন্য প্রস্তুত তিনি। প্রথম কোয়ালিফায়ার জিতে খুলনা টাইগার্স বঙ্গবন্ধু বিপিএলে ফাইনাল নিশ্চিত করে আমিরের দুর্ধর্ষ বোলিংয়েই। ১৭ রান খরচায় নিয়েছিলেন ৬ উইকেট। বিপিএলের ইতিহাসে যেটা সেরা বোলিংয়ের রেকর্ড। আমিরের টি-টোয়েন্টি ক্যারিয়ারেরও সেরা।
সোমবার মিরপুর শেরেবাংলা স্টেডিয়ামে আমির অমন রূদ্রমূর্তিতে আবিভর্‚ত হয়েছিলেন রাজশাহীর বিপক্ষে। সেই দলটির বিপক্ষে একই ভেন্যুতে ফাইনাল আজ। আজও একইভাবে জ্বলে উঠতে চাইবেন এই পাকিস্তানি। তাই সতীর্থ বোলাররা সবাই যখন অনুশীলনে খ্যান্ত দিয়ে হোটেলে ফেরার তোড়জোড় শুরু করলেন, ফাইনালের জন্য নিজেকে ভালোভাবে ঝালিয়ে নেওয়ার চেষ্টা তখনও জারি আমিরের। তিনিই যে খুলনার বোলিং লাইনআপের প্রাণ। তাকে ঘিরেই আশায় বুক বাঁধছে দলটি।
এই বিপিএলে ১২ ম্যাচ খেলে ১৮ উইকেট নিয়েছেন আমির। ওভার প্রতি রান দিয়েছেন সাতেরও কম। বিষয়টা বড় দুর্ভাবনারই প্রতিপক্ষ রাজশাহীর জন্য।





সর্বশেষ সংবাদ

সর্বাধিক পঠিত


ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: কমলেশ রায়, আমিন মোহাম্মদ মিডিয়া কমিউনিকেশন লিমিটেড-এর পক্ষে প্রকাশক গাজী আহমেদ উল্লাহ
নাসির ট্রেড সেন্টার, ৮৯, বীর উত্তম সি আর দত্ত সড়ক (সোনারগাঁও রোড), বাংলামোটর, ঢাকা।

ফোন : +৮৮-০২-৯৬৩২৩৬৮-৭৪, ফ্যাক্স : +৮৮-০২-৯৬৩২৩৭৫। ই-মেইল : [email protected]