ই-পেপার বিজ্ঞাপনের তালিকা সোমবার ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২০ ১৩ আশ্বিন ১৪২৭
ই-পেপার সোমবার ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২০

কোনো চুক্তি হয়নি বিসিবি-পিসিবির
ক্রীড়া ডেস্ক
প্রকাশ: রোববার, ২৬ জানুয়ারি, ২০২০, ১২:০০ এএম | প্রিন্ট সংস্করণ  Count : 13

পাকিস্তান সফরে বাংলাদেশ জাতীয় ক্রিকেট দল; খেলছে তিন ম্যাচ টি-টোয়েন্টি সিরিজ। পরবর্তী সময়ে আরও দুই যাত্রায় খেলবে দুই টেস্ট ও এক ওয়ানডে। নিরাপত্তা ইস্যুতে তিন দফায় পাকিস্তান করবে টাইগাররা। বহু আলোচনার পর এমন সিদ্ধান্ত বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি) এবং পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ডের (পিসিবি)। তাতেই গুঞ্জন ওঠে, এশিয়া কাপ নিয়ে চুক্তির ভিত্তিতেই সমঝোতায় এসেছে দুই বোর্ড। যা ভিত্তিহীন বলে দাবি করেছেন পিসিবির প্রধান নির্বাহী ওয়াসিম খান। স্পষ্ট জানিয়ে দিলেন, কোনো চুক্তি হয়নি বিসিবি-পিসিবির।
নিরাপত্তা শঙ্কায় পাকিস্তানে পূর্ণাঙ্গ সফরের জন্য দল পাঠাতে শুরু থেকেই রাজি ছিল না বিসিবি। টি-টোয়েন্টি সিরিজ লাহোরে খেলতে রাজি হলেও টেস্ট নিরপেক্ষ ভেন্যুতে খেলার প্রস্তাব দেওয়া হয়। কিন্তু পিসিবিও ছিল নাছোড়বান্দা। তারা জানিয়ে দেয়, পাকিস্তানের হোম ম্যাচ পাকিস্তানেই হবে। তাতে শঙ্কার কালো মেঘে ছেয়ে যায় সফরটি। অবশেষে সুরাহার পথ খুঁজে পেতে দুই বোর্ডের দুই প্রধান নাজমুল হাসান পাপন এবং এহসান মানি বৈঠকে বসেন দুবাইয়ে। তাতেই মেলে সমাধান। প্রথম দফার সফরে পাকিস্তানে অবস্থান করছে বাংলাদেশ দল।
এবার পিছু নিয়েছে সমালোচনা। গুঞ্জন উঠেছে, এশিয়া কাপের মঞ্চ ব্যবহার করে সমাধানের পথে হেঁটেছে বিসিবি-পিসিবি। চলতি বছরে টি-টোয়েন্টি ফরম্যাটে শুরু হওয়ার কথা এশিয়া কাপ, আয়োজক পাকিস্তান। তাই সমস্যা ভারতীয় ক্রিকেট দলকে নিয়ে। বাবর আজমদের দেশে বিরাট কোহলিরা যে আসবেন না তা অনুমেয়। এতে আয়োজক দেশ নিয়ে ভাবতেই হচ্ছে নতুন করে। সেই সুযোগটাই নাকি ব্যবহার করছে পিসিবি। বাংলাদেশকে এশিয়া কাপের আয়োজক বানানোর শর্তে বিসিবিকে রাজি করেছে পাকিস্তানে দল পাঠানোর জন্য!
তবে সবটাই মিথ্যা দাবি ওয়াসিমের। সোজাসাপ্টা জানিয়ে দিলেন, এশিয়া কাপ নিয়ে বিসিবির সঙ্গে তাদের চুক্তি করার সুযোগই নেই, ‘আয়োজক দেশ পরিবর্তন করার বিশেষ ক্ষমতা পিসিবি বা আইসিসির নেই যেহেতু এটা এশিয়ান ক্রিকেট কাউন্সিলের সিদ্ধান্ত ছিল।’ পিসিবির প্রধান নির্বাহী এটাও জানালেন, এশিয়া কাপের আয়োজন হবে তাদের দেশেই, ‘দুটো ভেন্যুতে এশিয়া কাপ আয়োজনের ভাবনা আমাদের। যদি ভারত এশিয়া কাপ খেলতে পাকিস্তান না আসে, তাহলে সেখানে ২০২১ টি-টোয়েন্টি বিশ^কাপে অংশগ্রহণ করব না আমরা।’
এক কথায়, দেশের মাটিতে নিয়মিত আন্তর্জাতিক ক্রিকেট আয়োজনে দৃঢ়ভাবে প্রতিজ্ঞ পিসিবি। সেভাবেই আলোচনা চলছে ক্রিকেট দক্ষিণ আফ্রিকার (সিএসএ) সঙ্গে। মার্চে ঘরের মাঠে প্রোটিয়াদের বিপক্ষে টি-টোয়েন্টি সিরিজ আয়োজনের ভাবনা পিসিবির, জানালেন ওয়াসিম। তিনি জানান, লাহোরে চারটি ম্যাচ খেলতে আসছে মেলিরিবোর্ন ক্রিকেট ক্লাবও (এমসিসি), ‘কুমার সাঙ্গাকারা, রবি বোপারা এবং মঈন আলির মতো বড় ক্রিকেটারও থাকবে দলে।’
পিসিবির চেষ্টার শেষ নয় এখানেই। ২০২৩ থেকে ২০৩০ সাল পর্যন্ত চক্রে আইসিসির ভবিষ্যৎ টুর্নামেন্টগুলোর অন্তত তিনটির আয়োজক হতে ছুটছে পাকিস্তান ক্রিকেটের হর্তাকর্তারা এমনটা জানিয়েই বক্তব্য শেষ করেন ওয়াসিম।











সর্বশেষ সংবাদ

সর্বাধিক পঠিত


ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: কমলেশ রায়, নির্বাহী সম্পাদক : শাহনেওয়াজ দুলাল, আমিন মোহাম্মদ মিডিয়া কমিউনিকেশন লিমিটেড-এর পক্ষে
প্রকাশক গাজী আহমেদ উল্লাহ। নাসির ট্রেড সেন্টার, ৮৯, বীর উত্তম সি আর দত্ত সড়ক (সোনারগাঁও রোড), বাংলামোটর, ঢাকা।

ফোন : +৮৮-০২-৯৬৩২৩৬৮-৭৪, ফ্যাক্স : +৮৮-০২-৯৬৩২৩৭৫। ই-মেইল : [email protected]